February 3, 2023

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, December 19th, 2022, 8:27 pm

বিশ্বকাপে যত রেকর্ড গড়লেন মেসি

অনলাইন ডেস্ক :

চারবার সোনালি ট্রফি জয়ের স্বপ্ন নিয়ে গেলেও তা পূরণ হয়নি লিওনেল মেসির। ২০১৪ সালে ব্রাজিল বিশ্বকাপে তো কাছে গিয়েও জিততে পারেননি। সব মিলিয়ে গত ৪ আসরে শূন্য হাতে ফিরলেও এবার ঠিকই আদায় করে নিয়েছেন শিরোপা। ঘুচিয়েছেন ৩৬ বছরের অপেক্ষা। শিরোপা ছোঁয়ার মিশনে নেমে হয়ে গেছেন রেকর্ডের বরপুত্র। ২০২২ সালে কাতার বিশ্বকাপকে লিওনেল মেসির বিশ্বকাপ বললে কী খুব বড় ভুল হবে? ভিন্নগ্রহের এই ফুটবলার তো সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে আর্জেন্টিনাকে চ্যাম্পিয়ন করিয়েছেন। তবে মেসির সৈনিক হিসেবে বুক চিতিয়ে লড়াই করেছেন এমিলিয়ানো মার্তিনেস, হুলিয়ান আলভারেজ, এনসো ফার্নান্দেজ আর দি মারিয়ারা।
বিশ্বকাপে মেসির যত রেকর্ড
৫ বিশ্বকাপ
কাতার বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার স্কোয়াড ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গেই পাঁচটি বিশ্বকাপ খেলার কীর্তি গড়ে ফেলেন লিওনেল মেসি। জার্মানির লোথার ম্যাথিউজ, ইতালির জিয়ানলুইজি বুফন, মেক্সিকোর আন্তনিও কারবাহাল, পর্তুগালের ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো, মেক্সিকোর আন্দ্রেয়াস গার্দাদো, গিলার্মো ওচোয়া ও রাফায়েল মার্কেজের সঙ্গে সমান পাঁচটি করে বিশ্বকাপে খেলার রেকর্ডে ভাগ বসান মেসি।
সবচেয়ে কম বয়সে কীর্তি
কাতারে সর্বকনিষ্ঠ হিসেবে ৫ বিশ্বকাপ খেলার কীর্তি গড়েছেন লিওনেল মেসি। ৩৫ বছর বয়সেই এই রেকর্ডটি গড়েছেন তিনি। এতদিন পাঁচটি বিশ্বকাপ খেলা সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় ছিলেন বুফন (৩৬ বছর)। কাতার বিশ্বকাপ যদি নির্ধারিত সময়ে (জুন-জুলাই) হতো তাহলে অন্তত আরও ছয় মাস কম নিয়ে এই রেকর্ডের ভাগিদার হতে পারতেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক।
বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ
মেসির নামের পাশে বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ডও। লুসাইলে ফাইনাল মিলিয়ে বিশ্বকাপের পাঁচ আসরে সব মিলিয়ে মেসি ২৬টি ম্যাচ খেলেছেন। আর জার্মানির লোথার ম্যাথিউজ খেলেছেন ২৫টি ম্যাচ।
মাঠে সবচেয়ে বেশিক্ষণ থেকেছেন মেসি
বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি ২ হাজার ৩১৪ মিনিট মাঠে থেকেছেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। এর আগে ইটালিয়ান কিংবদন্তি পাওলো মালদিনি চারটি বিশ্বকাপে অংশ নিয়ে খেলেছিলেন ২ হাজার ২১৭ মিনিট।
অধিনায়ক হিসেবে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ
ফাইনালে মাঠে নেমেই অধিনায়ক হিসেবে বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার ইতিহাস গড়েন তিনি। ১৯টি ম্যাচে আর্জেন্টিনাকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। এর আগে রাফা মার্কেজ সর্বোচ্চ ১৭টি ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন মেক্সিকোকে।
বিশ্বকাপে দেশের হয়ে গোল করে রেকর্ড
বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে গোল করে গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতাকে পেছনে ফেলে আর্জেন্টিনার হয়ে সবচেয়ে বেশি গোল করার রেকর্ড গড়েছিলেন লিওনেল মেসি। বাতিস্তুতার গোল ছিল দশটি। মেসির গোল ১৩টি। যার মধ্যে কাতার বিশ্বকাপেই করেছেন সাত গোল।
বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি জয়
ফ্রান্সের বিপক্ষে টাইব্রেকারে জিতে প্রথমবারের মতো শিরোপা জিতেন লিওনেল মেসি। এই জয়ের মধ্য দিয়ে বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ জয়ের রেকর্ড স্পর্শ করেছেন তিনি। ১৭টি জয় নিয়ে এতদিন শীর্ষে ছিলেন জার্মানির মিরোস্লাভ ক্লোসা।
অ্যাসিস্ট গোলেও শীর্ষে মেসি
একমাত্র খেলোয়াড় হিসেবে বিশ্বকাপের পাঁচটি ভিন্ন আসরে অ্যাসিস্ট করেছেন মেসি। আরেক আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি দিয়াগো ম্যারাডোনা, ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি পেলে, পোল্যান্ডের জেগোস লাতো ও ইংল্যান্ডের ডেভিড বেকহ্যাম তিন আসরে অ্যাসিস্ট করেছেন।
বিশ্বকাপে গোলে সরাসরি অবদান
বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি গোলে সরাসরি অবদান রেখেছেন মেসি। মোট ২১টি গোলে (১৩ গোল, ৮ অ্যাসিস্ট) অবদান তার। এতদিন মোট ১৯ গোলে অবদান রেখে শীর্ষে ছিলেন জার্মানির মিরাস্লাভ ক্লোসা, জার্ড ম্যুলার ও ব্রাজিলের রোনালদো।
পেলের পাশে মেসি
নকআউট পর্বে সবচেয়ে বেশি অ্যাসিস্টের রেকর্ডে পেলেকে ছুঁয়েছেন মেসি। দুজনেরই নকআউট পর্বে ৬টি করে অ্যাসিস্ট আছে।
ম্যারাডোনার পাশে মেসি
বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি অ্যাসিস্ট করার রেকর্ড ছিল কিংবদন্তি দিয়াগো ম্যারাডোনার। কাতার বিশ্বকাপে তার সঙ্গে এই রেকর্ড ভাগাভাগি করে নিয়েছেন। দুজনেরই অ্যাসিস্ট সংখ্যা ৮টি।
প্রথম এবং শেষ গোলে দীর্ঘ ব্যবধান
২০০৬ সালের ১৬ জুন সার্বিয়ার বিপক্ষে বিশ্বকাপে প্রথম গোল করেছিলেন লিওনেল মেসি। পাক্কা ১৬ বছর ১৮৪ দিন আগে বিশ্বকাপে নিজের প্রথম গোল করেছিলেন তিনি। রোববার ফ্রান্সের বিপক্ষে ফাইনালেও করেন দুটি গোল। সময়ের হিসেবে যা বিশ্বকাপের দীর্ঘতম। মেসির পরেই আছেন পর্তুগিজ তারকা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। তার বিশ্বকাপে প্রথম ও শেষ গোলের মাঝে ব্যবধান ১৬ বছর ১৬০ দিন।
বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি ম্যাচসেরা
বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি ১১টি ম্যাচে সেরার পুরস্কার উঠেছে মেসির হাতে। কাতারেই এবার পাঁচবার ম্যাচসেরার পুরস্কার জিতেছেন, যা এক আসরে রেকর্ডও বটে। ৭ ম্যাচে সেরা হয়ে দুইয়ে আছেন পর্তুগিজ তারকা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো।
বিশ্বকাপের অনন্য কীর্তি
প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে বিশ্বকাপের এক আসরে গ্রুপ পর্ব, শেষ ষোলো, কোয়ার্টার ফাইনাল, সেমিফাইনাল ও ফাইনালে গোল দেওয়ার কীর্তি গড়েছেন মেসি।
গোল ও অ্যাসিস্টে ডাবল রেকর্ড
প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে বিশ্বকাপের এক আসরে তিনটি ম্যাচে গোল ও অ্যাসিস্ট ডাবল মেসির। প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে চার ম্যাচে গোল ও অ্যাসিস্টের অনন্য অর্জনও তার।
দুটি গোল্ডেন বল
বিশ্বকাপের ইতিহাসে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে দুটি গোল্ডেন বল জয়ের রেকর্ড গড়ছেন লিওনেল মেসি। ১৯৮২ সাল থেকে টুর্নামেন্ট সেরার পুরস্কার গোল্ডেন বল চালু করা হয়। এরপর কেউই দুবার গোল্ডেন বল জেতেননি। ২০১৪ সালে দেশকে বিশ্বকাপ জিতাতে না পারলেও প্রতিযোগিতার সেরা ফুটবলার নির্বাচিত হয়েছিলেন মেসি। এবার বিশ্বকাপ ট্রফির সঙ্গে গোল্ডেন বলও পেলেন ফুটবল জাদুকর।