July 17, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, July 19th, 2022, 8:39 pm

ময়মনসিংহে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় অভিযুক্ত ট্রাকচালক গ্রেপ্তার

ময়মনসিংহের ত্রিশালে সড়ক পারাপারের অপেক্ষায় থাকা অন্তঃসত্ত্বা নারী, তাঁর স্বামী ও সন্তানের ওপর ট্রাক তুলে দেওয়া ঘটনায় ঘাতক রাজু আহমেদকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। ছবিটি মঙ্গলবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে।

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে অন্তঃসত্ত্বা নারীসহ একই পরিবারের তিন জন নিহত ও অলৌকিকভাবে শিশু ভূমিষ্ঠ হওয়ার ঘটনায় ট্রাকচালককে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

মঙ্গলবার এক প্রেস ব্রিফিংয়ে র‌্যাব সদর দপ্তরের পরিচালক লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইং কমান্ডার খন্দকার আল মঈন জানান, আটক মো. রাজু আহমেদ শিপন (৪২) রাজশাহীর আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে।

র‌্যাব কমান্ডার জানান, অভিযান চালিয়ে মঙ্গলবার রাতে ঢাকার সাভার এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

তিনি জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি শনিবার দুপুরে কিশোরগঞ্জে পণ্য নিয়ে যাওয়ার সময় ময়মনসিংহের ত্রিশাল বাসস্ট্যান্ডের কাছে তিনজনকে ট্রাকচাপা দেয়ার কথা স্বীকার করেছেন।

স্থানীয়রা ট্রাকটি থামালে অভিযুক্ত চালক ঢাকাগামী একটি বাসে উঠে পালিয়ে যান এবং এরপর থেকে তিনি পলাতক ছিলেন।

শনিবার ত্রিশাল উপজেলার কোর্ট বিল্ডিং এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে সড়ক দুর্ঘটনায় এক কন্যা শিশুর জন্ম হয়, এই সময় বাবা-মাসহ পরিবারের তিন সদস্যের মৃত্যু হয়।

নিহতরা হলেন- উপজেলার রায়মনি গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম (৩৫), তার স্ত্রী রত্না বেগম (২৬) ও তাদের মেয়ে জান্নাত আরা (৩)।

জাহাঙ্গীর আলম তার আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী ও কন্যা সন্তানকে নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্ত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য আসেন। ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক পারাপারের সময় ট্রাকটি তাদের চাপা দেয়। ঘটনাস্থলেই জাহাঙ্গীর আলম, তার স্ত্রী রত্না বেগম ও তার মেয়ে জান্নাত মারা যায়। অন্তঃসত্ত্বা রত্না বেগমের পেটে থাকা নবজাতক শিশু চাপ খেয়ে রাস্তায় প্রসব হয়।

পরে শিশুটি বাম হাত ও গলার হাড় ভেঙে যাওয়ায় তাকে ময়মনসিংহ লাবিব হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

এ ঘটনায় গত ১৭ জুলাই জাহাঙ্গীরের বাবা বাদী হয়ে ত্রিশাল থানায় মামলা করে।

আটকের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।

—ইউএনবি