November 28, 2021

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, October 4th, 2021, 5:25 pm

বাংলাদেশে ছুটে এলেন শ্রীলেখা

অনলাইন ডেস্ক :

বাংলাদেশেই ছিল শ্রীলেখা মিত্রের শেকড়। দেশ ভাগের পর অগণিত বাঙালির মতো তাঁদের পরিবারও এ ভূমি থেকে চলে গিয়েছিলেন এপার বাংলায়- অর্থাৎ ভারতে। ছোট থেকেই বাবার মুখে বাংলাদেশের গল্প শুনেই বড় হয়ে উঠেছেন তিনি। সম্প্রতি বাবাকে হারিয়েছেন কলকাতার এই অভিনেত্রী। এখনো যেন বাবার চলে যাওয়াটা কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না তিনি। তাঁর ফেসবুক পেইজে চোখ বুলালেই বোঝা যাবে সে কথা। বাবার ছবি থেকে কথা, নানা স্মৃতি উঠে এসেছে সেখানে। তবে সম্প্রতি বাবার সঙ্গে কাটানো এক দারুণ সুন্দর স্মৃতি নিজের অনুরাগীদের সঙ্গে শেয়ার করেছেন শ্রীলেখা। তাঁদের একসঙ্গে বাংলাদেশ ভ্রমণের স্মৃতি। ফেসবুকে করা সেই পোস্টে শ্রীলেখা লিখেছেন, ‘মাদারীপুর ঘটমাঝি গ্রামে জমিদারবাড়ির গল্প শুনে বেড়ে ওঠা। মিত্তিরদের পূজা, মিত্তিরদের ঘাট, মিত্তিরদের বাজার, পোস্ট অফিস, শ্মশান অগণিত মানুষের মতো দেশভাগের শিকার আমরাও।’ এর পরেই ছোটপর্দার এক রিয়ালিটি শো-তে ঠিক এই কথাগুলোই একবার বলেছিলেন অভিনেত্রী। সে কথা কানে যায় বাংলাদেশের দুই স্বনামধন্য তারকা অভিনেতা আলমগীর ও গায়িকা রুনা লায়লার। দেরি না করে তাঁরা আমন্ত্রণ জানান শ্রীলেখা ও তাঁর বাবাকে। আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছিলেন শ্রীলেখা ও তাঁর বাবা। অভিনেত্রীর কথায়, ‘শিকড়ের টানে বাপ-বেটি মিলে চলে গেলাম দেশের বাড়ির খোঁজে।’ এরপর সেলেব জুটি রুনা লায়লা ও আলমগীরের বাড়িতে অভাবনীয় যতœআত্তি পেয়ে যারপরনাই মুগ্ধ হয়েছিলেন শ্রীলেখা। সেই আপ্যায়ন পাওয়ার কথা নিজেই এই ফেসবুক পোস্টে উল্লেখ করেছেন তিনি। শুধু তা-ই নয়, আলমগীরের সহায়তায় খুঁজে বের করেছিলেন ফেলে আসা ভিটামাটিও। দীর্ঘ বছরের স্বপ্ন পূরণ হয়েছিল শ্রীলেখার বাবার। এটুকুই শ্রীলেখা মিত্রের কাছে সান্ত¡না, তৃপ্তি।