January 20, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, January 10th, 2022, 9:06 pm

ম্যারাথনে বন্ধ হাতিরঝিল, যানজটে দুর্ভোগে রাজধানীবাসী

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ম্যারাথন উপলক্ষে রাজধানীর হাতিরঝিলে সকাল থেকে দুপুর প্রযন্ত সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকায় পাশের সড়ক গুলোতে যানজট সৃষ্টি হয়।

নিজস্ব প্রতিবেদক :

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২২ আয়োজনকে ঘিরে সোমবার (১০ জানুয়ারী) সকাল থেকে বন্ধ ছিল রাজধানীর হাতিরঝিলের সবগুলো প্রবেশপথ। এতে যানবাহনের চাপ বেড়ে যায় অন্য সড়কগুলোতে। তীব্র যানজট তৈরি হয় পুরো রাজধানীজুড়ে। এতে সীমাহীন ভোগান্তিতে পড়েন অফিসগামী কর্মজীবী ও শ্রমজীবী মানুষেরা। দীর্ঘক্ষণ যানজটে আটকে থেকে হেঁটে গন্তব্যে রওনা হন অনেকে। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) জানিয়েছিল, বঙ্গবন্ধু ম্যারাথন-২০২২ আয়োজনের জন্য সোমবার (১০ জানুয়ারী) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত হাতিরঝিলের সবগুলো প্রবেশপথ বন্ধ থাকবে। যেসব যানবাহন রেইনবো ক্রসিং দিয়ে হাতিরঝিল হয়ে গুলশান, বনশ্রী, রামপুরা ও বাড্ডায় যেতে ইচ্ছুক সেগুলো মগবাজার, মৌচাক হয়ে যাবে। রামপুরা ইউলুপ ও ইসলাম টাওয়ার দিয়ে যেসব গাড়ি হাতিরঝিলের মধ্য দিয়ে যেতে ইচ্ছুক, সেগুলো গুলশান-বাড্ডা লিংক রোড হয়ে যাবে। পুলিশ প্লাজা হয়ে যেসব গাড়ি হাতিরঝিলের মধ্য দিয়ে বিভিন্ন দিকে যেতে ইচ্ছুক, সেগুলো পুলিশ প্লাজা ও শুটিং ক্লাবের মাঝের রাস্তা দিয়ে বাড্ডা লিংক রোড হয়ে যাবে। এ ছাড়া সকাল সাড়ে ৫টায় ম্যারাথন দলটি আর্মি স্টেডিয়াম থেকে কাকলী হয়ে গুলশান-২ ও গুলশান-১ অতিক্রম করে হাতিরঝিলে প্রবেশ করবে। সকাল পার হয়ে দুপুর গড়ালেও প্রতিটি সড়কে কর্মমুখী মানুষের অতিরিক্ত চাপ লক্ষ্য করা গেছে। সেই সঙ্গে বেশ কিছু সড়ক বন্ধ থাকায় সড়কে যানবাহনও অতিরিক্ত দেখা যায়। যানজটে দীর্ঘক্ষণ ধরে যানবাহনগুলো আটকে থাকায় অনেককে হেঁটে গন্তব্যের উদ্দেশ্যে রওনা হতে দেখা গেছে। এক যাত্রী বলেন, ম্যারাথনের জন্য অনেক সড়ক বন্ধ যে কারণে অন্য যেসব সড়ক চালু আছে সেগুলোতে অতিরিক্ত চাপ সৃষ্টি হয়েছে। সকাল থেকেই তীব্র যানজট। বাসে যেতে দীর্ঘক্ষণ লাগবে তাই ওয়াটার ট্যাক্সিতে যেতে চেয়েছিলাম। কিন্তু এসে দেখি ওয়াটার ট্যাক্সি চলাচল বন্ধ এমন নোটিশ টাঙানো আছে। সকাল থেকে অতিরিক্ত যানজটের কারণে খুব বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে। উত্তরা থেকে মহাখালী আমতলী পর্যন্ত আসা বৈশাখী পরিবহনের যাত্রী নিয়াজ মোর্শেদ বলেন, উত্তরা থেকে মহাখালী পর্যন্ত আসতে তীব্র যানজট পেয়েছি। বেশিরভাগ পথই ধীর গতিতে আসতে হয়েছে। গুলিস্তান থেকে মালিবাগ আবুল হোটেল পর্যন্ত বাসে আসতে দুই ঘণ্টা সময় লেগেছে বলে জানান আশিক মাহমুদ। তিনি বলেন, সকালে হাতিরঝিল সড়ক বন্ধ থাকার কথা শুনে দুপুরে বের হয়েও তীব্র যানজটের মধ্যে পড়েছি। এমন যানজট যে হেঁটে যেতেও অনেককে দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। সড়কে অতিরিক্ত যানজটের বিষয়ে দায়িত্বপালনরত ট্রাফিক পুলিশ কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম জানান, ম্যারাথনের কারণে হাতিরঝিলের কিছু সড়ক বন্ধ থাকায় সকাল থেকে আশপাশের সড়কে যানবাহনের সংখ্যা বেড়েছে। তাই এসব সড়কে কিছুটা যানজট সৃষ্টি হয়েছে। আশা করা যায় বিকেলে যানজট কিছুটা হ্রাস পাবে।