December 1, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Sunday, November 13th, 2022, 8:12 pm

বিশ্বকাপ নিয়ে আলবার সতর্কবাণী

অনলাইন ডেস্ক :

কোনো প্রতিপক্ষকে হালকাভাবে নিচ্ছেন না জর্দি আলবা। স্পেনের এই ডিফেন্ডারের দৃষ্টিতে বিশ্বকাপের প্রতিটি ম্যাচই কঠিন। জানালেন, সব বাধা পেরুতে তারা মাঠে নামবেন আক্রমণাত্মক মানসিকতা নিয়ে। আগামী (২০ নভেম্বর) শুরু হতে যাওয়া কাতার বিশ্বকাপে ‘ই’ গ্রুপে স্পেনের সঙ্গী জার্মানি, কোস্টা রিকা ও জাপান। ২৩ নভেম্বর কোস্টা রিকার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ২০১০ সালের পর দ্বিতীয় শিরোপা জয়ের মিশনে নামবে স্পেন। নামের বিচারে গ্রুপ পর্বে সবচেয়ে কঠিন প্রতিপক্ষ চারবারের চ্যাম্পিয়ন জার্মানি। তবে গত দুই বিশ্বকাপে স্পেনের সাত ম্যাচের সবগুলোতে পুরোটা সময় খেলা আলবা হালকা করে দেখছেন না কোস্টা রিকা ও জাপানকেও। “জার্মানিকে সবসময় সর্বোচ্চ শ্রদ্ধা করতে হবে। যে অবস্থায় যখনই তারা প্রতিপক্ষ, লড়াকু মানসিকতার কারণে তারা সবসময় সেরা দলগুলোর একটি। তাদের দলে অবশ্যই অনেক অদলবদল হয়েছে, কিন্তু দলটি সবসময় মানসম্পন্ন খেলোয়াড়ে ঠাসা।” “আট বছর আগে কোস্টা রিকা দেখিয়েছিল, তাদেরকে হালকাভাবে নেওয়ার সুযোগ নেই। যদিও ব্রাজিল বিশ্বকাপের পর অনেক কিছু বদলেছে, কিন্তু তাদের দলে কিছু খেলোয়াড় আছে, যারা সর্বোচ্চ পর্যায়ে খেলার অর্থ বোঝে এবং এ ধরনের প্রতিযোগিতায় প্রতিপক্ষের জীবন কঠিন করে তুলতে জানে।” “জাপান দলেও ভালো খেলোয়াড় আছে। প্রিমিয়ার লিগ, লা লিগার মতো প্রতিযোগিতায় খেলা ফুটবলার আছে। কৌশলগতভাবে তারা প্রতিভাবান দল এবং তাদের বিপক্ষে ভুল করা যাবে না।” বিশ্বকাপে পথচলায় কোনো ম্যাচ সহজ নয় বলে মনে করেন স্পেনের হয়ে ৮৬ ম্যাচ খেলা এই লেফট-ব্যাক। “গ্রুপ পর্ব থেকে ফাইনাল পর্যন্ত বিশ্বকাপে প্রতিপক্ষ যেই হোক না কেন, কঠিন প্রতিপক্ষ এবং এবারও তার ব্যতীক্রম হবে না। ফুটবল খেলার অনন্য কৌশল নিয়ে সেখানে দলগুলো যাবে এবং আমরা নিশ্চিত, গ্রুপ পর্বে ভালো করতে তারা সামর্থ্যরে সর্বোচ্চটুকু দিবে। সব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলোর একটি হচ্ছে, খেলা যখন বিশ্বকাপে, তখন প্রতিপক্ষকে নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করতে হয়।” বরাবরের মতো স্পেন এবারের বিশ্বকাপে পাসিং ফুটবল, আক্রমণাত্মক ছকে থাকবে বলেও জানালেন আলবা। “প্রতিপক্ষ যেই হোক না কেন, আমরা সবসময় একইভাবে খেলি। সেটা ইউরো হোক, নেশন্স লিগ বা বিশ্বকাপ হোক, আমাদের দলটা সবসময় আক্রমণাত্মক খেলতে এবং যতটা সম্ভব মাঠে জমাট থাকতে পছন্দ করে।”