November 30, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, November 23rd, 2022, 8:01 pm

বিশ্বকাপে মনোযোগী হতে চায় পর্তুগাল

অনলাইন ডেস্ক :

সুপারস্টার ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডোকে ঘিড়ে পর্তুগালের মাঠ ও মাঠের বাইরের আলোচনা কখনই শেষ হয়নি। কাতার বিশ্বকাপের আগেও তার ব্যতিক্রম ছিলনা। দলের অন্যতম কান্ডারি এই খেলোয়াড়কে বাদ দিয়ে জাতীয় দল যে গত প্রায় দুই দশক কিছুই চিন্তা করতে পারেনি। আজ বৃহস্পতিবার দোহার স্টেডিয়াম ৯৭৪’এ ঘানার বিপক্ষে বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু করার আগে ঘুড়ে ফিরে সেই রোনাল্ডোই পর্তুগাল শিবিরে আলোচনায় কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসছেন। গ্রুপ-এইচ’এ ফার্নান্দো সান্তোসেরপর্তুগালকে পরবর্তী দুই ম্যাচে উরুগুয়ে ও দক্ষিণ কোরিয়ার মুখোমুখি হতে হবে। একইসাথে রাউন্ডে যেতে হলে তাদের আফ্রিকান প্রতিপক্ষের কঠিন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করেই নিজেদের পথ সুগম করতে হবে। পর্তুগালকে ঘিড়ে মাঠ ও মাঠের বাইরে সাম্প্রতিক সময়ে যত হেডলাইন হয়েছে তার সবটাই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সুপারস্টার রোনাল্ডোকে নিয়ে। বিশ^কাপের ঠিক আগে সাক্ষাতকার দিতে গিয়ে ক্লাব সম্পর্কে বোমা ফাটিয়ে আলোচনায় এসেছে রোনাল্ডো। যে কারণে বিশ^কাপে মাঠে নামার আগেই ইউনাইটেডের সাথে সম্পর্ক শেষের বিষয়টি ইতোমধ্যেই নিশ্চিত হয়ে গেছে। যদিও বিশ^কাপকে সামনে রেখে সপ্তাহের শুরুতে এক সংবাদ সম্মেলনে রোনাল্ডো শুধুমাত্র ফুটবলের উপর মনোযোগী হতে সবাইকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর বিজয়ী বেশ কয়েকটি বিশ^কাপে ব্যর্থতার পর শেষ পর্যন্ত পর্তুগালকে নিজের শেষ বিশ^কাপে শিরোপা উপহার দিতে মুখিয়ে আছেন। আইকনিক ফুটবল জাঁতি হিসেবে পরিচিত হলেও পর্তুগাল শুধুমাত্র ১৯৬৬ ও ২০০৬ সালে দুইবার বিশ^কাপের সেমিফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জণ করেছিল। গত পাঁচ আসরের মধ্যে চারটিতেই শেষ ১৬’র পর আর যেতে পারেনি। চার বছর আগে এবারের গ্রুপের আরেক দল উরুগুয়েল কাছে হেরে শেষ ১৬ থেকে বিদায় নিয়েছিল পর্তুগীজরা। বিশ^কাপের চূড়ান্ত পর্বে নিজেদের শেষ ১১টি ম্যাচের মাত্র তিনটিতে জয়ী হয়েছে। যদিও গত বৃহস্পতিবার শেষ প্রস্ততি ম্যাচে নাইজেরিয়াকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে কাতারের প্রস্তুতিটা ভালই সেড়ে নিয়েছে রোনাল্ডো বাহিনী। আন্তর্জাতিক বড় টুর্নামেন্টে শেষ তিনটি আসরের প্রথম ম্যাচে জয়ী জতে ব্যর্থ হয়েছে সান্তোদের দল। বিশ^কাপে যদিও পর্তুগাল কখনই পরিসংখ্যানের হিসেব মিলিয়ে খেলতে আসেনি। ম্যাচ-বাই-ম্যাচ এগিয়ে যাবার লক্ষ্যে এবারও তারা অবিচল রয়েছে। কিন্তু ঘানার অন্তত একটি বিষয় নিশ্চিত করতে হবে, প্রথম ম্যাচে ভাল কিছু করতে হলে গত সাত ম্যাচে মাত্র দুই গোল হজম করা পর্তুগালের অপ্রতিরোধ্য রক্ষনভাগকে ফাঁকি দেবার কৌশল বের করা। ২০১৮ বিশ^কাপে অনুপস্থিত আফ্রিকান দেশটি আট বছর পর আবারো বিশ^কাপে ফিরে এসেছে। ১২ বছর আগে গ্রুপের আরেক প্রতিদ্বন্দ্বী উরুগুয়ের কাছে কোয়ার্টার ফাইনালে পেনাল্টিতে হেরে সেমিফাইনালে যাওয়া হয়নি ঘানার। এবার সেই উরুগুয়েকে প্রতিপক্ষ হিসেবে পেয়ে পুরনো হিসেব নিয়ে লড়াই করার একটি সুযোগ এসেছে ঘানার সামনে। ২০১৪ বিশ^কাপ আসর ছিল ঘানার সবচেয়ে খারাপ। গ্রুপ পর্বের একটি ম্যাচও জিততে পারেনি। বছরের শুরুতে ওটো আদ্দো কোচ হিসেবে নিয়োগের পর আফ্রিকান নেশন্স কাপের তিনটি ম্যাচেই পরাজিত হয়েছে ব্ল্যাক স্টার্সরা। গ্রীষ্মের পর থেকে ঘানা নিজেদের প্রমানে যেন ব্যস্ত হয়ে উঠে। সব ধরনের প্রতিযোগিতায় শেষ আটটি ম্যাচের সাতটিতেই জয়ী হয়েছে ঘানা। এই জয়গুলোর কোনটিতেই কোন গোল হজম করেনি। একটিমাত্র পরাজয় এসেছিল ব্রাজিলের বিপক্ষে। গত সপ্তাহে শেষ প্রস্তুতি ম্যাচে সুইজারল্যান্ডকে ২-০ গোলে পরাজিত করেছে। ফুটবলের এই পর্যায়ে পর্তুগাল ও ঘানা কেউই কারো কাছে একেবারে অপরিচিত নয়। ২০১৪ বিশ^কাপে পর্তুগালের ২-১ গোলের জয়ের ম্যাচটিতে জয়সূচক গোলটি করেছিলেন রোনাল্ডো। ইউনাইটেডের স্ট্রাইকারের একই ধরনের অবদান এবারও পর্তুগালকে যে শুরু থেকেই এগিয়ে রাখবে তাতে কোন সন্দেহ নেই। মাঠের বাইরের নাটক ছাড়াও রোনাল্ডো শারিরীক ভাবেও কিছুটা অসুস্থ। তা ছাড়া গত মঙ্গলবারই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সঙ্গে সম্পর্ক চুটে গেছে রোনাল্ডোর। নাইজেরিয়ার বিপক্ষে সর্বশেষ প্রীতি ম্যাচে তিনি দলে ছিলেন না। কিন্তু ৩৭ বছর বয়সী এই সুপারস্টার কাতারের মাঠে নামার আগে নিজেকে ফিট ঘোষনা করেছেন। একইসাথে জানিয়েছে প্রথম ম্যাচের জন্য তিনি পুরোপুরি প্রস্তুত। এর ফলে সান্তোস এ সপ্তাহে পুরোপুরি ফিট একটি দলকে নিয়ে পূর্ণাঙ্গ অনুশীলন করেছেন। দল নির্বাচনে সান্তোসকে কয়েকটি পজিশনে সেরা খেলোয়াড়কে বেছে নিতে বেশ সুক্ষ পরীক্ষা নিরিক্ষা চালাতে হবে। গোলরক্ষক হিসেবে হয়তোবা রুই প্যাট্রিসিওকে অল্পের জন্য পিছনে ফেলে এগিয়ে যেতে পারেন দিয়োগো কস্তা। প্রথম একাদশে বার্নান্ডো সিলভা ও রোনাল্ডোর খেলা প্রায় নিশ্চিত। এজন্য আক্রনমভাগের শেষ পজিশনের জন্য হুয়াও ফেলিক্স, রাফায়েল লিয়াও, ওটাভিও ও আন্দ্রে সিলভার মধ্যে লড়াই হবে। একই পরিস্থিতির মধ্যে পড়তে হতে পারে ঘানা বস আদ্দোকেও। প্রথম ম্যাচের জন্য দলের সবাই সুস্থ আছেন। যে কারণে গত সপ্তাহে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে মূল একাদশে অনেককেই তিনি বিশ্রামে রেখেছিলেন। ঐ ম্যাচে বদলী বেঞ্চে থাকা থমাস পার্টে, কামালদিন সুলেমানা ও আলেক্সান্দার ডিকুর পুনরায় দলে ফেরার ইঙ্গিত পাওয়া গেছে। একইভাবে শুরু থেকেই দলে থাকবেন আন্দ্রে আইয়ু ও জর্ডান আইয়ু।