November 28, 2021

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, September 21st, 2021, 11:41 am

ধর্ষনের ভিডিওর ভয় দেখিয়ে কিশোরীকে ৫ মাস ধরে ধর্ষণ

জেলা প্রতিনিধি:

ধর্ষনের ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে টানা ৫ মাস ধরে এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক জাতীয় পার্টির নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। ঐ নেতার নাম হোসেন আলী। সে জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির ময়মনসিংহ জেলা শাখার সভাপতি। রোববার (১৯ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত ১২টায় নগরীর কৃষ্টপুর এলাকা থেকে আটক করে র‌্যাব-১৪। পরে কোতোয়ালি মডেল থানায় সোপর্দ করা হয়। এদিকে ঐ কিশোরীর বাবার দায়ের করা মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে এই ধর্ষককে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠায় পুলিশ।
পুলিশ ও মামলার এজাহারে জানাযায়, নগরীর কৃষ্টপুর এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকার সুবাদে প্রতিবেশি স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সভাপতি হোসেন আলী নিয়মিত কিশোরীর বাসায় যাতায়ত ছিল। চলতি বছরের জানুয়ারির মাঝামাঝি সময়ে হোসন আলীর তৃতীয় স্ত্রী তামান্না বেগম ঐ কিশোরীকে তাদের ঘরে ডেকে নিয়ে গিয়ে পূর্বপরিকল্পিত ভাবে সেভেন-আপের সাথে নেশা জাতীয় ওষুধ সেবন করায়। এতে কিশোরী অজ্ঞান হয়ে পড়লে তাকে ধর্ষণ করে এবং মোবাইলে সেই ভিডিও ধারন করে হোসেন আলী। এ ঘটনাটি প্রকাশ করলে ওই ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকিও দেয়। এভাবে হোসেন আলীর স্ত্রী তামান্না বেগম ওই কিশোরীকে প্রায়ই ডেকে এনে তার স্বামী হোসেন আলীর সাথে শারীরিক সম্পর্ক করতে দিয়ে ঘরের দরজা বন্ধ করে দিয়ে বাইরে বসে পাহাড়া দেয়। এই ভাবে টানা ৫ মাস ধরে ওই কিশোরীকে ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করে হোসেন আলী। অত্যাচারের মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় পরবর্তীতে ঘটনাটি কিশোরী তার মাকে জানালে মান-সম্মানের ভয়ে তারা ভাড়া বাসা ছেড়ে অন্যত্র চলে যায়। কিন্তু ধর্ষক হোসেন আলী সেখানেও অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের নিয়ে এলাকায় মহড়া দিয়ে কিশোরী মেয়েকে উঠিয়ে নিয়ে আসার হুমকি দেয়। এ বিষয়ে ভূক্তভোগীর বাবা প্রতিকার চেয়ে র‌্যাবের কাছে আবেদন করে। পরে র‌্যাব ১৯ সেপ্টেম্বর হোসেন আলীকে আটক করে।
কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি শাহ কামাল আকন্দ জানান, এ ঘটনায় ভিকটিমের বাবা বাদি হয়ে থানায় ধর্ষন মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায় হোসেন আলী ও তার স্ত্রী তামান্না বেগমকে (১৯) কে আসামি করা হয়েছে। ধর্ষককে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।