June 24, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, October 9th, 2023, 7:30 pm

বর্তমান সরকারের অধীনে বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচন সম্ভব নয়: মার্কিন প্রাক-নির্বাচন পর্যবেক্ষক দলকে বিএনপি

বাংলাদেশে সফররত যুক্তরাষ্ট্রের আইআরআই ও এনডিআই’র প্রাক-নির্বাচন পর্যবেক্ষক দলকে বিএনপি বলেছে,বর্তমান সরকারের অধীনে কোনো বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচন সম্ভব নয় কারণ তারা ভোট কারচুপিকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিয়েছে।

সোমবার বিএনপি চেয়ারপার্সনের গুলশানের কার্যালয়ে প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠকে বিএনপি এমন বিষয় তুলে ধরেছেন।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, ‘আমরা স্বাভাবিকভাবেই তাদের (মার্কিন দল) বলেছি যে শেখ হাসিনার অধীনে কোনো নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রাক-নির্বাচন মূল্যায়ন মিশনের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে তিনি বলেন, বিগত দুটি জাতীয় নির্বাচনে বাংলাদেশের জনগণের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছে আওয়ামী লীগ সরকার।

বিএনপি নেতা বলেন, তারা মার্কিন দলকেও বলেছেন যে গত দুই নির্বাচনে জনগণ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেনি।

খসরু বলেন, ‘পরিস্থিতি এখন বদলায়নি বরং খারাপ হয়েছে। এমনকি ভোট চুরি ও বিরোধীদের নির্যাতনের ষড়যন্ত্র আরও বেড়েছে। তারা (সরকার) ভোট চুরির পরিকল্পনাকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিয়েছে।’

তিনি বলেন, সরকার বিচার বিভাগ, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, সরকারি কর্মকর্তা, লুটপাটের সঙ্গে জড়িত ব্যবসায়ী এবং রাজনীতিবিদদের নিয়ে ভোট কারচুপির পরিকল্পনা তৈরি করেছে।‘তারা এখন বাংলাদেশের জনগণের ভোট চুরি করতে পরিকল্পনা বাস্তবায়নে একসঙ্গে কাজ করছে।’

এক প্রশ্নের জবাবে বিএনপি নেতা বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিদল নির্বাচন নিয়ে কিছু বলেননি, কারণ তারা নির্বাচনের সম্পৃক্ত সকলের মতামত ও পর্যবেক্ষণ জানতে বাংলাদেশে এসেছেন।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রাক-নির্বাচন মূল্যায়ন মিশন তাদের কাছ থেকে আগামী জাতীয় নির্বাচন সম্পর্কিত সব দিক জানতে চেয়েছেন।

খসরু বলেন, তারা মার্কিন প্রতিনিধিদলকে বলেছেন, শেখ হাসিনা সরকারকে অবশ্যই পদত্যাগ করতে হবে এবং সংসদ ভেঙে দিয়ে একটি নিরপেক্ষ সরকার গঠন করতে হবে এবং আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন একটি সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য নির্বাচন কমিশনকে পুনর্গঠন করতে হবে।

তিনি বলেন, নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন না হলে বাংলাদেশের জনগণ যে তাদের ভোট দিতে পারবে না এতে কোনো সন্দেহ নেই।

এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের ছয় সদস্যের যৌথ আইআরআই এবং এনডিআই প্রাক-নির্বাচন মূল্যায়ন মিশন সকাল ১০টা ২০ মিনিটে বিএনপি চেয়ারপার্সনের গুলশান কার্যালয়ে সাত সদস্যের বিএনপির প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠকে বসেন।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বিএনপি দলের নেতৃত্ব দেন এবং বাংলাদেশে চলতি বছরের শেষ বা আগামী বছরের জানুয়ারির শুরুতে অনুষ্ঠিতব্য পরবর্তী সাধারণ নির্বাচন সম্পর্কে দলের পর্যবেক্ষণ তুলে ধরেন।

ফখরুল ছাড়াও বৈঠকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান ও আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, দলের চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা মোহাম্মদ ইসমাইল জবিউল্লাহ, দলের সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ ও মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ উপস্থিত ছিলেন।

আন্তর্জাতিক রিপাবলিকান ইনস্টিটিউট (আইআরআই) এবং ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক ইনস্টিটিউটের (এনডিআই) প্রাক-নির্বাচন মূল্যায়ন মিশন (পিইএএম) নির্বাচনের প্রস্তুতি পর্যবেক্ষণ এবং একটি স্বাধীন ও নিরপেক্ষ মূল্যায়ন করতে শনিবার বাংলাদেশে এসেছে।

প্রতিনিধি দলটি ৮ থেকে ১২ অক্টোবর পর্যন্ত সরকারি কর্মকর্তা, রাজনৈতিক দলের নেতা, নির্বাচন কর্তৃপক্ষ, সুশীল সমাজসহ বিভিন্ন নির্বাচনী স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গে বৈঠক করবেন।

প্রতিনিধি দলের যৌথভাবে নেতৃত্ব দিচ্ছেন দক্ষিণ এশীয় বিষয়ক সাবেক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী কার্ল এফ ইন্ডারফার্থ এবং ইউএসএআইডির সাবেক ডেপুটি অ্যাডমিনিস্ট্রেটর বনি গ্লিক। এর মধ্যে মালয়েশিয়ার হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসের সাবেক সদস্য মারিয়া চিন আবদুল্লাহ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতির প্রাক্তন সহযোগী পরামর্শদাতা জামিল জাফর; এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের এনডিআই আঞ্চলিক পরিচালক মনপ্রীত সিং আনন্দ এবং এশিয়া-প্যাসিফিক বিভাগের আইআরআই সিনিয়র ডিরেক্টর জোহানা কাও।

প্রতিনিধি দলটি বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী এবং জাতিসংঘে ২০০৫ সালে সই হওয়া আন্তর্জাতিক নির্বাচন পর্যবেক্ষণের নীতিমালার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে তার মূল্যায়ন পরিচালনা করবে।

কার্যক্রম শেষে প্রতিনিধিদল তাদের মূল অনুসন্ধান, নির্বাচন-পূর্ব পরিবেশ বিশ্লেষণ এবং নির্বাচনের প্রতি নাগরিকদের আস্থা বৃদ্ধির জন্য ব্যবহারিক সুপারিশের একটি বিবৃতি প্রকাশ করবে।

—-ইউএনবি