August 11, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, July 18th, 2022, 1:23 pm

মুক্তির আগেই আলোচনায় ‘হাওয়া’

মেজবাউর রহমান সুমন পরিচালিত ‘হাওয়া’ মুক্তি পাবে ২৯ জুলাই। তবে এ নিয়ে আলোচনা চলছে বেশ আগে থেকেই। সিনেমার ‘সাদা সাদা কালা কালা’ শিরোনামে একটি গানও এরই মধ্যে প্রকাশ হয়েছে, যা ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছে।

‘হাওয়া’তে অভিনয় করেছেন একঝাঁক তারকা। তাদের মধ্যে রয়েছেন চঞ্চল চৌধুরী, নাজিফা তুষি, শরীফুল ইসলাম রাজ, সুমন আনোয়ার, সোহেল মণ্ডল, নাসির উদ্দিন খান, রিজভী রিজু, মাহমুদ আলম, বাবলু বোস প্রমুখ।

সিনেমাটি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন উপায়ে প্রচারণা শুরু হয়েছে। শুটিংয়ের বিভিন্ন অভিজ্ঞতার কথা পোস্ট করছেন সংশ্লিষ্টরা। এমনকি দর্শকরাও ‘হাওয়া’ নিয়ে বেশ আগ্রহ প্রকাশ করছেন। বিশেষ করে ‘সাদা সাদা কালা কালা’ গানটি প্রকাশের পর।

গানটির গীতিকার ও সুরকার হাশিম মাহমুদ। কণ্ঠ দিয়েছেন আরফান মৃধা। এ নিয়ে একটি লেখা ফেসবুকে পোস্ট করেন সিনেমার পরিচারক মেজবাউর রহমান সুমন। তিনি লেখেন, ‘আমি যখন চারুকলায় পড়তাম তখন অনেক অদ্ভুত অদ্ভুত ঘটনা আর মানুষের সাথে আমার পরিচয় হয়েছিল এবং তারা বেশিরভাগই গানের মানুষ ছিল। তখন আমরা কাঁধে গীটার নিয়ে সারাদিন ঘুরে বেড়াতাম, গান করতাম। চারপাশে অনেকেই তখন গান করত।’

হাশিম মাহমুদের সঙ্গে পরিচয়ের কথা বলতে গিয়ে পরিচালক লেখেন, ‘সেই সমইয়ের অনেকের গানই এখন খুব জনপ্রিয়। কিন্তু আমার কাছে হাশিম ভাই এর গান ছিল ভিন্ন কিছু। কত বিকেল পার করেছি হাসিম ভাইয়ের গানে। অনেক বছর আগে আমি আর শোয়েব, হাশিম ভাই কিছু গান রেকর্ডও করেছিলাম, কিন্তু পরে সেই রেকর্ডিংগুলি আমরা হারিয়ে ফেলি। আমি যখন হাওয়ার কাজ শুরু করবো, তখনই ঠিক করেছিলাম সাদা সাদা কালা কালা গানটা সিনেমাতে রাখতে চাই।’

মেজবাউর রহমান সুমন আরো লেখেন, ‘কিন্তু হাশিম ভাইকে আমার দীর্ঘদিন ধরে খুঁজে পাচ্ছিলাম না। সে তখন আর চারুকলায় আসেনা। পরে জানতে পারি তিনি শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পরেছেন। অনেক খোঁজ খবর করার পর আমরা হাশিম ভাইকে খুঁজে পাই। হাশিম ভাইকে দিয়েই গানটি গাওয়াতে পারলে সবথেকে ভালো হতো। কিন্তু সেটা সম্ভভ হয়নি তার অসুস্থতার কারণে।’

‘সাদা সাদা কালা কালা’ গানটি প্রসঙ্গে পরিচালক জানান এতে খমক ছাড়া কোন বাদ্যযন্ত্র ব্যবহার করা হয়নি। নৌকার সব কাঠ বাস হাড়ি পাতিল দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে গানটির সঙ্গীতায়োজন করেছেন ইমন চৌধুরী। আর যন্ত্রগুলো বাঁজিয়েছে মিঠুন চাকরা।

অতল সমুদ্রে গন্তব্যহীন একটি ফিশিং ট্রলারে আটকে পড়া আট মাঝি মাল্লা এবং এক রহস্যময় বেদেনীকে ঘিরে নির্মিত হয়েছে ‘হাওয়া’ সিনেমার গল্প।

—ইউএনবি