October 4, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, December 31st, 2021, 7:32 pm

ফকিরহাটে শতভাগ মানুষকে টিকাদান

ফাইল ছবি

বাংলাদেশের প্রথম উপজেলা হিসেবে বাগেরহাটের ফকিরহাটে করোনার টিকা পাওয়ার যোগ্য শতভাগ মানুষ কমপক্ষে এক ডোজ টিকা নিয়েছেন। এমন সময়ে এ উল্লেখযোগ্য অর্জন হলো যখন বিশ্বের বিভিন্ন দেশ টিকার নেয়ার বিষয়ে মানুষকে বুঝাতে লড়াই করছে।
বৃহস্পতিবার ফকিরহাট প্রথম উপজেলা হিসেবে টিকা পাওয়ার যোগ্য শতভাগ মানুষকে এক ডোজ টিকা দেয়া সম্পন্ন করেছে।
ফকিরহাট উপজেলায় এক লাখ ৬৩ হাজার মানুষ বসবাস করেন। তারা মাসের পর মাস ও দিনের পর দিন দীর্ঘ সারিবদ্ধ হয়ে টিকার জন্য কেন্দ্রে দাঁড়িয়েছেন।
ছাত্র, শিক্ষক, কৃষক, কুমার- বৃদ্ধ, তরুণ, ধনী, দরিদ্র, উচ্চ বা কম শিক্ষিত- সবাই তাদের নাম ডাকা হলে উপস্থিত হয়েছেন এবং কয়েক সপ্তাহ পর আবার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন।
স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের জ্যৈষ্ঠ সচিব লোকমান হোসেন মিয়া উপজেলায় এক কর্মসূচিতে বলেন, ফকিরহাট বাংলাদেশের প্রথম উপজেলা যেখানে টিকা পাওয়ার যোগ্য শতভাগ মানুষ টিকা নিয়েছেন। এটা অনন্য এক অর্জন। ফকিরহাটের অভিজ্ঞতা আমরা অন্যান্য উপজেলায় ব্যবহার করব।
ফকিরহাট উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান স্বপন কুমার দাস বলেন, ১২ বছর বয়সের বেশি টিকা পাওয়ার যোগ্য সব মানুষ ফকিরহাটে টিকা নিয়েছেন। এক লাখ ৬৩ হাজার মানুষ বাস করেন এ উপজেলায়। এক লাখ ২৬ হাজার টিকা পাওয়ার যোগ্য মানুষের বিপরীতে টিকা নিয়েছেন এক লাখ ২০ হাজার মানুষ এবং এ উপজেলার বাইরে বসবাস করা ছয় হাজার মানুষও টিকা নিয়েছেন। এর মাধ্যমেই শতভাগ মানুষ টিকা নিলেন।
আর উপজেলা চেয়ারম্যান এ সাফল্যের কৃতিত্ব দিয়েছেন বিভিন্ন কর্মসূচি যেমন মেগা টিকাদান কর্মসূচি, বয়স্ক নাগরিকদের জন্য বিশেষ কর্মসূচি, বাড়ি বাড়ি কর্মসূচি ও সর্বস্তরের জননেতাদের সম্পৃক্ততাকে।
লোকমান হোসেন মিয়া বলেন, আমাদের ২৭ কোটি ডোজ টিকা প্রয়োজন। সরকার ২১ কোটি ডোজ এনেছে এবং ১০ কোটি উপহার হিসেবে পেয়েছে।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা ওই কর্মসূচিতে বলেন, আমরা ৬০ বছরের বেশি বয়সী মানুষদের বুস্টার ডোজ দেয়া শুরু করেছি এবং মার্চের মধ্যে নির্ধারিত জনসংখ্যার শতভাগকে সম্পূর্ণরূপে টিকা দিতে চাই।
তিন ধাপে ৮০ শতাংশ মানুষকে টিকা দেয়ার লক্ষ্যে গত ৭ ফেব্রুয়ারি সারা দেশব্যাপী টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়। দেশে বর্তমানে অ্যাস্ট্রাজেনেকা, ফাইজার, মডার্না, সিনোফার্ম ও সিনোভ্যাক –এ পাঁচ কোম্পানির টিকা দেয়া হচ্ছে।
দেশে এখন পর্যন্ত ৪৩ হাজার ৪টি বুস্টার ডোজসহ ১২ কোটি ৫৬ লাখ ৩০ হাজার ৬৭৯ ডোজ টিকা দেয়া হয়েছে।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, করোনা মহামারি শুরুর পর থেকে দেশে ১৫ লাখ ৮৪ হাজার ৮১১ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে এবং মারা গেছেন ২৮ হাজার ৭০ জন।

—ইউএনবি