November 28, 2021

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, November 5th, 2021, 9:22 pm

মটর মালিক ও শ্রমিকদে অঘোষিত ধর্মঘট: রংপুর থেকে কৃষিজাত পণ্যসহ অন্যান্য কাঁচামাল পরিবহন ব্যাহত হচ্ছে

জেলা প্রতিনিধি, রংপুর :

মটর মালিক ও শ্রমিকদে অঘোষিত ধর্মঘটের কারণে রংপুরের বিভিন্ন রুটে বাস, ট্রাক, পিকআপ ভ্যানসহ বিভিন্ন পরিবহন বন্ধ থাকায় রংপুর থেকে কৃষিজাত পণ্যসহ অন্যান্য কাঁচামাল পরিবহন ব্যাহত হচ্ছে। ঢাকাগামী পরীক্ষার্থী ও চিকিৎসাসেবা প্রত্যাশী মানুষজন সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েছেন। জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির প্রভাব পড়েছে জনজীবনে। বাস ও ট্রাক মালিকেরা বলছেন বিভাগীয় ও জেলা পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ ধর্মঘট পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাই আমরা বাস ও ট্রাক চলাচল বন্ধ রেখেছি। ভাড়া বৃদ্ধি না করে শুধু জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধিকে সরকারের একটি ভুল সিদ্ধান্ত বলে তারা জানান।

শুক্রবার ভোর ছয়টা থেকে রংপুরেও চলছে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট। কেরোসিন ও ডিজেলের দাম ১৫ টাকা বৃদ্ধিও প্রতিবাদে রংপুর বিভাগ ও জেলার পরিবহন মালিক-শ্রমিক সংগঠনের নেতারা ধর্মঘটের ডাক দেয়। ধর্মঘটের কারণে বাস-ট্রাক-ট্যাংকলরিসহ পণ্যবাহী পরিবহন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

নগরীর কামারপাড়া কোচ স্ট্যান্ড, বাস টার্মিনাল, ট্রাক টার্মিনাল, কুড়িগ্রাম বাস টার্মিনাল, মর্ডাণ মোড়সহ বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে মহাসড়কসহ বিভিন্ন আঞ্চলিক সড়কে কোনো বাস ও ট্রাক চলাচল করছে না। ধর্মঘটের কারণে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। ছোট ছোট যানবাহনে গন্তব্যে ছুটছেন তারা। এতে গুনতে হচ্ছে বাড়তি ভাড়া। পুলক রহমান জানান, আমাকে ঢাকা যেতে হবে। না গেলে আমার ব্যবসার দারুণ ক্ষতি হবে। ধর্মঘটের কারণে যেতে পারছি না। সরকারের উচিৎ পরিবহন নেতাদের সাথে আলোচনা কওে সমাধান করা। সাদ্দাম হোসেন নামে এক অভিভাবক জানান, ঢাকায় আমার মেয়ের পরীক্ষা কোচ স্ট্যান্ডে এসে জানতে পারেন ধর্মঘটের কারণে বাস চলাচল বন্ধ। মেয়ে পরীক্ষা দিতে পারবে কিনা আল্লাহ্ জানে।

ট্রাক চালক জসীম জানান, সরকার কোনো বার্তা না দিয়ে হঠাৎ করে তেলের দাম লিটারে ১৫ টাকা করে বাড়িয়ে দিয়েছে। সরকার তো তেলের দাম বাড়িয়েছে, গাড়ি ভাড়া তো বাড়ায়নি। এখন কারো কাছ থেকে বেশি ভাড়া চাওয়াটা মুশকিল। আবার টোলও বাড়ানো হয়েছে। এখন তো সব জায়গায় দাম বাড়ার প্রভাব পড়বে।

আগমনী পরিবহনের ম্যানেজার কৈলাশ জানান, সরকার ঘোষনা না দিয়ে তেলের দাম বাড়ানো ঠিক করেনি। আমরা তেলের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে ধর্মঘট পালন করছি। এখন বাস ভাড়া না বাড়ানো ছাড়া আমাদেরও উপায় থাকবে না।