February 27, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, February 17th, 2023, 9:34 pm

নৌপথে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে পণ্য পরিবহণ বাড়ছে

ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নৌ প্রটোকল চুক্তির আওতায় বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পণ্য পরিবহণ বেড়েই চলছে। মূলত একই সঙ্গে অনেক পণ্য পরিবহণ সুবিধা, যাতায়াত খরচ কমসহ নানা কারণে নৌপথে পণ্য পরিবহণে ব্যবসায়ীদের আগ্রহ বেড়েছে। চলতি অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে অর্থাৎ জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত নৌপথে১০ লাখ ৫৬ হাজার ১৯৯ টন পণ্য পরিবাহিত হয়েছে। নৌযানের ১ হাজার ১৭৪টি ট্রিপে ওসব পণ্য পরিবহণ করা হয়। তার আগের বছর ২০২১-২২ অর্থবছরে ৪৭ লাখ ৪১ হাজার ৬৫ মেট্রিক টন, ২০২০-২১ অর্থবছরে ৩৯ লাখ ৫৯ হাজার ৮৮৫ মেট্রিক টন এবং ২০১৯-২০ অর্থবছরে ২৭ লাখ ৮০ হাজার ৪১৬ মেট্রিক পণ্য পরিবাহিত হয়। নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।
সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, নৌপথে পণ্য পরিবহণে একচেটিয়াভাবে বাংলাদেশি মালিকানাধীন জাহাজ থাকলেও ক্রমেই তা কমে আসছে। বাংলাদেশের মলিকানাধীন জাহাজ গত অর্থবছরে দুই দেশের পরিবাহিত পণ্যের ৮৯ ভাগ পরিবহণ করেছে। ভারতীয় মালিকাধীন জাহাজ বাকি ১১ ভাগ পরিবহণ করেছে। অথচ আগের বছর ২০১৬-১৭ অর্থবছরে বাংলাদেশি মালিকানাধীন জাহাজে ৯৯ শতাংশই মাল পরিবাহিত হয়েছে আর বাকি এক শতাংশ পণ্য ভারতের জাহাজে পরিবাহিত হয়।
সূত্র জানায়, দুই দেশের মধ্যে উপকূলীয় জাহাজ চলাচল চুক্তি রয়েছে। ওই চুক্তির আওতায় ৬ হাজার গ্রস টনের সক্ষমতার জাহাজ চলাচল করে। সেখানেও বাংলাদেশের জাহাজ বেশি পণ্য পরিবহণ করতো। কিন্তু চুক্তি সংশোধন নিয়ে দুই দেশের মধ্যে ঐকমত্য না হওয়ায় ওই চুক্তির আওতায় জাহাজ চলাচলে স্থবিরতা বিরাজ করছে। ১৯৭২ সাল থেকে নৌপথে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পণ্য পরিবহণ চলে আসছে। ‘অভ্যন্তরীণ নৌপথে অতিক্রমণ ও বাণিজ্য প্রটোকল’ (পিআইডব্লিউটিঅ্যান্ডটি)-এর আওতায় অভ্যন্তরীণ নৌপথের মাধ্যমে এবং ‘উপকূলীয় জাহাজ চলাচল চুক্তি’র আওতায় নৌ ও সমুদ্র উভয় পথে পণ্য পরিবাহিত হয়।