January 19, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Sunday, January 9th, 2022, 8:02 pm

বার্সাকে রুখে মূল্যবান পয়েন্ট আদায় করল স্বাগতিকরা

অনলাইন ডেস্ক :

দুর্বল গ্রানাদার বিপক্ষে কষ্টে হলেও প্রথমে গোল পেল বার্সেলোনা। জয়ের সম্ভাবনাও জাগল তাতে। সব এলোমেলো হয়ে গেল গাভি বহিষ্কার হওয়ায়। নির্ধারিত সময় শেষের আগের মিনিটে তাদের স্তব্ধ করে দিয়ে মূল্যবান একটি পয়েন্ট আদায় করে নিল স্বাগতিকরা। গ্রানাদার মাঠে শনিবার রাতে লা লিগার ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হয়েছে। লুক ডি ইয়ংয়ের গোলে বার্সেলোনা এগিয়ে যাওয়ার পর সমতা টানেন আন্তোনিও পুয়ের্তাস। লিগে এই নিয়ে সবশেষ পাঁচ রাউন্ডে তিনটিতে ড্র করল বার্সেলোনা, অন্য দুটিতে জিতেছে তারা। গত সেপ্টেম্বরে আসরে প্রথম দেখায় বার্সেলোনাকে তাদেরই মাঠে ১-১ গোলে রুখে দিয়েছিল গ্রানাদা। ওই ম্যাচে শুরুতেই পিছিয়ে পড়ার পর শেষের গোলে কোনোমতে হার এড়িয়েছিল স্বাগতিকরা। এবার হলো উল্টো। ম্যাচের শুরুটা দারুণ হতে পারত বার্সেলোনার। সপ্তম মিনিটে বাঁ থেকে গাভির দারুণ ক্রসে ডি-বক্সে সঙ্গে লেগে থাকা ডিফেন্ডারকে ফাঁকি দিয়ে হেডে বল জালে পাঠান লুক ডি ইয়ং। তবে ক্রস নেওয়ার আগে গাভি কিঞ্চিৎ ব্যবধানে অফসাইডে থাকায় ভিএআরে মেলেনি গোল। ২৬তম মিনিটে এগিয়ে যেতে পারত গ্রানাদা। তবে দারউইন মাচিসের নিচু শট ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক মার্ক-আন্ড্রে টের স্টেগেন। বিরতির আগে দুবার আক্রমণ শানালেও কোনোবারই প্রতিপক্ষ শিবিরে ভীতি ছড়াতে পারেনি বার্সেলোনা। ম্যাচের শুরুতে জাল ছুঁয়েও ডি ইয়ংয়ের গোল না পাওয়ার হতাশা দূর হয় ৫৭তম মিনিটে। এবার ডান দিক থেকে দানি আলভেসের ডি-বক্সে বাড়ানো দারুণ ক্রসে হেডেই দলকে এগিয়ে নেন ডাচ ফরোয়ার্ড। মূলত ডিফেন্ডার হলেও আক্রমণ তৈরিতে বেশ পটু আলভেস, বার্সেলোনায় প্রথম মেয়াদের আট বছরে যার উদাহরণ আছে অসংখ্য। দ্বিতীয় মেয়াদে দ্বিতীয় ম্যাচেই এই অ্যাসিস্টে আবারও নিজের সামর্থ্য দেখালেন ব্রাজিলিয়ান রাইট-ব্যাক। বার্সেলোনার গোলের পর ম্যাচের গতি আরও কমে যায়। ঢিমেতালে চলা ম্যাচের ৭৫তম মিনিটে ভালো একটি আক্রমণ করে গ্রানাদা, যদিও তাতে উল্লেখযোগ্য কিছু করতে পারেনি তারা। এর চার মিনিট পরই আলেক্স কোলাদোকে ফাউল করে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখেন কোভিড থেকে সেরে উঠে এই ম্যাচ দিয়েই ফেরা গাভি। ১০ জনের দলে নেমে আসায় আবারও পয়েন্ট হারানোর শঙ্কা জাগে বার্সেলোনার। চাপও বাড়ায় গ্রানাদা; দুই মিনিট পরই দলটির মিডফিল্ডার লুইস মিয়ার শট ঝাঁপিয়ে ঠেকান টের স্টেগেন। চাপ ধরে রেখেই ৮৯তম মিনিটে সমতায় ফেরে গ্রানাদা। কর্নার থেকে উড়ে আসা বল ডিফেন্ডাররা ক্লিয়ার করতে ব্যর্থ হলে সের্হিও বুসকেতসের পায়ে লেগে চলে যায় ফাঁকায় পুয়ের্তাসের পায়ে। জোরালো উঁচু শটে দূরের পোস্ট দিয়ে গোলটি করেন স্প্যানিশ এই মিডফিল্ডার। ২০ ম্যাচে আটটি করে জয় ও ড্রয়ে ৩২ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে আছে বার্সেলোনা। ২৪ পয়েন্ট নিয়ে ১২ নম্বরে আছে গ্রানাদা।