March 30, 2023

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, March 17th, 2023, 8:59 pm

মাহমুদউল্লাহ এখনও ফুরিয়ে যায়নি: হাথুরুসিংহে

অনলাইন ডেস্ক :

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের দলে রাখা হয়নি অভিজ্ঞ ক্রিকেটার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে। ভারতে আসন্ন ওয়ানডে বিশ্বকাপের আগে তরুণ ক্রিকেটারদের পর্যবেক্ষণ করতেই মূলত তাকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে, নির্বাচকরা এমন দাবিই করেছিলেন। তবুও প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে ইয়াসির আলী রাব্বি, রনি তালুনদার কিংবা তৌহিদ হৃদয়রা সফল হলে মাহমুদউল্লাহ কি ফিরতে পারবেন বিশ্বকাপ দলে! শনিবার প্রধান কোচ চান্ডিকা হাথুরুসিংহে স্পষ্ট করেই জানিয়ে দিলেন, বিশ্বকাপের পরিকল্পনায় খুব ভালো করেই আছেন ‘সাইলেন্ট কিলার’খ্যাত মাহমুদউল্লাহ। ২০১৫ ওয়ানডে বিশ্বকাপে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে সেঞ্চুরি করে নিজের নামটা রেকর্ড বুকে তোলার পরও মাহমুদউল্লাহ পার্শ্বনায়ক হয়েই আছেন। এ ছাড়া আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সাকিবের সঙ্গে দারুণ এক জুটি গড়ে বাংলাদেশকে সেমিফাইনালে তোলেন এই ডানহাতি ব্যাটার। এমন অনেক বড় বড় জয়ে অবদান রেখেছিলেন তিনি। কিন্তু সাম্প্রতিককালে ওয়ানডে ফরম্যাটে দলের জয়ে খুব একটা অবদান রাখতে পারছেন না মাহমুদউল্লাহ। ম্যাচ ফিনিশ করার যে দায়িত্ব ছিল, সেটা ঠিকঠাক পালন করতে পারছিলেন না তিনি। উল্টো তার স্লো ব্যাটিংয়ে দলকে ভুগতে হয়েছে বেশ। সর্বেশেষ ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে ৬৬ গড়ে ৭১ রান করেছিলেন তিনি। সবমিলিয়ে ২১৮ ওয়ানডেতে ৪ হাজার ৯৫০ রান করলেও তার স্ট্রাইকরেট ৭৬.১৪! এমন প্রভাবহীন ব্যাটিংয়ে দলকে আরও কঠিন পরিস্থিতিতে পড়তে হতো। সবমিলিয়ে তাই বিশ্বকাপের আগে বিকল্পের সন্ধানে টিম ম্যানেজমেন্ট। মাহমুদউল্লাহকে বিশ্রাম দেওয়া প্রসঙ্গে হাবিবুল বাশার সুমন বলেছেন, ‘মাহমুদউল্লাহকে বিশ্রাম দিয়েছি এই সিরিজে। কারণ, মাহমুদউল্লাহ পরীক্ষিত ক্রিকেটার। তাকে নিয়ে খুব বেশি কাজ করার নেই। সম্ভবত তিনটি বিশ্বকাপ খেলে ফেলেছে, তার জন্য বিশ্বকাপ নতুন কিছু না। যদি কোনো কারণে বিশ্বকাপের আগে কেউ ইনজুরিতে পড়ে, আরও দুই একটা জায়গা হয়তো আমরা দেখবো সামনে, সেক্ষেত্রে যাকে নিয়ে যাই সে যেন প্রস্তুত হয়, সেটারই চেষ্টা চলছে এই সিরিজে।’ শুক্রবার (১৭ মার্চ) আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে শুরুর আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে প্রধান কোচ হাথুরুসিংহেও নির্বাচকদের সঙ্গে সুর মিলেয়ে বলেছেন, ‘আমার মনে হয় না সে তার সেরা সময়কে পেছনে ফেলে এসেছে। আমরা চেষ্টা করছি বিশ্বকাপের আগে আমাদের খেলোয়াড়ের পুল বাড়াতে। বিশ্বকাপের কাছাকাছি গিয়ে যদি কারও কিছু হয়ে যায়, তাহলে আমাদের হাতে যেন এমন পর্যাপ্ত খেলোয়াড় থাকে, যাদের আমরা দেখেছি এবং যাদের ওপর ভরসা করতে পারি যারা নিজের ভূমিকা পালন করতে পারে।’ বিশ্বকাপের আগে বাংলাদেশ দল বেশ কিছু ওয়ানডে খেলবে। সেইসব ম্যাচে মাহমুদউল্লাহর বিকল্প হিসেবে বেশ কিছু ক্রিকেটারদের পরখ করা হবে। হাথুরুসিংহের কথাতে সেটিই স্পষ্ট, ‘সেই সুযোগটিই আমরা নিতে চাই। কারণ বিশ্বকাপের আগে আর মাত্র ১৫টির মতো ওয়ানডে আছে আমাদের। আমরা তাই এমন কিছু খেলোয়াড়কে দেখতে চাইছি, যারা অবদান রাখতে পারবে আমরা মনে করি। মাহমুদউল্লাহ এখনও পরিকল্পনায় আছে। আমরা এভাবেই দেখছি।’ মাহমুদউল্লাহর জায়গায় ওয়ানডে দলে সুযোগ দেওয়া হয়েছে ইয়াসির ও হৃদয়কে। বিশ্বকাপের আগে তরুণ এই দুই ক্রিকেটার পারফরম্যান্স করলে মাহমুদউল্লাহর কি ফিরতে পারবে? হাথুরুসিংহে অবশ্য এর উত্তর সরাসরি দিলেন না, ‘এটার উত্তর দেওয়া খুবই কঠিন। আপনি বের করার চেষ্টা করছেন যে, আমরা মাহমুদউল্লাহকে নিয়ে কী ভাবছি। (মাহমুদউল্লাহ) যথেষ্ট করেছে এখনও পর্যন্ত, তার অভিজ্ঞতা অনেক। আমরা জানি যে তার কাছ থেকে কী পেতে পারি। আমরা তাই অন্য কিছু ছেলেকে দেখতে চাই। তার মানে এই নয় যে মাহমুদউল্লাহ ফুরিয়ে গেছে। সে এখনও আমাদের পরিকল্পনায় আছে।’