August 13, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, July 19th, 2022, 8:37 pm

বৃষ্টিহীন, তীব্র তাপদাহে রোপা আমন ও সবজি নিয়ে বিপাকে নওগাঁর কৃষকরা

সীমান্ত জেলা নওগাঁতে গত দেড় মাস ধরে বৃষ্টির দেখা মিলছে না। ফলে চরমভাবে রোপা আমন ধান চাষ ব্যাহত হচ্ছে। অতিরিক্ত তাপদাহে শুধু ধানই নয়, সবজির খেতও পুড়ছে। এতে করে বিপাকে পড়েছেনে কৃষকরা।

সরেজমিনে দেখা গেছে, কদিন আগেই আমন ধান রোপন করা হয়েছিল। কিন্তু বৃষ্টির অভাবে তা মরতে বসেছে। জমির মাটি ফেটে চৌচির এবং নষ্ট হয়ে যাচ্ছে বীজতলা। নওগাঁর প্রতিটি মাঠের চিত্রই একইরকম। ধানের পাশাপাশি বিভিন্ন সবজির খেতও নষ্ট হতে বসেছে।

নওগাঁ সাপাহার সদর উপজেলার কৃষক কুদ্দুস আলী জানান, মাঠজুড়ে যখন ব্যস্ততা থাকার কথা ধান রোপনের। ঠিক এমন সময়ে বসে বসে দিন কাটছে কৃষকদের। সারাদিন অতিরিক্ত রোদে ঘরের বাহিরে বের হওয়ায় কষ্টর হয়ে পড়েছে। এরপর আবার বৃষ্টি নেই প্রায় মাস পার হতে চললো। এভাবে চলতে থাকলে এ মৌসুমের আবাদ অনেকটাই অনিশ্চিত হয়ে পড়বে।

তিনি জানান, এই মুহূর্তে কৃষক যদি গভীর নলকূপ থেকে পানি সেচে চাষাবাদ করে, তাহলে অনেক খরচ বেড়েছে যাবে। অতিরিক্ত খরচ করে চাষাবাদ করলে এই ফসল থেকে কৃষকের কিছুই থাকবে না।

নওগাঁ সদর উপজেলার বাইপাস মাঠ এলাকার কৃষক সিরাজুল ইসলাম জানান, অনেক কষ্টে মাঠের পাশে একটি ডোবা থেকে পানি সেচে আড়াই বিঘা জমিতে ধানের চারা রোপণ করেছি। কিন্তু ১৫ দিনের মাথায় রোপণ করা ধান গাছগুলো পুড়ে গেছে, জমির মাটি ফেটে গেছে। অল্প দিনের মধ্য যদি বৃষ্টি না হয় তাহলে এসব ধান আর হবে না। শুধু দুই এক জনের নয়, পুরো মাঠ জুড়ে একই অবস্থা। এই বছর পানির অভাবে অনেক কৃষক বীজতলা তৈরি করতে পারেনি। ফলে ধান রোপণ করা অনেকটাই অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

নওগাঁ সদর উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ ফারহানা নাজনিন জানান, এই সময়ে রোপা আমন চাষ মূলত বৃষ্টির পানির ওপর নির্ভর করে চাষাবাদ হয়। সেহেতু এক মাসের বেশি সময় ধরে জেলায় বৃষ্টিপাত নেই, ফলে এমন দুর্যোগ মোকাবিলায় এরই মধ্যেই বরেন্দ্র উন্নয়ন কর্তৃপক্ষকে গভীর নলকুপগুলো চালুর বিষয়ে চিঠি দেয়া হয়েছে।

তবে কিছুটা আশাবাদী আবহাওয়া অধিদপ্তর।

নওগাঁর বদলগাছী আবহাওয়া অধিদপ্তরের পর্যবেক্ষক নজরুল ইসলাম জানান, আগামী ১৯ তারিখের পর থেকে বৃষ্টিপাতে সম্ভাবনা রয়েছে। তবে এই জেলায় কেমন বৃষ্টিপাত হবে সেটা সঠিকভাবে বলা যাচ্ছে না৷ তবে সার্বিকভাবে বৃষ্টির একটা পূর্বাভাস আছে।

কৃষি বিভাগের তথ্যমতে, এ মৌসুমে নওগাঁ জেলার ১১ উপজেলায় এক লাখ ৯২ হাজার হেক্টর জমিতে রোপা আমন চাষের লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে।

—ইউএনবি