June 17, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, April 28th, 2023, 8:09 pm

ম্যাচের আবহে ব্যাটারদের অনুশীলন

অনলাইন ডেস্ক :

আইরিশদের বিপক্ষে সামনের মাসে ইংল্যান্ডের চেমসফোর্ডে নামার আগে নিজেদের প্রস্তুত করতে গত বুধবার সিলেটে তিন দিনের অনুশীলন ক্যাম্প করতে গিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। পরশু রাতে বিমানে চড়ে সিলেটে পৌঁছে বিশ্রাম নিয়ে রাত কাটিয়ে গত বৃহস্পতিবার সকাল থেকে রুদ্ধদ্বার ক্যাম্পে কঠোর অনুশীলন করে তামিম বাহিনী। এ সময় ম্যাচের আবহে অনুশীলন করেছে টাইগাররা। গত বৃহস্পতিবার সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে অনুশীলন ক্যাম্পের প্রথম দিন থেকেই সিরিয়াস দেখা গিয়েছে তামিম, মুশফিক, মিরাজদের।

ইংল্যান্ডের উইকেটের সঙ্গে সিলেটের উইকেটের কিছুটা মিল থাকায় কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে তার শিষ্যদের সেখানে নিয়ে গিয়েছে নিজেদের শেষ বারের মতো ঝালিয়ে নিতে। যেহেতু বাংলাদেশ কিছুদিন আগেও আয়াল্যান্ডের বিপক্ষে এই মাঠেই ওয়ানডে সিরিজে রানের পাহাড় গড়ে গড়ে জয় তুলে নিয়েছে, তাই তামিম-মুশফিকদের এখানে এনেই ম্যাচের বিভিন্ন পরিস্থিতিকে কিভাবে উইকেটে দাঁড়িয়ে নিজেদের সামাল দিতে হবে সেটারই পরীক্ষা নিয়েছেন হেড স্যার চন্ডিকা হাথুরুসিংহে।

অর্থাৎ ম্যাচে কোনো পরিস্থিতিতে কিভাবে ব্যাটিং করতে হবে সেটিই প্রথম দিনের অনুশীলনে ঝালিয়ে নেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া পাওয়ার প্লের প্রথম ১০ ওভার কিংবা ইনিংসের শেষ দিকে; এভাবে বিভিন্ন পরিস্থিতি সামনে রেখে অনুশীলন করেছেন তামিমরা। গত বৃহস্পতিবার অনুশীলন শেষে সাংবাদিকদের এমনটাই জানায় প্রথম বারের মতো টাইগার স্কোয়াডে জায়গা পাওয়া তরুণ পেসার মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী। প্রথমদিনের অনুশীলন ক্যাম্পে যা হয়েছে উল্লেখ করে মৃত্যুঞ্জয় বলেন, ‘অনুশীলনে ম্যাচ আবহে-প্রথম ১০ ওভার কীভাবে খেলতে হবে, শেষে কীভাবে খেলতে হবে।

এ অনুযায়ী ব্যাটসম্যানকে যে পরিকল্পনা অনুযায়ী নামানো হয়েছে, তারা সেভাবে ব্যাটিং করেছে। এই ম্যাচের অমন আবহের সঙ্গেই মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে।’ এসময় প্রথম বারের মতো জাতীয় দলের সঙ্গে অনুশীলন করে নিজের অনুভূতি জানিয়ে তরুণ এ পেসার বলেন, ‘আমার জন্য একটা রোমাঞ্চকর মুহূর্ত বলা যায়। দলের ভেতরে থেকে সিনিয়র ক্রিকেটারদের সঙ্গে এভাবে অনুশীলন করা হয়নি। এটা বড় একটা অর্জন। ভালো লাগাও কাজ করেছে। নতুন কিছু শিখতে পারছি। সে হিসেবে দিনটা ভালো গেছে।’ সুযোগ পেলে নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করবে জানিয়ে মৃত্যুঞ্জয় বলেন, ‘নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করব, সেটি করলেই ভালো কিছু হয়তো আসবে।

তবে পারফরম্যান্স থেকে শুরু করে খেলোয়াড়ের হাতে অনেক কিছুই থাকে না, আমার হাতে কঠোর পরিশ্রম করা ও আগ্রহের ব্যাপারটি আছে। আল্লাহ লিখে রাখলে ভালো কিছু হবে ইনশাআল্লাহ।’ সিলেটের এই ক্যাম্প টাইগারদের আইরিশদের বিপক্ষে ইংল্যান্ডে জয় পেতে সহায়তা করবে বলে মনে করেন ২১ বছর বয়সী এ পেসার। এ বিষয়ে মৃত্যুঞ্জয় বলেন, ‘ইংল্যান্ডের উইকেট বাউন্সি আছে, সিলেটের উইকেটের সুনাম আছে। আজও অনুশীলন করলাম, বাউন্স ছিল। তো এটা সহায়তা করবে।একেবারে তো আর ইংল্যান্ডের মতো উইকেট হওয়া সম্ভব না, যতটুকু হয়েছে সামনে ভালো কাজে দেবে।’

এদিকে ভারতে চলমান আইপিএলে খেলতে যাওয়ায় দলের সঙ্গে এ ক্যাম্পে নেই টাইগার ওপেনার লিটন কুমার দাস এবং পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। এ ছাড়া বোর্ড থেকে ছুটি নিয়েছেন দেশসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তবে গত বৃহস্পতিবার সিলেটে স্কোয়াডের বাইরে থাকা নাসুম আহমেদ, খালেদ আহমেদ, আবু জায়েদ রাহী, রেজাউর রহমান রাজারা ছিলেন দলের সঙ্গে অনুশীলন ক্যাম্পে।