December 2, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Sunday, October 30th, 2022, 8:59 pm

মেঘনায় ধরা পড়ছে ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ

ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক:

টানা ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞার পর ভোলার মেঘনায় ধরা পড়ছে ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ। এতে হাসি ফুটেছে জেলেদের মুখে। ব্যস্ততা বেড়েছে জেলেপাড়ায়। সরগরম হয়ে উঠেছে মাছের আড়ত। ইলিশ ধরার উৎসবে মেতে উঠেছেন জেলেরা। ইলিশ বিক্রির টাকায় বিগত দিনের ক্ষতি পুশিয়ে ঘুরে দাঁড়াতে পারবেন বলে আশাবাদী জেলেরা। আড়ৎগুলোতে লাখ লাখ টাকার মাছ বিক্রি হচ্ছে। সেই মাছ চলে যাচ্ছে বাইরের জেলাগুলোতে। নিষেধাজ্ঞা শেষে নদীতে শত শত নৌকা ও ট্রলার নিয়ে জেলেরা নেমে পড়েছেন ইলিশ শিকারে। প্রথম দিনেই ভালো পরিমাণে মাছ পাওয়ায় খুশি তারা। জেলে জসিম, শামসু ও খালেক বলেন, ‘আমরা রাতেই নদীতে গিয়েছি। যে পরিমাণ মাছ পেয়েছি তাতে ঘুরে দাঁড়াতে পারবো বলে আশা রাখছি। ধারদেনাও পরিশোধ করতে পারবো।’ এদিকে, ঘাটগুলোতে পাইকার, আড়তদার ও জেলেদের কর্মব্যস্ততায় সরগরম হয়ে উঠেছে মাছের আড়ত। ভোলা সদরের তুলিতলী মাছ ঘাটের আড়তদার মনজুর আলম বলেন, ‘নদীতে মোটামুটি ভালো ইলিশ পাওয়া যাচ্ছে। এতে জেলেরাও খুশি, আমরা আড়তদাররাও খুশি। প্রথমদিন এ ঘাটে ৬০ লাখ টাকার মাছের কেনা-বেচা হয়েছে। ইলিশ ধরা পড়ায় নিষেধাজ্ঞার কারণে সৃষ্ট আর্থিক ক্ষতি থেকে ঘুরে দাঁড়াতে পারবো বলে আশা করছি।’ এ বছর ইলিশের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হবে বলে মনে করছেন জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোল্লা এমদাদুল্লাহ। তিনি বলেন, ‘ইলিশের অভিযান সফল হওয়ায় নদীতে ইলিশের উৎপাদন বেড়েছে। দ্বীপজেলা ভোলায় ইলিশ ধরে জীবিকা চালান এমন জেলের সংখ্যা তিন লাখের অধিক।’