January 19, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, December 28th, 2021, 8:08 pm

পুলিশ এফসিকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে চট্টগ্রাম আবাহনী

অনলাইন ডেস্ক :

স্বাধীনতা কাপে ভালো করতে পারেনি মারুফুল হকের চট্টগ্রাম আবাহনী। অপেক্ষাকৃত দুর্বল দল নিয়ে গ্রুপ পর্ব থেকেই ছিটকে গেছে। তবে ফেডারেশন কাপে ‘সি’ গ্রুপের প্রথম ম্যাচে বন্দরনগরীর দলটি তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছেড়েছে। মঙ্গলবার পুলিশ এফসিকে ২-০ গোলে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালও নিশ্চিত করেছে তারা। অপর দিকে প্রথম ম্যাচে সাইফ স্পোর্টিংয়ের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করায় শেষ আটে যাওয়া অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে পুলিশের। গ্রুপের শেষ ম্যাচে লড়বে সাইফ স্পোর্টিং ও চট্টগ্রাম আবাহনী। ওই ম্যাচে ড্র করলেই শেষ আটে যাবে সাইফ। কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে দুই বিদেশি ছাড়াই ম্যাচের শুরুতে পুলিশের রক্ষণে হানা দেয় চট্টগ্রাম আবাহনী। তাতে দ্বিতীয় মিনিটেই চট্টগ্রামের এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ তৈরি হয়েছিল। এক ডিফেন্ডারের ব্যাক পাস গোলকিপার মোহাম্মদ নেহাল ঠিকমতো ক্লিয়ার করতে পারেনি। বল নিয়ন্ত্রণে নিয়েও সেটি লক্ষ্যে পাঠাতে পারেননি রুবেল মিয়া। সামনে থাকা এক ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে কোনাকুনি শট নিলে তা ক্রস বারের ওপর দিয়ে চলে গেছে। ২০ মিনিটে আবারও চট্টগ্রামের দলটি সুযোগ পেয়েছিল। ডান দিক থেকে রুবেল মিয়ার খানিকটা উঁচু ক্রস বক্সের মধ্যে অরক্ষিত অবস্থায় থেকেও ঠিক মতো নিয়ন্ত্রণে নিতে পারেননি ফরোয়ার্ড শাখাওয়াত হোসেন রনি। তবে ৪ মিনিট পর আর ভুল হয়নি। মিডফিল্ডার সোহেল রানার পাসে অফ সাইডের ফাঁদ ভেঙে বক্সে ঢুকে পড়েন আরিফুর রহমান। দৌড়ে গিয়ে বাঁ পায়ের শটে লক্ষ্যভেদ করেন তিনি। বিরতি থেকে ফিরে সমতায় ফেরার সুযোগ পেয়েছিল পুলিশ এফসিও। কিন্তু বক্সে ঢুকে ফরোয়ার্ড মহিদুল ইসলাম লক্ষ্যে শট নিলেও তা ক্রস বারের সামান্য ওপর দিয়ে চলে গেছে। ৫২ মিনিটে চট্টগ্রাম আবাহনীও প্রতিআক্রমণে ওঠে। কিন্তু আফ্রিকান ফরোয়ার্ড এনকুলুলেকো তাওয়ালার পাসে শাখাওয়াত রনি শট নিলে গোলকিপার নেহাল ডান দিকে ঝাঁপিয়ে তা রক্ষা করেছেন। শেষ পর্যন্ত ৬০ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে চট্টগ্রাম আবাহনী। মনিরের ছোট কর্নার থেকে বক্সের বাইরে বল পান কামরুল ইসলাম, তার বাঁ পায়ের হাওয়ায় ভাসানো বাঁকানো ক্রস দৌড়ে এসে এনকুলুলেকো তাওয়ালা লাফিয়ে মাথা ছোঁয়ালে বল গোললাইন অতিক্রম করে। ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার দানিলো অগোস্তো বল ক্লিয়ার করলেও সহকারী রেফারি রাসেল গোলের পতাকা দেখিয়ে দেন।