September 27, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, December 8th, 2021, 9:08 pm

মামলা করতে গিয়ে দুর্বৃত্তদের ধাওয়া, ছাত্রদল নেতার মৃত্যু

জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিএনপি নেতার মোটরসাইকেলে আগুন দেওয়াকে কেন্দ্র করে রাতে সরকার দলীয় নেতাকর্মীদের ধাওয়া খেয়ে ফারুক হোসেন নামের পৌর ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়কের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। ফারুক পৌর শহরের দানেজপুর এলাকার প্রবাসী শহিদুল ইসলামের ছেলে।

জানা যায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় স্টেশন সড়কে বিএনপি অফিসের সামনে সড়কে দাঁড় করানো থানা বিএনপির আহবায়ক সাইফুল ইসলাম ডালিমের মোটরসাইকেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। একই দিন রাত ১২টার দিকে বিএনপি নেতারা থানায় মামলা করতে গেলে বাইরে অবস্থানরত দুর্বৃত্তরা নেতাকর্মীদের ধাওয়া দেয়। এসময় ফারুক হোসেন দৌড়ে গিয়ে থানার সামনে সড়কে জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে পড়ে যান। ঘটনা জানাজানি হলে রাত দেড়টার দিকে ফারুককে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় পুলিশ ও দলীয় নেতাকর্মীরা এর পর ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

হাসপাতালের জুরুরি বিভাগের দায়িত্বে থাকা মেডিকেল অফিসার ডা. রাফসান জানি বলেন, হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই ফারুকের মৃত্যু হয়েছে। থানা বিএনপির আহবায়ক সাইফুল ইসলাম ডালিম জানান, তার মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে উপজেলা যুবলীগের সদস্য আনিছুর রহমান শিপনকে প্রধান আসামি করে চারজনের নামে মামলা দায়ের করতে থানায় গিয়েছিলাম। এসময় থানার বাইরে ছাত্রদল নেতা ফারকের ওপর হামলা করে তাকে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। পুলিশ সিসিটিভি ফুটেজ দেখে আজ ভোররাতে অভিযান চালিয়ে মহিপুর হাজি মহসিন সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হাসান (৩০), কুসুম্বা ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতা ধুরইল গ্রামের আরিফুল ইসলামসহ একই গ্রামের আনিছুর রহমান ও মুজাহিদুলকে সন্দেহভাজন হিসেবে আটক করেছে।

থানার ওসি পলাশ চন্দ্র দেব জানান, মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে। ছাত্রদল নেতা ফারুকের লাশ ময়নাতদন্তের পর তার পরিবারের সাথে কথা বলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিহত ফারুকের মামা আমজাদ হোসেন জানান, আমার ভাগনে ফারুক বিএনপি নেতাদের সাথে থানায় গেছিল। কিন্তু কীভাবে মারা গেছে আমরা তা জানি না।