April 23, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, February 26th, 2024, 8:18 pm

ভারতের বিখ্যাত গজলশিল্পী পঙ্কজ উদাস আর নেই

ভারতের বিখ্যাত গজলশিল্পী ও প্লেব্যাক গায়ক পঙ্কজ উদাস সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) নিশ্বাস ত্যাগ করেন। তার বয়স হয়েছিল ৭২ বছর।

‘পদ্মশ্রী’ পুরস্কারপ্রাপ্ত এই গায়কের পরিবারের বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যমে জানানো হয়, মুম্বাইয়ের ব্রিচ ক্যান্ডি হাসপাতালে বেলা ১১টার দিকে তিনি মারা যান।

পঙ্কজ উদাসের মেয়ে নায়াব উদাস ইনস্টাগ্রাম পোস্টে লিখেছেন, ‘ভারাক্রান্ত হৃদয়ে আমরা আপনাদের দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি- দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থতার কারণে ২৬ ফেব্রুয়ারি পদ্মশ্রী পঙ্কজ উদাস মৃত্যু বরণ করেছেন।’

বিশিষ্ট গায়কের মৃত্যুর খবরে তার ভক্ত এবং অনুরাগীরা সোশ্যাল মিডিয়ায় শোক জানাচ্ছেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে।

পঙ্কজ উদাস ১৯৫১ সালের ১৭ মে গুজরাটের জেটপুরে কেশুভাই উধাস ও জিতুবিন উদাসের ঘরে জন্মগ্রহণ করেন।

তার সবচেয়ে সুপরিচিত গানগুলি হল- মহেশ ভাটের ১৯৮৬ সালের ক্রাইম থ্রিলার থেকে ‘চিঠঠি আয়ি চিঠঠি আয়ি হ্যায়’, ১৯৯৮ সালে প্রবীণ ভাটের ‘এক হি মাকসাদ’ ছবির ‘চান্দী জায়সা রং হ্যায় তেরা’, ফিরোজ খানের ১৯৮৮ সালের অ্যাকশন থ্রিলার ‘দয়াবন’ থেকে আজ ‘ফির তুম্পে, ১৯৯১ সালে লরেন্স ডি’সুজার রোমান্টিক ছবি ‘সাজনের’ ‘জিয়ে তো জিয়ে’ এবং আব্বাস-মাস্তানের ১৯৯৩ সালের প্রতিশোধ থ্রিলার ‘বাজিগর’ থেকে ছুপনা ভি নেহি আতা।

তার গজল ক্যারিয়ারে ‘আহাত’ (১৯৮০) এর মতো নামী অ্যালবাম এবং ‘না কাজরে কি ধার’ এর মতো ট্র্যাক অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। ‘অউর আহিস্তা কিজিয়ে বাতেঁ’, ‘এক তরফ উসকা ঘর’ এবং ‘থোড়ি থোড়ি পিয়া করো’ অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

তিনি তার বিখ্যাত বাংলা গজল এবং ‘ভালোবাসা’, ‘চোখ তার চোরাবালি’ সহ আধুনিক গানের জন্য বাংলার শ্রোতাদের কাছে ব্যাপকভাবে সম্মানিত।

এছাড়া ১৯৮৯ সালে প্রকাশিত ‘ভালোবাসা’ অ্যালবাম থেকে ‘আমি তোমায় নিয়ে’ এবং আরও অনেক কিছু অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

গজল শিল্প এবং ভারতীয় সংগীত শিল্পে তার মহিমান্বিত অবদানের জন্য, পঙ্কজ উদাস ২০০৬ সালে ভারতীয় প্রজাতন্ত্রের চতুর্থ সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার পদ্মশ্রী পেয়েছিলেন।

—–ইউএনবি