June 24, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, November 1st, 2023, 7:55 pm

ব্যক্তিগত রান পেয়ে খুশি সাকিব

অনলাইন ডেস্ক :

বিশ্বকাপে গত মঙ্গলবার কোলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে পাকিস্তানের কাছে ৭ উইকেটে হারলেও ব্যক্তিগতভাবে রানের দেখা পাওয়ায় খুশি বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। পাকিস্তানের বিপক্ষে এবারের বিশ্বকাপে নিজের সর্বোচ্চ ৪৩ রানের ব্যক্তিগত ইনিংস খেলেছেন সাকিব। টপ অর্ডার ব্যাটারদের ব্যর্থতার পরও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের ৫৬ এবং লিটন দাস ৪৫ রানের কল্যাণে ৪৫ দশমিক ১ ওভারে ২০৪ রানের সংগ্রহ পায় বাংলাদেশ। ম্যাচের পর সাকিব বলেন, ‘শীর্ষ চার ব্যাটারের কাছ থেকে আমরা বড় ইনিংস পাচ্ছি না। আমি সেরা চারে ব্যাট করেছি, কিন্তু রান পাইনি। আমার আত্মবিশ্বাসও কম ছিল। সৌভাগ্যবশত কিছু রান পেয়েছি, এখন ভালো লাগছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমরা যথেষ্ট রান তুলতে পারিনি। উইকেট সত্যিই ভালো ছিল। আমরা আবারও শুরুতেই উইকেট হারিয়েছি। কিছু জুটি হয়েছে ঠিকই কিন্তু সেগুলো বড় নয়। ব্যাট হাতে হতাশাজনক পারফরমেন্স ছিলো।

প্রথম ১০ ওভারে পাকিস্তান যেভাবে বোলিং-ব্যাটিংয়ে পারফরমেন্স করেছে এজন্য তাদের কৃতিত্ব দেওয়া উচিত।’ আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৬ উইকেটের জয় দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরুর পর এবারের বিশ^কাপে টানা ষষ্ঠ হারে আসর থেকে ছিটকে গেছে বাংলাদেশ। সাকিব দলগত পারফরমেন্স প্রত্যাশা করলেও নিজেদের মেলে ধরতে পারছে না টাইগাররা। সাকিব বলেন, ‘এই মুহুর্তে, অনেক কিছু পরিবর্তন করা কঠিন। আমাদের সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে। পাশাপাশি পারফর্ম করতে হবে। আমাদের দলীয় পারফরমেন্স প্রয়োজন, যা হচ্ছে না। আরও দু’টি ম্যাচ আছে, আশা করি আমরা ঘুড়ে দাঁড়াতে পারবো।’ সাকিব আরও জানান, টপ অর্ডার থেকে দল যথেষ্ট রান না পাওয়ায় তার ব্যাটিং পজিশন নিয়ে ভাবতে হবে।

দলের বাজে পারফরমেন্সের পরও যারা দলকে সমর্থন করছেন তাদের মুখে হাসি ফোটাতে বদ্ধপরিকর সাকিব। তিনি বলেন, ‘আশা করি আমরা ঘুড়ে দাঁড়াবো। আমরা যেখানেই যাই, তারা (ভক্তরা) আমাদের সমর্থন করছে। তাদের মুখে হাসি ফোটাতে ভক্তদের সমর্থনের প্রতিদান দিতে হবে। টানা চার ম্যাচ হারের পর অবশেষে জয়ের দেখা পাওয়ায় স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছেন পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম। এই জয়ে সেমিফাইনালের আশা বেঁচে আছে পাকিস্তানের। বাবর বলেন, ‘তিন বিভাগেই আমরা যেভাবে খেলেছি, সব কৃতিত্ব ছেলেদের।

আমরা জানি, ফখর ২০-৩০ ওভার ব্যাট করতে পারলে ম্যাচের চিত্র পাল্টে যাবে। নিজের স্বাভাবিক খেলা খেলেছে সে। তাকে দেখে ভালো লাগছে। আমরা পরের দু’টি ম্যাচে জয়ের চেষ্টা করবো। এরপর দেখবো আমাদের অবস্থান কোয়ায় দাঁড়ায়।’ তিনি আরও বলেন, ‘শাহিনে দারুন বোলিংয়ে আমাদের শুরু ভালো হয়েছে। ১৫-২০ ওভার পর তারা কিছু জুটি গড়েছে। আমাদের প্রধান বোলাররা উইকেট পেয়েছে। মাঝের ওভারগুলোতে উইকেট শিকার ছিল গুরুত্বপূর্ণ।’