August 12, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Thursday, June 30th, 2022, 9:02 pm

বিজয়নগরে ৩য় শ্রেণীর প্রতিবন্ধী ছাত্রী ধর্ষণকারী গ্রেফতার

জেলা প্রতিনিধি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া :

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রতিবন্ধী ৩য় শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণকারীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে ইসলামপুর ফাঁড়ির পুলিশ।
গ্রেফতারকৃত আসামি ধর্ষক, উপজেলার বুধন্তী ইউপির বুধন্তী গ্রামের(পূর্বপাড়া) মৃত মারুফ মিয়া ছেলে মহবত আলী (৫০)।
বৃহস্পতিবার (২৯ জুন) রাত প্রায় ১০ টায় পুলিশ সুপার আনিছুর রহমানের দিক নির্দেশনায় থানা অফিসার ইনচার্জ মির্জা মো: হাছানের তত্বাবধানে ইসলামপুর ফাঁড়ির ইনচার্জ রঞ্জন কুমার ঘেষের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্স সহ বিশেষ প্রযুক্তি ব্যাবহার করে হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলার শাহজাহানপুর ইউপির রতনপুর গ্রামের এক কুঁড়েঘর থেকে তাকে গ্রেফতার করে নিয়ে আসে।
উল্লেখ্য রবিবার ২৬ জুন দুপুর বেলায় ৩য় শ্রেণীর ভিক্টিম ছাত্রী টিফিনের জন্য বিদ্যালয় হইতে বাড়িতে আসার পথে অনুমান ১.২০ মিনিটে উপজেলার বুধন্তী ইউপির কেনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যলয়ে অদুরে মৃত রবু মিয়ার বসত ঘর সংলগ্ন দুই ঘরের মধ্যদিয়ে চলাচলের অতিসরু রাস্তায় ভিকটিমকে একা পেয়ে জোরপূর্বক পড়নের পায়জামা খুলে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় ভিক্টিমের বাবা বাদী হয়ে উক্ত ধর্ষককে আসামি করে মঙ্গলবার ২৮ জুন ৫.৩০ মিনিটে সুষ্ট বিচারের দাবিতে থানায় মামলা নং ৪৭, ধারা নারীও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ সংশোধনী ২০০৩ এর ৯(৪)(ঘ) ধারায় থানায় এজাহার দায়ের করেন।
প্রতিবেদকে হাতে আসা এ ঘটনার গোপনে ধারণকৃত ৪২ সেকেন্ডের ভিডিও ক্লিপে দেখাযায়, স্কুলের অদুরে মৃত রবু মিয়ার বসত ঘর সংলগ্ন দুই ঘরের মধ্যদিয়ে চলাচলের অতি সরু রাস্তা যেখানে ২ জন লোক অতি কষ্টে অতিক্রম করতে হয় এমন নির্জন জায়গায় স্কুল ড্রেস পরিহিত প্রতিবন্ধী শিশুকে জোর পূর্বক এ অনৈতিক কাজ কতে দেখা যায়, এমতাবস্তায় শিশুটি পাশবিক নির্যাতনের সময় ধস্তাধস্তি করতে থাকে, সহিতে না পেরে এক পর্যায়ে চিৎকার চেঁচামেচি করলে ধর্ষক অস্বস্তিতে তাকে ছেড়ে দেয়।
প্রতিবেদকে হাতে আসা ২য় ভিডিও ক্লিপ ১ মিনিট ৫ সেকেন্ডের দেখাযায়, একই জায়গায় উক্ত ধর্ষক আরেকটি মেয়ের বুকে হাত দিতে দেখা যায়।
ধর্ষককে ২৪ ঘন্টার ভেতরে গ্রেফতার করতে পারায় এলাকায় স্বস্থির নিঃস্বাস ফেলেছে এবং পুলিশ প্রশাসনকে সকল স্থরের জনগণ ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।
বিজয়নগর উপজেলা অফিসার ইনচার্জ মির্জা মোহাম্মদ হাছান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সে নারীও শিশু নির্যাতন দমন আইন মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত আসামি, তাকে আদালতের প্রেরণ প্রক্রিয়াধীন।