December 1, 2021

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, May 25th, 2021, 11:55 am

ফাইজারের দুই ডোজ ভারতীয় স্ট্রেন প্রতিরোধে সক্ষম : ব্রিটেনের স্বাস্থ্য বিভাগ

অনলাইন ডেস্ক :

ফাইজার-বায়োএনটেক কোভিড ভ্যাকসিনের দু’টি ডোজ ভারতীয় স্ট্রেন এবং ব্রিটেন স্ট্রেন দুই ভ্যারিয়্যান্টকেই প্রতিরোধে সক্ষম। অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজ়েনেকার কোভিড ভ্যাকসিনও দারুণ কাজে দিচ্ছে বলে দাবি করেছে ব্রিটেনের স্বাস্থ্য বিভাগ।

সেই জোরেই লকডাউন ধীরে ধীরে তুলে দেয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে ব্রিটেন প্রশাসন। ব্রিটিশ স্বাস্থ্য বিভাগের দেয়া এই সুখবরে কিছুটা হলেও স্বস্তিতে বরিস জনসন প্রশাসন।

ধাপে ধাপে করোনাবিধি শিথিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। ১৭ মে থেকে খুলে গিয়েছে অধিকাংশ দোকানপাট, রেস্তরা, ক্যাফে, পাব, এমনকি চিড়িয়াখানাও। অফিসেও যাচ্ছেন লোকজন। এক জায়গায় দু’টি পরিবারের জমায়েতকে অনুমতি দেয়া হয়েছে। বাড়ির বাইরে ক্যাফে, রেস্তরাতেও দেখা করতে পারেন তারা। পরিকল্পনা রয়েছে ২১ জুনের মধ্যে সমস্ত করোনা-বিধি তুলে দেয়া হবে।

ভারতীয় স্ট্রেনে সংক্রমিতের সংখ্যা যে ভাবে হু হু করে বাড়ছে, তাতে শেষ মুহূর্তে পিছু হটতে হতে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি। বিজ্ঞানীরাও জানিয়েছেন, ভারতীয় স্ট্রেনটি সম্পর্কে অনেক কিছু অজানা। অন্যান্য স্ট্রেনের থেকে এর ক্ষমতা ঠিক কত বেশি, সেই উত্তর জানা নেই। এ অবস্থায় একটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রকাশ করেছেন ব্রিটিশ স্বাস্থ্য বিভাগ। ‘পাবলিক হেল্‌থ ইংল্যান্ড’ (পিএইচই)-এর রিপোর্টে বলা হয়েছে, বি.১.৬১৭.২ স্ট্রেনের বিরুদ্ধে ৮৮ শতাংশ কার্যকরী ফাইজ়ার-বায়োএনটেক ভ্যাকসিন।

ব্রিটেনের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক বলেন, সে ক্ষেত্রে টিকাকরণের উপর ভরসা রেখে এক মাসের মধ্যে বন্দিদশা থেকে সম্পূর্ণ মুক্তি পেতে পারে ব্রিটেন।

অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজ়েনেকার ভ্যাকসিনটিও ভারতীয় স্ট্রেনের বিরুদ্ধে কার্যকারিতা প্রমাণ করেছে। তবে কিছুটা কম। গবেষণায় দেখা গিয়েছে এটি ভারতীয় স্ট্রেনের বিরুদ্ধে ৬০ শতাংশ কার্যকরী। এবং ব্রিটেন স্ট্রেনের বিরুদ্ধে ৬৬ শতাংশ কাজ দিচ্ছে।

হ্যানকক বলেন, আমার আত্মবিশ্বাস বাড়ছে। আমরা ঠিক পথেই হাঁটছি। পিএইচই-র দেওয়া তথ্যে স্পষ্ট, ভারতীয় স্ট্রেনের বিরুদ্ধে সমান ভাবে কাজ করছে ভ্যাকসিন।

নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা একেবারেই কমে গিয়েছিল ব্রিটেনে। কিন্তু সম্প্রতি ফের ১০.৫ শতাংশ বেড়েছে সংক্রমণ। বরিস জনসন দ্রুত টিকার দ্বিতীয় ডোজ দেয়ার কাজ শেষ করতে চাইছেন। আপাতত লক্ষ্য দেশে ৫০-ঊর্ধ্ব সকলের টিকা দেয়া শেষ করা।