October 6, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Saturday, January 15th, 2022, 8:30 pm

পানছড়ি সীমান্ত ছিল অঘোষিত উন্মুক্ত করোনা ঝুঁকির মধ্যে ত্রিপুরায় ডম্বুর মেলায় বাংলাদেশিদের ঢল

ভারতের ত্রিপুরায় ডম্বুর মেলা তেকে কেনাকাটা করে পানছড়ি সীমান্ত পরে দেশে ফিরছে বাংলাদেশীরা

জেলা প্রতিনিধি, খাগড়াছড়ি :
খাগড়াছড়ির পানছড়ি সীমান্ত দিয়ে অসংখ্য বাংলাদেশি করোনা ঝুঁকির মধ্যে ভারতের ত্রিপুরার গোমতিতে ডম্বুর মেলায় অংশ নিয়েছে।দুই দেশের সীমান্তরক্ষীবাহিনীর শিথিলতার সুযোগ নিয়ে শত-শত নারী-পুরুষ পানছড়ির দুদকছড়া সীমান্ত পথে ঐ মেলায় যায়। আগরতলার বিভিন্ন দৈনিকের খবর অনুযায়ী ত্রিপুরা রাজ্যে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের সংক্রমনের হার খুব্ই উধমুখি। বৃহষ্পতিবার ২৪ ঘন্টায় প্রায় ৯০০জন আক্রান্ত হয় ঐ রাজ্যে। এধরণের ভয়ানক ঝুঁকির মধ্যে বিপুল সংখ্যক লোক ঐমেলায় অংশ নিয়ে দেশে ফেরায় খাগড়াছড়িতে ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ার আশংকা করা হচ্ছে।
জানাযায়, ত্রিপুরা রাজ্যের গোমতী জেলার গোমতী নদীর উৎসমুখে বাধ দিয়ে তৈরি করা ডম্বুর লেকে প্রতি বছরই ১৩ ও ১৪ জানুয়ারি ডম্বুর মেলা বা কম্ভু মেলা
অনুষ্ঠিত হয়। গোমতীর উৎসমুখ ঐখানকার মানুষের কাছে তীর্থস্থান হিসেবে স্থান করে নেয়। কথিত আছে, মহাদেবের ডুমুরু থেকেই ‘ডুম্বুর’ নাম। প্রতি বছর মকর সংক্রান্তি তিথিতে ঐখানে বিরাট মেলা হয়। মানুষের বিশ্বাস ধর্ম আর সংস্কৃতির স্বরূপ এই তীর্থমুখের মেলা ত্রিপুরার কুম্ভমেলা নামে পরিচিত। এই মেলা মকর সংক্রান্তি তিথিতে গোমতীর উৎস স্থলে পূর্বপুরুষদের উদ্দেশ্যে তর্পণ করে পুণ্যার্থীরা । নদীতে পুণ্যস্নান, পিন্ডদান ইত্যাদি ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান করতে ভারতের হাজার-হাজার পুন্যার্থী যোগ দেয় ঐমেলায় । বাংলাদেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে ত্রিপুরা জনগোষ্ঠী ও সনাতনী হিন্দু সম্প্রদায় এ উৎসবে যোগ দিতে যায়। মৃত পূর্ব পুরুষদের উদ্দেশে তারা তর্পণ ও পিণ্ডদান করেন ওখানে।
জানাযায়, বতমানে করোনা সংক্রমনের ঝুঁকি উপেক্ষা করে বিপুল সংখ্যক নারী পুরুষ পানছড়ি সীমান্ত দিয়ে ঐ মেলায় অংশ নিতে যায়। বৃহষ্পতি ও শুক্রবার এ দুদিনই পানছড়ির সীমান্তবর্তী দুদকছড়া এলাকা দিয়ে শত-শত মানুষ মেলায় যাওয়া-আসা করে অবাধে। অধিকাংশ মানুষই কেনাকাটা করে দেশে ফিরে আসে। মেলার ব্যাপক জনসমাগমে বিচরণের পর দেশে ফেরায় খাগড়াছড়িতে করোনা সংকমনের আশংকা দেখা দিয়েছে।
এদিকে, সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি অবৈধ সীমান্ত পারাপারে অনেকটাই নিষ্ক্রীয় ছিল বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। এ ব্যাপারে কথা বলতে খাগড়াছড়ির গণমাধ্যমকর্মী সেখানকার বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়কের মুঠো ফোনে একাধিকবার কল করেও পাননি। তবে পানছড়ি উপজেলা নির্বাহি অফিসার রুবাইয়া আফরোজ বলেন, মেলায় যোগ দিতে আসা সীমান্ত অভিমুখি হাজার হাজার নারী পুরুষকে ঠেকাতে বিজিবি ও পুলিশ নিয়োজিত আছে। তিনি জানান, স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করে জমায়েত হওয়ার অপরাধে ১৫ ব্যক্তিকে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে সাড়ে ১২ হাজার টাকা জরিমানা
করা হয়েছে।