June 27, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, May 30th, 2022, 7:43 pm

ফর্মে ফেরার সুযোগ দেখছেন ফিঞ্চ

অনলাইন ডেস্ক :

ব্যাট হাতে ধারাবাহিকতা নেই লম্বা সময় ধরে। অ্যারন ফিঞ্চের ছন্দহীনতা ভাবনার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেটে। চলছে সমালোচনাও। কঠিন সময় কাটিয়ে ওঠার পথ অবশ্য দেখতে পাচ্ছেন অস্ট্রেলিয়ার সাদা বলের অধিনায়ক। বললেন, ফর্মে ফিরতে কাজে লাগাতে চান আসছে ঠাসা সূচিকে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাকি নেই পাঁচ মাসও। ঘরের মাঠে শিরোপা ধরে রাখার চ্যালেঞ্জ থাকবে অস্ট্রেলিয়ার সামনে। কিন্তু অধিনায়ক যে নেই একদমই ছন্দে। দেশের হয়ে এই সংস্করণে নিজের সবশেষ ম্যাচে ফিফটির দেখা অবশ্য পেয়েছিলেন ফিঞ্চ। কিন্তু সেটাও ১৩ ইনিংস পর! আর ওয়ানডেতে গত দুই বছরে তো খেলাই হয়নি তার খুব একটা। গত মার্চ-এপ্রিলে পাকিস্তানে খেলেছিলেন তিন ম্যাচ, যেখানে দুই ম্যাচে খুলতে পারেননি রানের খাতাই। এর আগে এই সংস্করণে মাঠে নেমেছিলেন তিনি ২০২০ সালের ডিসেম্বরে। সদ্য সমাপ্ত আইপিএলেও নিজেকে সেভাবে মেলে ধরতে পারেননি ফিঞ্চ। কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে পাঁচ ম্যাচে রান করতে পারেন স্রেফ ৮৬। যেখানে ফিফটির দেখা পান একবার। পরে জায়গা হারান দলে। ফিঞ্চের বাজে ফর্ম নিয়ে সম্প্রতি সমালোচনা করেছিলেন শেন ওয়াটসন। সাবেক এই অলরাউন্ডার সরাসরিই বলেছিলেন, শুধুমাত্র অধিনায়ক হিসেবে একাদশে জায়গা পাওয়া উচিত নয় কারো। তার মতে, ফিঞ্চ যত ভালো অধিনায়কই হোক, রান না করতে পারলে সে দলের বোঝা হয়ে উঠবে। খারাপ সময় যাচ্ছে তার, মানছেন ফিঞ্চ নিজেও। ৩৫ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার সব সমালোচনার জবাব দিতে চান ব্যাট হাতে। সেই সুযোগ আসছে তার শিগগিরই। জুন-জুলাইয়ে শ্রীলঙ্কা সফরে তিনটি টি-টোয়েন্টি ও পাঁচটি ওয়ানডে খেলবে অস্ট্রেলিয়া। এরপর ঘরের মাঠে রয়েছে জিম্বাবুয়ে ও নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ। মাঝে ভারত সফরেও খেলার কথা রয়েছে তাদের। সব মিলিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে রানে ফেরার যথেষ্ট সুযোগ পাচ্ছেন ফিঞ্চ। সোমবার বললেন, ব্যস্ত এই সূচিতে নিজেকে মেলে ধরে শক্তভাবে ঘুরে দাঁড়াতে চান তিনি। “¯্রফে কিছু রান করতে হবে। আসলেই আমার খারাপ সময় যাচ্ছে। এ রকম কঠিন সময়ে আমি ক্যারিয়ারে বেশ কয়েক বার গিয়েছি। মাঝে মধ্যে এমন পর্যায় আসে, যখন দ্রুত প্রচুর রান করা যায়। এরপর আবার বাজে সময় আসে।” “ক্রিকেটের ব্যস্ত সূচিতে নিজেকে তৈরি করার অনেক সময় পাওয়া যাবে। আমার মনে হয়, বিশেষ করে ওয়ানডে ক্রিকেটে খুব ভালো করতে হবে। লম্বা একটা সময়ে আমরা এই সংস্করণে খুব বেশি খেলিনি। তাই বড় কিছু ইনিংস খেলে কিছু সময়ের জন্য সমালোচকদের মুখ বন্ধ করাটা হবে দারুণ।”