June 19, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, June 10th, 2024, 8:11 pm

নিরাপত্তাজনিত কারণে গাজার মার্কিন জেটিতে ত্রাণ বিতরণ বন্ধ করেছে জাতিসংঘের খাদ্য সংস্থা

জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির পরিচালক বলেছেন, গাজার কাছে আমেরিকার নির্মিত একটি জেটি থেকে মানবিক ত্রাণ বিতরণ ‘স্থগিত’ করা হয়েছে। সেখানে প্রাণঘাতী হামলার পর রবিবার তিনি বলেন, ‘আমাদের জনগণের নিরাপত্তা নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন।’

শনিবার ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর চারজন জিম্মিকে মুক্ত করা হলেও, এ সময় ২৭৪ জন ফিলিস্তিনি ও একজন ইসরায়েলি কমান্ডো নিহত হয়েছেন।

সিন্ডি ম্যাককেইন বলেন, গাজায় ডব্লিউএফপির দুটি গুদামে ‘রকেট হামলা’ চালানো হয়েছে এবং একজন কর্মী আহত হয়েছেন।

জাতিসংঘের এই স্থগিতাদেশের ঘোষণাকে মার্কিন সমুদ্র পথের জন্য সর্বশেষ ধাক্কা বলে মনে করা হচ্ছে। গাজার ক্ষুধার্ত মানুষের জন্য আরও সহায়তা আনতেই এই রুটটি স্থাপন করা হয়েছিল।

এই বিরতিকে গাজার মানবিক সহায়তাপ্রাপ্ত সম্প্রদায়ের নিরাপত্তা পর্যালোচনার অনুমতি দেওয়ার পদক্ষেপ হিসেবে মনে করছে ইউএস এজেন্সি ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট। ইউএসএআইডি বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি ও গাজায় তাদের মানবিক অংশীদারদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র পরিচালিত জেটি থেকে আসা খাদ্য ও অন্যান্য সহায়তা বিতরণের জন্য কাজ করে।

মে মাসের মাঝামাঝি সময়ে সম্পন্ন, মার্কিন জেটি দুই সপ্তাহের জন্য ঝড়ের ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে বন্ধ থাকার আগে প্রায় এক সপ্তাহের জন্য চালু ছিল। মেরামতের পরে, এটি শনিবার আবার চালু করা হয়, ১.১ মিলিয়ন পাউন্ডের (৪৯২ মেট্রিক টন) খাবার ও অন্যান্য সহায়তা নিয়ে আসে।

এরপরই রবিবার ম্যাককেইন বলেন, তার সংস্থা ত্রাণ বিতরণের কাজ বন্ধ করে দিচ্ছে।

তবে এই বিরতি কতদিন স্থায়ী হবে সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানায়নি সংস্থাটি। এ বিষয়ে বিস্তারিত জানার অনুরোধ করলেও সাড়া দেননি ডব্লিউএফপির মুখপাত্ররা।

সিবিএসের ‘ফেস দ্য নেশন’ অনুষ্ঠানে জেটির কার্যক্রম সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে ম্যাককেইন বলেন, ‘এই মুহূর্তে আমরা বন্ধ করে দিয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘গতকালের ঘটনার পর আমাদের জনগণের নিরাপত্তা নিয়ে আমি উদ্বিগ্ন। আমাদের দুটি গুদাম ও গুদাম কমপ্লেক্সে গতকাল রকেট হামলা করা হয়েছিল।’

ম্যাককেইন বলেন, ‘আমরা এই মুহূর্তের জন্য পিছিয়ে এসেছি। আমরা পুনরায় শুরু করার আগে আমাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে চাই। তবে দেশের বাকি অন্যান্য অঞ্চলে কার্যক্রম চলছে। উত্তর ও দক্ষিণে আমরা যা পারি, তা করছি।’

ইউএসএআইডি অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলেছে, তারা অন্যান্য মার্কিন সরকারি কর্মকর্তা এবং গাজায় মানবিক সহায়তা গোষ্ঠীগুলোর সঙ্গে কাজ করছে। যাতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা যাচাইয়ের পর নিরাপদে ও কার্যকরভাবে আবারও কার্যক্রম শুরু করতে পারে। মানবিক সহায়তা প্রদানকারী সম্প্রদায়টি বর্তমানে সে বিষয়ে কাজ করছে।

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন মার্চ মাসে তার স্টেট অব দ্য ইউনিয়ন ভাষণে ঘোষণা করেছিলেন, তিনি মার্কিন সামরিক বাহিনীকে অস্থায়ী জেটি স্থাপনের নির্দেশ দিয়েছেন। মার্কিন প্রকল্পের মাধ্যমে গাজায় সীমিত পরিমাণে সহায়তা আনার কথা ছিল। সেই স্থান অতিক্রম ও সেখানে যুদ্ধ করার বিষয়ে ইসরায়েলি নিষেধাজ্ঞা ছিল। গাজার ২.৩ মিলিয়ন লোকের মধ্যে ১ মিলিয়নেরও বেশি লোক দুর্ভিক্ষের শিকার হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বেশ কিছুদিন বন্ধ থাকার পর শনিবার মার্কিন জেটি প্রকল্পের কার্যক্রম আবার শুরু হয়েছিল। একই দিনে একটি ভারী বিমান হামলা ও স্থল আক্রমণ চালিয়ে চারজন জিম্মিকে উদ্ধার করে ইসরায়েল।

ইসরায়েলি সামরিক অভিযানের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের দাবির বিপরীতে মার্কিন সেন্ট্রাল কমান্ড শনিবার এক টুইট বার্তায় বলেছে, ইসরায়েলি অভিযানে জেটি বা এর কোনো সরঞ্জাম, কর্মী বা অন্যান্য সম্পদ ব্যবহার করা হয়নি। এতে উল্লেখ করা হয়েছে, ইসরায়েল ‘জিম্মিদের নিরাপদে ফিরিয়ে দিতে’ জেটির দক্ষিণে একটি অঞ্চল ব্যবহার করেছিল।

মানবিক গোষ্ঠীগুলোর একটি মূল নীতি হলো, তাদের কাজ অবশ্যই সংঘাতপূর্ণ এলাকায় যোদ্ধাদের মিশন থেকে স্বাধীন হতে হবে; যাতে ত্রাণ তৎপরতা ও ত্রাণ কর্মীরা লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত না হয়।

ইউএসএআইডি শনিবার পৃথক এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ইসরায়েলি অভিযানে কোনো মানবিক সহায়তা কর্মী জড়িত ছিল না।

ডব্লিউএফপির গুদামগুলোতে ‘রকেট হামলা’ নিয়ে কথা বলতে গিয়ে ম্যাককেইন রবিবার বলেন, একজন কর্মী আহত হয়েছেন, তবে ‘বাকি সবাই ভালো আছেন’।

তিনি বলেন, এজন্য যুদ্ধবিরতি জরুরি। এজন্য আমাদের এটা বন্ধ করতে হবে।

—–ইউএনবি