November 30, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Thursday, November 24th, 2022, 7:47 pm

ব্যাংক থেকে টাকা তুলে বাড়িতে রাখলে চোরেরা উৎসাহিত হবে: প্রধানমন্ত্রী

ছবি: পি আই ডি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কিছু লোক ব্যাংকে টাকা নেই বলে মিথ্যা প্রচারণা চালাচ্ছে এবং সেই গুজবে কান দিয়ে কেউ কেউ ব্যাংক থেকে টাকা তুলে নিচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘ব্যাংক থেকে টাকা তুলে বাড়িতে রাখলে চোরেরা টাকা চুরি করতে উৎসাহিত হবে। এটা শুধু চোরদের জন্য একটা সুযোগ তৈরি করছে।’

বৃহস্পতিবার যশোর জেলা স্টেডিয়ামে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক বিশাল জনসভায় বক্তৃতাকালে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় ‘ব্যাংকগুলো তীব্র তারল্য সংকটে রয়েছে এমন গুজবের’ নিন্দা করেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন,‘ব্যাংকে টাকা নেই, এটা একটা নির্জলা মিথ্যাচার। ’

শেখ হাসিনা জানান, বুধবারও তিনি বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন।

তিনি আশ্বস্ত করে বলেন, ‘ব্যাংকে যথেষ্ট টাকা আছে’।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কিছু লোক বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভের কথা বলছে। বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ নিয়ে কোন সমস্যা নেই।’

তিনি বলেন, রেমিট্যান্স আসছে, বিদেশি বিনিয়োগ হচ্ছে, রপ্তানি আয় বেড়েছে, কর আদায়ও বেড়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘অন্যান্য দেশগুলো যখন বৈশ্বিক মন্দার কারণে মারাত্মক বিপর্যয়ের মুখোমুখি হচ্ছে, তখনও বাংলাদেশ শক্তিশালী হচ্ছে।’

তিনি জনগণকে কোনো গুজবে কান না দেয়ার আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আপনারা জানেন, সব সময় গুজব ছড়ানো বিএনপির কাজ।

বিএনপি কখনো দেশ ও জনগণের কল্যাণে কিছু করেনি জানিয়ে তিনি বলেন, ‘তারা যখন ক্ষমতায় ছিল সব সময় লুটপাটে লিপ্ত হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ২০০১-০৬ মেয়াদে বিএনপি বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ মাত্র ২ দশমিক ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে রেখেছিল। ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ যখন সরকার গঠন করে, তখন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ছিল ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। করোনাভাইরাস মহামারি চলাকালীন কোনও রপ্তানি বা আমদানি হয়নি, তাই বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৪৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে জমা হয়েছিল।

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেন, জনগণের জন্য কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন, সার, চাল ও গম কিনতে সরকার অর্থ ব্যয় করেছে। ‘এগুলো (বৈদেশিক মুদ্রা) কোথাও যায় নি, এগুলো জনগণের কল্যাণে ব্যয় করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা বিভিন্ন কাজে বিনিয়োগ করেছি। যেমন- রপ্তানি করেছি, কৃষিতে প্রনোদনা দিয়েছি এবং আট বিলিয়ন মার্কিন ডলার ঘাটতির অর্থ দিয়েছি।’

সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, খুলনা থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য শেখ হেলাল, আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মো. আব্দুর রাজ্জাক, পীযূষ কান্তি ভট্টাচার্য ও জাহাঙ্গীর কবির নানক প্রমুখ।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন যশোর জেলা আ’লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন। সমাবেশ পরিচালনা করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার।

—-ইউএনবি