November 30, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, November 16th, 2022, 3:35 pm

বাল্যবিয়ের ঝুঁকি কমাতে কিশোরীদের মাঝে তথ্য কার্ড বিতরণ

জেলা প্রতিনিধি, শেরপুর (ঝিনাইগাতী) :

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে বাল্য বিয়ে ঝুঁকি রোধে কিশোরীদের অর্থ কার্ড বিতরন করা হয়েছে। ”মেয়ে আমার অংহকার, ১৮’র আগে বিয়ে নয়, এই আমার অঙ্গিকার” এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ব্র্যাক সামাজিক ক্ষমতায়ন ও আইনি সুরক্ষা কর্মসূচি উদ্দেগ্যে ওই আয়োজনে করা হয়। বুধবার (১৬ নভেম্বর) উপজেলার নলকুড়া ইউনিয়নের রাংটিয়া গ্রামের আলমগীর হোসেনের বাড়ীতে বাল্যবিয়ের ঝুঁকিতে থাকা কিশোরীদের মাঝে তথ্য কার্ড বিতরণ করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ফারুক আল মাসুদ। রাংটিয়া পল্লী সমাজের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেনের সভাপতিত্বে ও শেরপুর জেলা সামাজিক ক্ষমতায়ন ও আইনি সুরক্ষা কর্মসূচি ব্যবস্থাপক মোঃ আজাদ রহমানের উপস্থাপনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, নলকুড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ রোকুনুজ্জামান, ব্র্যাক জেলা সমন্বয়কারী ফারহানা মিল্কী, মাইক্রোফাইন্যন্সের এরিয়া ম্যানেজার মোঃ রফিকুল ইসলাম, সামাজিক ক্ষমতায়ন ও আইনি সুরক্ষা কর্মসূচির উপজেলা কর্মকর্তা হোসনে আরা পারভীনসহ অন্যান্যরা। উক্ত অনুষ্ঠানে শিক্ষক, ইউপি সদস্যসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। রাংটিয়া গ্রামের ৩০জন কিশোরী যাদের বয়স ১২ হতে ১৭ এর মধ্যে এবং বাল্য বিয়ের ঝুঁকিতে রয়েছে এমন কিশোরীদের তালিকা করে নাম, পিতা-মাতার নামসহ জন্মতারিখ এবং ১৮ বছর উত্তীর্ণ হওয়ার তারিখ উল্লেখ্য করে একটি করে তথ্য কার্ড প্রদান করা হয়। এছাড়াও কার্ডে সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসার, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, ব্র্যাক অফিসের নম্বরসহ সরকারী হটলাইন ১০৯ উল্লেখ রয়েছে। যা কিশোরীদের বাড়ীতে দৃশ্যমান জায়গায় ঝুলিয়ে রাখা হবে। পল্লী সমাজের সদস্য এবং ব্র্যাক সামাজিক ক্ষমতায়ন ও আইনি সুরক্ষা কর্মসূচির পক্ষ থেকে প্রতিনিয়ত যোগাযোগ করা হবে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ৩০জন কিশোরীর মাঝে অতিথিরা তথ্যকার্ড বিতরণ করেন। এ সময় সংশ্লিষ্ট কিশোরীদের অভিভাবক, এলাকার বিভিন্ন বয়সের শ্রেণী পেশার প্রায় দুই শতাধিক লোক উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলকে প্রধান অতিথি বাল্য বিবাহকে “না বলি” বিষয়ে শপথ বাক্য পাঠ করান।