May 20, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, February 18th, 2022, 8:13 pm

ভারতের অর্ধেক জনপ্রতিনিধির বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা’

অনলাইন ডেস্ক :

ভারতের আইনপ্রণেতাদের নিয়ে সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী লি সিয়েন লুংয়ের মন্তব্যের তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে নয়া দিল্লি। এ ব্যাপারে ব্যাখ্যা চেয়ে ইতোমধ্যে সিঙ্গাপুরের রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। গত বৃহস্পতিবার টুইটারে একটি ভিডিও পোস্ট করেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও কংগ্রেসের প্রবীণ নেতা জয়রাম রমেশ। তাতে লি সিয়েন লুংয়ের বক্তব্যের ভিডিও রেকর্ডিং ছিল। সিঙ্গাপুরের পার্লামেন্টে অনুষ্ঠিত এক বিতর্কে প্রধানমন্ত্রী লি সিয়েন বলেছেন, ‘অধিকাংশ দেশই মহান নীতি ও আদর্শের উপর ভিত্তি করে প্রতিষ্ঠিত হয়। কিন্তু, সময়ের সঙ্গে অনেক কিছুরই পরিবর্তন হয়। শুরুটা হয় আন্তরিকতা ও গভীর আবেগের মধ্যে দিয়ে। যে নেতারা স্বাধীনতার জন্য লড়াই করেছিলেন, দেশকে স্বাধীন করেছিলেন, তারা অনন্য ও ব্যতিক্রমী। তারা অসীম সাহস, সংস্কৃতি ও অসাধারণ ক্ষমতার প্রতীক। তারা আগুনের গোলা পার করে আসেন এবং ধীরে ধীরে হয়ে ওঠেন জনতা ও জাতির নেতা। ডেভিড বেন-গরিসন, জওহরলাল নেহরু ও আমাদের নেতারা সেরকমই।’ তিনি বলেন, ‘মহান নেতারা মহান আদর্শ নিয়ে দেশ গড়লেও উত্তরসূরিরা সেই নীতি বহু ক্ষেত্রেই বজায় রাখতে পারে না।’এ প্রসঙ্গে ভারতের উদাহরণ তুলে ধরে সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘নেহরুর ভারতে এখন এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে যে, সেখানে লোকসভার প্রায় অর্ধেক জনপ্রতিনিধির বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা চলমান। এমনকি তাদের বিরুদ্ধে খুন, ধর্ষণের মতো অভিযোগও রয়েছে। যদিও অনেকেই দাবি করেন, এসব অভিযোগের অধিকাংশই নাকি রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।’ লি সিয়েনের এই মন্তব্যে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছে ভারত। এর পরিপ্রেক্ষিতে নয়া দিল্লিতে নিযুক্ত সিঙ্গাপুরের রাষ্ট্রদূত সিমন ওয়ংকে তলব করেছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। নয়া দিল্লি সূত্র জানিয়েছে, সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রীর এই মন্তব্য অনভিপ্রেত। বিষয়টি নিয়ে তারা সরাসরি সিঙ্গাপুর সরকারের সঙ্গে কথা বলবে।