June 12, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Sunday, May 5th, 2024, 3:37 pm

প্রবাসী ছেলেকে একের পর এক মিথ্যা মামালা থেকে বাঁচাতে মায়ের আকুতি

জেলা প্রতিনিধি, মৌলভীবাজার:

কুলাউড়ায় কাতার প্রবাসী এক নিরীহ ছেলেকে একের পর এক মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করছে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী এক প্রভাবশালী ব্যক্তি। কাতার প্রবাসী শাওন দীর্ঘদিনপর গত বছরের ৪ ডিসেম্বর ছুটিতে দেশে আসলে মাত্র ৩ মাসের ব্যবধানে তার উপর ৪টি মামলা দায়ের করা হয়। আর এসব মামলার নৈপথ্যে রয়েছে আমেরিকা প্রবাসী রিপন ।

প্রভাবশালী মো. রিপন মিয়া বাংলাদেশে এক সময় প্রয়াত অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের গাড়ী চালক ছিলো। পরবর্তীতে সে শ্রীমঙ্গল পৌরসভার বর্তমান মেয়র মহসীন মিয়া মধুর গাড়ী চালক ছিলেন। বর্তমানে সে যুক্তরাষ্ট্রে দীর্ঘদিন থেকে বসবাস করছে। নিরপরাধ শাওনরে উপর থেকে এসব মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার চেয়ে তার মাতা খাতিবুন নেছা রবিবার (৫ মে) কুলাউড়া প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী রিপন তার সম্পর্কে বোনের মেয়ের স্বামী। যুক্তরাষ্ট্রে বেশ কিছুদিন থেকে রিপন তার স্ত্রীর উপর অমানুষিক নির্যাতন শুরু করলে তার বোন ঝি রিমা রিপনকে তালাক দিয়ে অনত্র চলে যায়। এরপর থেকে রিপনের সাথে তাদের দূরত্ব সৃষ্টি হয়। এর মধ্যে বোন ঝি রিমা যুক্তরাষ্ট্র থেকে তার ছেলে কাতার প্রবাসী শাওনের বিয়ের জন্য একজন পাত্রী খুঁজে দেন। এবং ওই পাত্রী বিয়ের জন্য বাংলাদেশে আসলে শাওন কাতার থেকে প্রায় ৪ মাস আগে দেশে চলে আসে। এর মধ্যে তাদের বিবাহ সম্পন্ন হয়। এ কারনে যুক্তরাষ্ট্র থেকে রিপন হিংসার বশীভূত হয়ে শাওনের পরিবারকে পথে নামানোর নানা হুমকি প্রদান করে। যার কারনে শাওন দেশে আসার মাত্র ৩ মাসের মধ্যে তার উপর দেশের বিভিন্ন স্থানে ৪টি মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়।

জানা যায় রিপন যুক্তরাষ্ট্র থেকে সকল অর্থ দেশে অবস্থানরত শাইস্তা মিয়া নামে এক ইউপি সদস্যর কাছে পাঠায় এবং তাকে দিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে ভাড়া করা বাদি তৈরি করে শাওনের বিরুদ্ধে এসব মিথ্যা মামলা দায়ের করে যাচ্ছে। জানা যায় এসব মামলার বাদিদের সাথে শাওনের পরিবারের কারো সাথে কোন পূর্ব পরিচয় বা শত্রুতা নেই। এসব সকল মিথ্যা মামলাগুলো সঠিক তদন্ত করে তার ছেলেকে হয়রানী থেকে মুক্ত করতে তিনি প্রধানমন্ত্রীসহ পুলিশ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকতাদের সুদৃষ্টি কামনা করেন।

এ ব্যাপারে দেশে মামলা পরিচালনাকারী ইউপি সদস্য শাইস্তা মিয়ার সাথে যোগাযোগ করা হলে মুঠোফোনে তিনি জানান, বিষয়টি মিথ্যা তাদের সাথে আমার কোন যোগাযোগ নেই।