August 18, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Sunday, July 31st, 2022, 7:49 pm

বায়ার্নের হ্যাটট্রিক শিরোপা জয়

অনলাইন ডেস্ক :

আক্রমণে আধিপত্য করে প্রথমার্ধে তিন গোলে এগিয়ে যাওয়া বায়ার্ন মিউনিখ বিরতির পর কিছুটা খেই হারাল। দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে ম্যাচ জমিয়ে তুলল লাইপজিগ। কিন্তু শেষ রক্ষা হলো না তাদের। আট গোলের রোমাঞ্চ ছড়ানো ম্যাচ জিতে জার্মান সুপার কাপ ঘরে তুলল ইউলিয়ান নাগেলসমানের দল। বায়ার্নের জার্সিতে প্রতিযোগিতামূলক ফুটবলে অভিষেকটা গোল করে রাঙিয়ে রাখলেন সাদিও মানে। লাইপজিগের রেড বুল অ্যারেনায় শনিবার রাতে জার্মান চ্যাম্পিয়নরা জিতল ৫-৩ গোলে। বায়ার্নের হয়ে একটি করে গোল করেন মানে, জামাল মুসিয়ালা, বাঁজামাঁ পাভার্দ, সের্গে জিনাব্রি ও লেরয় সানে। আরও দুবার জালে বল পাঠিয়েছিলেন মানে। তবে দুবারই অফসাইডের কারণে গোল মেলেনি। জার্মান সুপার কাপে বায়ার্নের এটি টানা তৃতীয় ও রেকর্ড দশম শিরোপা। এর ছয়টিই তারা জিতল সাত মৌসুমের মধ্যে। প্রতি মৌসুমের শুরুতে আগেরবারের বুন্ডেসলিগা ও জার্মান কাপ জয়ীর মধ্যে হয়ে থাকে এক ম্যাচের এই শিরোপা লড়াই। গত মৌসুমে জার্মান কাপ দিয়ে প্রথম মেজর শিরোপা জিতে প্রথমবারের মতো সুপার কাপে খেলার সুযোগ পায় লাইপজিগ। বায়ার্নকে চতুর্দশ মিনিটে এগিয়ে নেন মুসিয়ালা। কর্নার ঠিকমতো ক্লিয়ার করতে পারেনি লাইপজিগ। নিচু শটে গোলটি করেন জার্মান অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার। ৩১তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মানে। বাঁ দিক থেকে জিনাব্রির পাসে ছয় গজ বক্সের মুখে বাঁ পায়ের শটে বল জালে পাঠান গ্রীষ্মের দলবদলে লিভারপুল থেকে বায়ার্নে নাম লেখানো সেনেগালের ফরোয়ার্ড। বিরতির আগে মুসিয়ালার পাস থেকে প্রথম স্পর্শে শটে স্কোরলাইন ৩-০ করেন পাভার্দ। ৫৯তম মিনিটে ব্যবধান কমান মার্সেল হালস্টেনবার্গ। অবশ্য পাঁচ মিনিট পর আবার তিন গোলের লিড পুনরুদ্ধার করেন জিনাব্রি। ৭৭তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে আবার ব্যবধান কমান ক্রিস্তোফা এনকুনকু। নির্ধারিত সময়ের এক মিনিট বাকি থাকতে জালের দেখা পান লাইপজিগের স্প্যানিশ মিডফিল্ডার দানি ওলমো; স্কোরলাইন হয়ে যায় ৪-৩, জমে ওঠে লড়াই। এরপর যদিও নাটকীয় কিছু করে দেখাতে পারেনি লাইপজিগ। যোগ করা সময়ের অষ্টম মিনিটে জয় নিশ্চিত করে ফেলেন সানে। ‘গোলমেশিন’ রবের্ত লেভানদোভস্কি ক্লাব ছেড়ে বার্সেলোনায় পাড়ি দেওয়ার পর প্রতিযোগিতামূলক ফুটবলে এটিই বায়ার্নের প্রথম ম্যাচ। পোলিশ তারকাকে ছাড়া শুরুটা শিরোপার হাসিতেই করল তারা।