February 9, 2023

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Thursday, December 29th, 2022, 8:16 pm

দুই গোল করে যা বললেন হলান্ড

অনলাইন ডেস্ক :

লম্বা বিরতিতে মরচে ধরবে কী, আর্লিং হলান্ড যেন ফিরলেন আরও শাণিত হয়ে। বিশ্বকাপ বিরতির পর ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে প্রথম ম্যাচে খেলতে নেমেই করলেন দুই গোল। তাতেও অবশ্য তৃপ্ত নন ম্যানচেস্টার সিটির ফরোয়ার্ড। আরও বেশি গোল করতে পারতেন বলেই বিশ্বাস তার। প্রিমিয়ার লিগে বুধবার রাতে লিডস ইউনাইটেডকে ৩-১ গোলে হারায় ম্যানচেস্টার সিটি। দ্বিতীয়ার্ধে ১৩ মিনিটের মধ্যে দুটি গোল করেন হলান্ড। চলতি মৌসুমে সিটিতে আসার পর থেকেই অসাধারণ ফর্মে থাকা ফরোয়ার্ড সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ২৬ গোল করে ফেললেন ২০ ম্যাচে। এর মধ্যে প্রিমিয়ার লিগে স্রেফ ১৪ ম্যাচেই ২০ গোল করে গড়লেন দারুণ এক রেকর্ড। প্রিমিয়ার লিগে দ্রুততম ২০ গোলের রেকর্ড আগে ছিল কেভিন ফিলিপসের। ওই ইংলিশ স্ট্রাইকারের লেগেছিল ২১ ম্যাচ। লিডসের মাঠে এই ম্যাচে প্রথমার্ধে একের পর এক আক্রমণ ও গোলে শট নিয়েও প্রথমার্ধে একটির বেশি গোল পায়নি সিটি। হলান্ড পাননি কোনো গোল। দ্বিতীয়ার্ধে দুই গোল করেও তাই মন ভরেনি তার। ম্যাচ শেষে ২২ বছর বয়সী তারকা অ্যামাজনকে বললেন, মৌসুমে মোট গোলের একটি লক্ষ্য তিনি ঠিক করেছেন, তবে তা খোলাসা করতে চান না। “গোলের একটি লক্ষ্য আমার আছে, তা খোলাসা করতে চাই না। ড্রেসিং রুমের ভেতরে মাত্রই বলে এলাম, এই ম্যাচে পাঁচটি গোল করতে পারতাম।” “সবচেয়ে জরুরি ব্যাপার অবশ্য আমরা জিতেছি। আর্সেনালকে তাড়া করে যেতে হবে আমাদের। হ্যাঁ, আমি দুটি গোল করেছি, আরও কিছু করতে পারতাম। তবে এটাই জীবন, আমাকে আরও কঠোর পরিশ্রম করে যেতে হবে।” ১৫ ম্যাচে ৪০ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষে আর্সেনাল। সমান ম্যাচে ৩৫ পয়েন্ট নিয়ে সিটি আছে দুইয়ে। এই সময়ে বিশ্বের সেরা তারকাদের একজন হলেও হলান্ডকে বিশ্বকাপে দেখা যায়নি তার দেশ নরওয়ে কোয়ালিফাই করতে না পারায়। বিশ্বকাপ খেলতে না পারার আক্ষেপ তাকে পুড়িয়েছে বটে। তবে তাতে আরও বাড়তি প্রেরণার রসদও পেয়েছেন তিনি। “বাড়িতেই ছিলাম আমি, বিশ্বকাপ খেলতে না পারায় পাগল পাগল লাগছিল। তবে আরও তরতাজা হয়েছি এই সময়ে। অন্যান্যের দেখেছি বিশ্বকাপে গোল করে দলকে জেতাচ্ছে, এটা আমাকে আরও তাড়না জুগিয়েছে, অনুপ্রাণিত করেছে। এখন আমি আরও ক্ষুধার্ত ও যে কোনো সময়ের চেয়ে বেশি প্রস্তুত।”