May 21, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, April 4th, 2022, 7:59 pm

বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে প্রতিশোধ নিতে চায় পাকিস্তান

অনলাইন ডেস্ক :

গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হয়েছিলো পাকিস্তানের। সেই দুঃস্মৃতি এখনও পাকিস্তানের মনে দাগ কেটে আছে। ঐ ম্যাচের পর আজ মঙ্গলবার প্রথম মোকাবেলায় বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে হারের প্রতিশোধ নিতে চায় পাকিস্তান। পক্ষান্তরে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার লক্ষ্য জয় দিয়ে ২৪ বছর পর পাকিস্তান সফর শেষ করা। আগামীকাল লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রাত ৯টা ৩০ মিনিটে শুরু হবে পাকিস্তান-অস্ট্রেলিয়া সিরিজের একমাত্র টি-টোয়েন্টিটি। ইতোমধ্যে তিন ম্যাচের টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজ খেলেছে দু’দল। তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ ১-০ ব্যবধানে জিতে অস্ট্রেলিয়া। ওয়ানডে সিরিজেও জয় দিয়ে শুরু করেছিলো অসিরা। ট্রাভিস হেডের সেঞ্চুরিতে সিরিজের প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া ৮৮ রানে হারিয়েছিলো পাকিস্তানকে। হেড ৭২ বলে ১০১ রান করেন। প্রথম ম্যাচে হেরেও, শেষ পর্যন্ত দারুণভাবে সিরিজ জিতে নেয় পাকিস্তান। পরের দুই ম্যাচে অধিনায়ক বাবর আজমের জোড়া সেঞ্চুরিতে সিরিজ জয়ের আনন্দে ভাসে স্বাগতিকরা। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ইমাম উল হকের ১০৬ ও বাবরের ১১৪ রানে সুবাদে অস্ট্রেলিয়ার ছুঁড়ে দেয়া ৩৪৯ রানের টার্গেট স্পর্শ করে পাকিস্তান। ৬ উইকেটের জয়ের সিরিজে সমতা আনে পাকরা। প্রথম দুই ম্যাচে আগে ব্যাট করে ৩শর বেশি রান করলেও, সিরিজ নির্ধারনী ম্যাচে ২১০ রানে গুটিয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া। মাত্র ১ উইকেট হারিয়ে ও ৭৩ বল বাকী রেখে ২১১ রানের লক্ষ্যমাত্রা স্পর্শ করে ফেলে পাকিস্তান। বাবর সেঞ্চুরি পেলেও, ৮৯ রানে অপরাজিত থাকেন ইমাম। বাবর অপরাজিত ১০৫ রান করেন। ৯ উইকেটের জয়ে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতে পাকিস্তান। ফলে ২০ বছর পর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জয়ের স্বাদ পায় পাকিস্তান। সর্বশেষ ২০০২ সালে অস্ট্রেলিয়া মাটিতে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতেছিলো পাকিস্তান। ওয়ানডে সিরিজ জয়ে ফুরফুরা পাকিস্তান। তবে মনের মধ্যে প্রতিশোধের আগুন ঠিকই জ¦লছে তাদের। কারণ অস্ট্রেলিয়ার কাছে সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ৫ উইকেটে হেরেছিলো পাকিস্তান। আর ঐ ম্যাচটি ছিলো বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল। দুবাইয়ে হওয়া ঐ ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৭৬ রান করেছিলো পাকিস্তান। প্রথম তিন ব্যাটার মোহাম্মদ রিজওয়ান ৬৭, বাবর ৩৯ ও ফখর জামান অপরাজিত ৫৫ রান করেন। ১৭৭ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে ৯৬ রানে পঞ্চম উইকেট হারিয়ে বসে অস্ট্রেলিয়া। এতে সেমিফাইনাল জয়ের স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছিলো পাকিস্তান। তবে ষষ্ঠ উইকেটে মাত্র ৪০ বলে অবিচ্ছিন্ন ৮১ রান তুলে পাকিস্তান স্বপ্ন ভঙ্গ করেন মাকাস স্টয়নিস ও ম্যাথু ওয়েড। ফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে ৮ উইকেটে হারিয়ে প্রথমবারের মত শিরোপা জিতে অসিরা। তাই ঐ হারের প্রতিশোধ নিতে চায় পাকিস্তান। ঐ ম্যাচে খেলা হারিস রউফ বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সর্বশেষ টি-টোয়েন্টিতে আমরা হেরেছিলাম। ম্যাচটি বিশ্বকাপ সেমিফাইনাল ছিলো বলে, এখনও আমাদের মনে আছে। জয়ের ভালো সুযোগ আমরা হাতছাড়া করেছিলাম। তবে এবার আমাদের জিততে হবে, ঐ ম্যাচ হারের প্রতিশোধ নিতে হবে।’ ২৪ বছর পর পাকিস্তান সফরটি জয় দিয়ে শেষ করতে চায় অস্ট্রেলিয়া। উইকেটরক্ষক অ্যালেক্স ক্যারি বলেন, ‘টেস্ট সিরিজ জিতেছি আমরা। ওয়ানডেতে ভালো পারফরমেন্স করলেও, সিরিজ জিততে পারিনি। তবে সফরের শেষটা জয় দিয়েই করতে চাই। আমরা টি-টোয়েন্টিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন, তাই এই ফরম্যাটে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের মতই খেলতে চাই।’ এখন পর্যন্ত টি-টোয়েন্টিতে ২৪ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে অস্ট্রেলিয়া ও পাকিস্তান। অস্ট্রেলিয়ার জয় ১০টি ও পাকিস্তানের জয় ১৩টি। ১টি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়।