August 17, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, January 11th, 2022, 9:16 pm

বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক আদর্শে বাংলাদেশ পরিচালিত হবে: প্রধানমন্ত্রী

ছবি: পি আই ডি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ১৯৭২ সালে ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দেয়া আদর্শিক ভাষণ অনুযায়ী বাংলাদেশ পরিচালিত হবে।
তিনি বলেন, ‘জাতির পিতা ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি তার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে দেশ পরিচালনার জন্য নীতি-নির্ধারণীমূলক ভাষণ ও আদর্শিক নির্দেশনা প্রদান করেন। সেই আদর্শ নিয়েই আমাদের এগিয়ে যেতে হবে; এটা দিয়েই দেশকে এগিয়ে নিতে হবে। যাই হোক না কেন বাংলাদেশের উন্নয়নের গতি যেন ব্যাহত না হয়।’
মঙ্গলবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন।
তিনি বলেন, ‘জনগণের ভোটে আওয়ামী লীগ টানা তিনবার ক্ষমতায় রয়েছে। ‘আমরা যদি জনগণের দ্বারা নির্বাচিত না হতাম তবে আমরা টানা তিন মেয়াদে ক্ষমতায় আসতে পারতাম না। ১৩ বছর পূর্ণও করতে পারতাম না। এটাই বাস্তবতা, এই বাস্তবতা স্বীকার করতেই হবে।’
আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে উন্নয়নের চাকা সচল থাকবে উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, যারা বাংলাদেশকে খুনি, যুদ্ধাপরাধী ও দুর্নীতির আস্তানায় পরিণত করেছে, তাদের এ দেশে কোনো স্থান হবে না। ‘এই (বার্তা) তাদের কাছে স্পষ্টভাবে পৌঁছে দিতে হবে।’
স্বাধীনতার পর জাতির পিতার শাসনামলের উত্তাল দিনগুলোর কথা স্মরণ করে তিনি বলেন, কিছু লোক বঙ্গবন্ধু সরকারের সমালোচনা করে কলাম লিখেছিল। আন্দোলন বা বৈজ্ঞানিক সমাজতন্ত্রের নামে দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করেছিল। ‘তারা আসলে কী করতে চেয়েছিল? এটা আমার প্রশ্ন কিন্তু আমি এখনও উত্তর পাইনি।’
আওয়ামী লীগের সব ভালো কাজের সমালোচনা করা এক শ্রেণির মানুষের অভ্যাস বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
উন্নয়নের নামে হাজার হাজার কোটি টাকা অপচয় করা হচ্ছে- এমন অভিযোগের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যদি হাজার হাজার কোটি টাকা অপচয় করা হতো তাহলে বাংলাদেশ কীভাবে বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত হলো।
গত ১৩ বছরে দেশের বিভিন্ন সাফল্যের গল্প সংক্ষেপে বর্ণনা করে শেখ হাসিনা বলেন, অনেক উন্নত ও ধনী দেশ করোনার টিকা বিনামূল্যে দিচ্ছে না।
তিনি বলেন, ‘আমরা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে টিকা দিচ্ছি। এখন পর্যন্ত ১৩ কোটি মানুষকে টিকা দেয়া হয়েছে।’
প্রাণঘাতী ভাইরাস থেকে সুরক্ষিত থাকতে সবাইকে টিকা নেয়ার আহ্বান পুনরায় জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দেশে টিকার কোনো ঘাটতি নেই।’
গত ১৩ বছরে আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে দেশে যে উন্নয়ন হয়েছে তার গতি অব্যাহত রাখার ওপরও জোর দেন তিনি।
আলোচনা অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ।
পাকিস্তানের কারাগারে ২৯০ দিন বন্দী থাকার পর ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু লন্ডন ও নয়াদিল্লি হয়ে স্বাধীন বাংলাদেশে আসেন।

—ইউএনবি