February 9, 2023

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, January 4th, 2023, 8:23 pm

মাশরাফি-মুশফিক সিলেটের ‘এক্স-ফ্যাক্টর’

অনলাইন ডেস্ক :

বিপিএল ইতিহাসে সবচেয়ে হতাশ করা দল ছিলো সিলেট ফ্র্যাঞ্চাইজির। বেশিরভাগ সময় টেবিলের নিচের সারির দিকে থাকায় এবার সেই হতাশাকে পেছনে ফেলে ঘুরে দাঁড়াতে বদ্ধ পরিকর তারা। এবার সম্পূর্ণ নতুন মালিকানায় দল গঠন করেছে সিলেটের ফ্র্যাঞ্চাইজিটি। মালিকানা নতুন হলেও দলের মূল শক্তি দেশের অভিজ্ঞ ও পুরনো ক্রিকেটাররা। মূলত জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজাকে ঘিরেই নতুনভাবে শুরু করবে সিলেট স্ট্রাইকার্স। ড্রাফট থেকে দলটি নিয়েছে দেশের আরেক অভিজ্ঞ ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিমকে। দলে আছেন অভিজ্ঞ পেসার রুবেল হোসেনও। সিলেট দলে খেলবেন পাকিস্তানের পেসার মোহাম্মদ আমির। অবসর নেয়া শ্রীলংকার অলরাউন্ডার থিসারা পেরেরাকেও দলে নিয়েছে দলটি। বর্তমান আন্তর্জাতিক অঙ্গনে খেলা বিদেশি ক্রিকেটারদের তালিকায় আরও আছেন- পাকিস্তানের মোহাম্মদ হারিস, শ্রীলংকার ধানাঞ্জয়া ডি সিলভা, জিম্বাবুয়ের রায়ান বার্লরা। দলে দুই ওপেনার হিসেবে আছেন নাজমুল হোসেন শান্ত এবং জাকির হাসান। সদ্য ভারতের বিপক্ষে ঘরের মাঠে টেস্ট অভিষেক হয়েছে জাকিরের। দেশের উইকেটে কার্যকর হলেও শান্তর স্ট্রাইক রেট নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। তবে সিলেটের মিডল অর্ডার খুব বেশি শক্তিশালী নয়। মুশফিকের উপরই অনেক বেশি নির্ভর করতে হবে দলকে। তবে মুশফিকের বর্তমান ফর্ম মোটেও আহামরি নয়। ইতোমধ্যে টি-টোয়েন্টি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন তিনি। প্রতিভাবান ক্রিকেটার হলেও, এখন পর্যন্ত নিজেকে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে প্রতিষ্ঠিত করতে পারেননি তৌহিদ হৃদয়। বিপিএলের মঞ্চেই নিজেকে প্রমাণের বড় সুযোগ তার সামনে। ২০২০ সালে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলকে শিরোপা জয়ে নেতৃত্ব দেয়া আকবর আলীও নিজেকে ঠিকঠাক প্রতিষ্ঠিত করতে পারেননি। অনূর্ধ্ব-১৯ দলে আকবরের সতীর্থরা অনেকেই ইতোমধ্যে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করেছেন। নিজেকে প্রমাণ করার জন্য যথার্থ কিছু করতে পারেনি তিনি। আর তাই একজন প্রতিভাবান খেলোয়াড় হিসেবে এই বিপিএলই নিজেকে প্রমাণের বড় প্লাটফর্ম আকবরের জন্য। স্থানীয় পেসারদের মধ্যে রেজাউর রহমান রাজাকে দলে নিয়েছে সিলেট। আক্রমণাত্মক ব্যাটার তানজিম হাসান সাকিবকে দলে ভিড়িয়েছে দলটি। দলে আছেন অভিজ্ঞ স্পিনার নাবিল সামাদও। তবে সব মিলিয়ে গড় মানের দল সিলেট। মাশরাফি-মুশফিকের অভিজ্ঞতা ও বিদেশিদের পারফরমেন্স উপর নির্ভর করবে সিলেট। ৬ জানুয়ারি মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মৌসুমের প্রথম ম্যাচে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের মুখোমুখি হবে সিলেট স্ট্রাইকার্স।
সিলেট স্ট্রাইকার্স দল:
সরাসরি চুক্তি: মাশরাফি বিন মুর্তজা, মোহাম্মদ আমির (পাকিস্তান), মোহাম্মদ হারিস (পাকিস্তান), রায়ান বার্ল (জিম্বাবুয়ে), কামিন্দু মেন্ডিস (শ্রীলংকা), ধনঞ্জয়া ডি সিলভা (শ্রীলংকা), থিসারা পেরেরা (শ্রীলংকা)।
ড্রাফট থেকে স্থানীয় খেলোয়াড়: মুশফিকুর রহিম, নাজমুল হোসেন শান্ত, রেজাউর রহমান রাজা, নাবিল সামাদ, তৌহিদ হৃদয়, রুবেল হোসেন, জাকির হাসান, নাজমুল ইসলাম অপু, আকবর আলী, মোহাম্মদ শরিফুল্লাহ, তানজিম হাসান সাকিব।
ড্রাফট থেকে বিদেশী খেলোয়াড়: টম মুরস (ইংল্যান্ড), গুলবাদিন নাইব (আফগানিস্তান)।