August 13, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, August 1st, 2022, 8:04 pm

দুই লাল কার্ডের ম্যাচে চট্টগ্রাম আবাহনীর জয়

অনলাইন ডেস্ক :

লিগের শেষ রাউন্ডে এসে উত্তেজনাপূর্ণ এক ম্যাচ উপহার দিল চট্টগ্রাম আবাহনী ও বাংলাদেশ পুলিশ। আক্রমণ পালটা আক্রমণ ও দুই লাল কার্ডের ম্যাচে শেষ হাসি হেসেছে মারুফুল হকের দল। এগিয়ে গিয়েও শেষ পর্যন্ত হার দিয়ে লিগ শেষ করল পুলিশ। কুমিল্লার শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়ামে সোমবার বাংলাদেশ পুলিশকে ৩-২ ব্যবধানে হারায় চট্টগ্রাম আবাহনী। জোড়া গোল করেন পিটার থ্যাংকগড। প্রথম লেগে ২-১ গোলে জিতেছিল চট্টগ্রাম আবাহনী। ২২ ম্যাচে ৩১ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম অবস্থানে উঠে এল চট্টগ্রাম আবাহনী। এক ম্যাচ কম খেলে ৩০ পয়েন্ট নিয়ে ছয়ে মোহামেডান। ২২ ম্যাচে ৩০ পয়েন্ট নিয়ে সাতে পুলিশ। এক ম্যাচ কম খেলে তাদের ঠিক পেছনেই শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। কুমিল্লায় দশম মিনিটে মোনায়েম খান রাজুর কর্নার থেকে হেডে পুলিশকে এগিয়ে নেন ক্রিস্তিয়ান কোয়াকু। ২৮ মিনিটে সমতায় ফেরে চট্টগ্রাম আবাহনী। ক্যান্ডি অগাস্টিনের ক্রস বুক দিয়ে নামিয়ে নিখুঁত শটে সমতা ফেরান পিটার থ্যাঙ্কগড। ৪৯ মিনিটে ক্যান্ডি অগাস্টিনের গোলে ২-১ এগিয়ে যায় চট্টগ্রাম আবাহনী। নিজেদের অর্ধ থেকে ওমিদ পোপালজাইয়ের থ্রু পাস ধরে অফসাইড ফাঁদ ভেঙে প্লেসিং শটে জাল খুঁজে নেন ক্যান্ডি। ৬১ মিনিটে জোড়া গোল পূরণ করেন পিটার থ্যাংকগড। ক্যান্ডি অগাস্টিনের কাটব্যাক পুলিশের গোলকিপার নেহালের হাত লেগে চলে যায় থ্যাংকগডের পায়ে, ঠান্ডা মাথায় বল জালে পাঠান নাইজেরিয়ান এই স্ট্রাইকার। এবারের লিগে এটি তাঁর ২০তম গোল। ৭৫ মিনিটে চট্টগ্রাম আবাহনীর বক্সে কোয়াকুকে ফেলে দেন ডিফেন্ডার অপু। পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। এই ফাউলকে কেন্দ্র করে কথার লড়াইয়ে জড়িয়ে পড়ে দুই দলের খেলোয়াড়েরা। পুলিশের কোয়াকু ও আবাহনীর সোহেল রানারকে সরাসরি লাল কার্ড দেখান রেফারি বিতুরাজ বড়ুয়া। পেনাল্টি থেকে পুলিশের ব্যবধান কমান আমিরুদ্দিন শরিফি। বাকি সময়ে ম্যাচে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেও পারেনি পুলিশ।