December 3, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, October 11th, 2022, 7:38 pm

‘ভাঙন’ সিনেমায় মৌসুমীর নায়ক বাবু

অনলাইন ডেস্ক :

‘এ কী! এ যে সেই মুখ, যারে আমি খুঁজি। আমার বাঁশি যারে খোঁজে’; মৌসুমীকে দেখার পর মনে মনে কথাগুলো বললেন ফজলুর রহমান বাবু। আবার তার বাঁশির সুরে মন হারিয়ে অকপটে মৌসুমী বলে দিলেন, ‘গভীর রাইতে যখন বাঁশি বাজাও, আমার মনডা আনচান করে’। রোমান্টিক এই আলাপ শোনা গেলো নতুন একটি সিনেমার ট্রেলারে। যেটার নাম ‘ভাঙন’। সরকারি অনুদান পাওয়া সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন মির্জা সাখাওয়াৎ হোসেন। সম্প্রতি এর বিশেষ ট্রেলার উন্মোচন করেছেন তিনি। ট্রেলার দেখে আঁচ করা গেলো, ‘ভাঙন’-এ একজন চুড়ি বিক্রেতার ভূমিকায় আছেন মৌসুমী। আর ফজলুর রহমান বাবুকে উপস্থাপন করা হয়েছে এক বংশীবাদক হিসেবে। ঘটনাক্রমে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। কিন্তু তার মাঝেও হানা দেয় বিরহের বাতাস।চোখের জল ফেলতে ফেলতে মৌসুমী বলেন, ‘আমার এক জীবনে আমি শুধু তোমারেই ভালোবাসি।’ নিরুপায় সুরে বাবু জবাব দেন, ‘আমি যে বাঁশির সুরের মধ্যে জনম জনম তোমারেই খুঁজছি। বিশ্বাস করো, আমার মনে হয় এই জনমে যদি আমি তোমারে হারাইয়া ফালাই, আমার বাঁশিও থাইমা যাইবো’। বাবু-মৌসুমীর এই রসায়ন কতটুকু জমেছে, সেটা পুরোপুরি বোঝা যাবে ‘ভাঙন’ সিনেমাটি মুক্তির পর। তবে ট্রেলার দেখে অধিকাংশ দর্শক যে তৃপ্ত নন, তা স্পষ্ট। ইউটিউব ও ফেসবুকে ট্রেলারটি নিয়ে দর্শকের বিভিন্ন নেতিবাচক মন্তব্যই তা পরিষ্কার করে দেয়। নেটিজেন শাকিল খান মন্তব্য করেছেন, ‘মৌসুমীর অভিনয় দিন দিন যাত্রাপালা থেকেও জঘন্য হয়ে যাচ্ছে।’ নূর নামে একজনের মতে, সরকার যে অর্থ এই সিনেমার জন্য অনুদান দিয়েছে, সেটা ফিরিয়ে নেওয়া উচিত। জুলকারনাইন নামে এক দর্শক আক্ষেপ করলেন ফজলুর রহমান বাবুকে নিয়ে। লিখেছেন, ‘এই সিনেমা ফজলুর রহমান বাবু কীভাবে সাইন করলো! ওনার সাথে এসব সিনেমা যায় না।’এদিকে নির্মাতা মির্জা সাখাওয়াৎ হোসেন জানিয়েছেন, নির্মাণ শেষে এখন মুক্তির জন্য প্রস্তুত তার সিনেমাটি। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ৪ নভেম্বর মুক্তি পাবে এটি।উল্লেখ্য, ‘ভাঙন’ সিনেমাটি ২০২০-২১ অর্থবছরে সরকারি অনুদান পেয়েছে। এতে বাবু-মৌসুমী ছাড়াও অভিনয় করেছেন মির্জা আফরিন, প্রাণ রায়, রাশেদা চৌধুরী, খলিলুর রহমান কাদেরী, হিমেল রাজ, আনোয়ার সিরাজী প্রমুখ।