June 15, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, October 16th, 2023, 8:35 pm

বাংলাদেশের কাছে ‘ফাইনাল অব দ্য ইয়ার’ মালদ্বীপ ম্যাচ

অনলাইন ডেস্ক :

বিশ্বকাপ বাছাইয়ের প্লে অফ পর্বের শুরুর ম্যাচে মালদ্বীপের বিপক্ষে শেষ মুহূর্তের গোলে বাংলাদেশ মূল্যবান এক পয়েন্ট ছিনিয়ে এনেছে। এবার ঘরের মাঠে মালদ্বীপকে বধের পালা। আজ মঙ্গলবার বসুন্ধরা কিংস অ্যারেনার মাঠে বিকাল পৌনে ছয়টার ম্যাচে তিন পয়েন্টের লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নামতে যাচ্ছে হাভিয়ের কাবরেরার দল। ঢাকার ম্যাচটি যে দুই দলের কাছে মহাগুরুত্বপূর্ণ। যেই দল জিতবে তারা পরবর্তী পর্বের টিকিট পাবে। আগের ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হওয়াতে এদিন যেই দল জিতবে তারাই খুশি মনে মাঠ ছাড়তে পারবে।

খেলবে ফিলিস্তিন, লেবানন ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৬টি ম্যাচ। নিজেদের মাঠ ও চিরচেনা পরিবেশে এই সুযোগটা লুফে নিতে চাইছে জামাল ভূঁইয়ারা। সোমবার (১৫ অক্টোবর) সংবাদ সম্মেলনে দলের কোচ কাবরেরা আশাবাদী কণ্ঠে বলেছেন, ‘প্রথম ম্যাচ খেলে আসার পর আমরা তিন-চার দিন অনুশীলন করেছি বাস্তবিক এবং ইতিবাচক মানসিকতা নিয়ে। সেখানে দারুণ লড়াই হয়েছিল। অনেক দিন পর মালদ্বীপে আমরা ড্র করেছি, যেটা দলকে অনেক আত্মবিশ্বাস দিয়েছে। এখন নিজেদের মাঠে, নিজেদের দর্শকের সামনে আমাদের অনেক বড় এবং সুন্দর চ্যালেঞ্জ। দল রোমাঞ্চিত, শিহরিত এবং এই চ্যালেঞ্জের জন্য প্রস্তুত।’

১২ অক্টোবরের ম্যাচে বাংলাদেশ সুযোগ পেয়ে গোল সংখ্যা বাড়াতে পারেনি। তবে দীর্ঘদিন পর ড্র করতে পেরে স্প্যানিশ কোচ খুশি, ‘মালদ্বীপেও আমরা সুযোগ তৈরি করেছি, কাজে লাগিয়েছি। তবে আমরা ওখানে ২৩ বছর পর ড্র করেছি, যেটা আমাদের জন্য ইতিবাচক দিক। সবকিছু আমাদের হাতে, আমাদের ওপর নির্ভর করছে এবং আমি মনে করি, আমরা জিততে পারি, এটা বলার জন্য আমরা যথেষ্ট সাহসী এবং আত্মবিশ্বাসী।’ কাবরেরার মতো আত্মবিশ্বাসী অধিনায়ক জামাল। সরাসরি ঘোষণা দিয়ে বলেছেন, “আজকের ম্যাচটি আমাদের জন্য হবে ‘ম্যাচ অব দ্য ইয়ার’।

গত কয়েকদিন ঢাকায় আমরা প্রস্তুতি নিয়েছি, ট্যাকটিক্যাল দিক নিয়ে কাজ করেছি। আমরা এই ম্যাচের জন্য প্রায় পুরোপুরি প্রস্তুত। এটা আমাদের জন্য বড় ম্যাচ, যেটা আমি এর আগে বলেছি, ‘ফাইনাল অব দ্য ইয়ার’। যে কোনোভবে জিততে হবে।” এই ম্যাচ জেতার জন্য বদ্ধপরিকর জামাল। নিজেদের মাঠে জয়ের সুযোগটা হাতছাড়া করতে নারাজ আর্জেন্টিনার লিগে খেলা মিডফিল্ডার, ‘মালদ্বীপ যখন হোম গ্রাউন্ডে খেলে, ওরা তখন খুবই শক্তিশালী দল। কিন্তু বাইরে খেললে… ওদের কিছু দুর্বলতা আছে। আমরা আজকের নিজেদের মাঠে খেলবো, আমাদের এই সুযোগটা নিতে হবে। আমাদের সমর্থকদের পাশে পেতে হবে।’

দলকে আরও উজ্জীবিত হয়ে খেলার কথাও বললেন জামাল, ‘আমাদের মাঠে আরও প্রাণশক্তি দেখাতে হবে। কারণ মালদ্বীপে যখন খেলেছি, তখন দেখেছি প্রাণশক্তির একটু কমতি ছিল। তাছাড়া আবহাওয়া ভিন্ন ছিল, মাঠ ভিন্ন ছিল, ওরা তো মাঠে পানি দেয় না। ওখানে আমরা একটু আপসেট ছিলাম, কিন্তু এখন সব ঠিকঠাক আছে, দলের এটাই সঠিক ‘সেট-আপ’। আজ মঙ্গলবার কোনো অজুহাত নয়, আমাদের জিততে হবে।’ নতুনদের প্রশংসা ঝড়েছে জামালের কণ্ঠে, ‘আমি মনে করি, যাদের রিপ্লেস করেছে, ওরা দারুণ খেলেছে। মিতুল (মার্মা) গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটা সেভ করেছে, শাকিল ভালো খেলেছে, টপ পারফরম্যান্স করেছে। শাকিল কিছুটা দুর্ভাগা, ও সুযোগ পেয়েছে, কিন্তু গোল পায়নি। আমার মনে হয়, আরেকটু হলেই ও গোল পেতে পারতো। সে নিজেকে জানে এবং এটাও জানে, সে আরও ভালো খেলতে পারে। আমার এবং অন্যান্যের দায়িত্ব তাকে সর্বোচ্চ সহায়তা দেওয়া।’