July 14, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Thursday, August 25th, 2022, 7:37 pm

যেসব ছবির অপেক্ষায় দর্শক

অনলাইন ডেস্ক :

শুধু কথায় নয়, সত্যি সত্যি দর্শকের দোরগোড়ায় বাংলা সিনেমা! বিশেষ করে ‘পরাণ’ ও ‘হাওয়া’র বদৌলতে ঢাকাই সিনেমার এখন জয়জয়কার। নানা কারণে যে মধ্যবিত্ত শ্রেণি হল বিমুখ হয়ে পড়েছিলো, তারা আবার হলে ফিরতে শুরু করেছেন। এটা বাংলা ছবির জন্য অভাবনীয় সাফল্য বলে মনে করছেন সিনে বিশ্লেষকরা। তবে এই সুবাতাসের মধ্যেও আছে শঙ্কা! কারণ বাংলা সিনেমার ইতিবাচক এই হাওয়া বদলের ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে না পারলে ভেস্তে যাবে সব! আর তার জন্য নিয়মিত ভালো সিনেমার বিকল্প নেই বলেও মনে করছেন চলচ্চিত্র বোদ্ধারা। তারা বলছেন, কয়েক বছর ধরেই বিক্ষিপ্তভাবে কিছু সিনেমা নিয়ে দর্শকদের মধ্যে আগ্রহ দেখা গেলেও পরে এর ধারাবাহিকতা দেখা যায়নি। তারা মনে করছেন, পরপর গলুই, শান, পরাণ, দিন দ্য ডে এবং হাওয়ার মতো সিনেমা মুক্তি পাওয়াতে দর্শকের আগ্রহটা আবার ব্যাপকভাবে দেখা যাচ্ছে। এই ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে পারলে ও দর্শকদের পরিছন্ন পরিবেশে সিনেমা দেখার ব্যবস্থা করে দিতে পারলে সিনেমার সুদিন অব্যাহত থাকবে। অন্যথায় নয়। প্রযোজক ও পরিবেশক সমিতিতে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত জানুয়ারি থেকে ২৯ জুলাই পর্যন্ত দেশে মুক্তি পেয়েছে ২৪টি সিনেমা। এরমধ্যে শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ- ২, গলুই, বিদ্রোহী, শান, দিন দ্য ডে মোটামুটি ব্যবসা করেছে। তারই সূত্র ধরে পরাণ ও হাওয়া প্রেক্ষাগৃহে ব্লকবাস্টার হিট করেছে। এই ছবিগুলো ছাড়া বাকি সিনেমা সাধারণ দর্শকের মাঝে তেমন আলোচনা তৈরি করতে পারেনি। সিনেমা হলেও খুব একটা দর্শক চোখে পড়েনি। তবে প্রশংসা পেয়েছে মুখোশ, শিমু, গুণিন ও পাপপুণ্য। বছর শেষ হতে বাকি আরও ৪ মাস। এ সময়কে সিনেমার ভরা মৌসুম বলে মনে করছেন অনেকেই। মুক্তির অপেক্ষায় থাকা বেশ কয়েকটি সিনেমা নিয়ে আগ্রহী দর্শক। প্রেক্ষাগৃহ মালিকরা চাইছেন, এগুলো দ্রুত দর্শকের কাছে পৌঁছাক। ওটিটি কনটেন্ট নয়, সিনেমা হলের জন্য নির্মিত এই ছবিগুলোর মধ্যে দর্শকের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে আছে রায়হান রাফী পরিচালিত ইমপ্রেস টেলিফিল্মের ছবি ‘দামাল’, তারকাবহুল এই ছবিতে অভিনয় করেছেন সিয়াম আহমেদ, শরিফুল রাজ, বিদ্যা সিনহা মিম সহ অনেকে। এছাড়াও একই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের আরেক ছবি ‘বিউটি সার্কাস’ নিয়েও দর্শক প্রতীক্ষায় আছেন। মাহমুদ দিদার পরিচালিত এই ছবিতে অভিনয় করেছেন জয়া আহসান, তৌকীর আহমেদ, ফেরদৌস সহ অনেকে। দর্শকের আগ্রহের তালিকায় আছে ঢাকাই সিনেমার সুপারস্টার শাকিব খান অভিনীত একাধিক ছবি। এরমধ্যে ‘লিডার আমিই বাংলাদেশ’ ও ‘অন্তরাত্মা’ উল্লেখযোগ্য। রিয়াজ-সিয়াম-রোশানের ‘অপারেশন সুন্দরবন’, আরিফিন শুভর ‘ব্ল্যাক ওয়ার’ (মিশন এক্সট্রিম-পার্ট২) নিয়ে বহুদিন ধরেই আগ্রহী দর্শক। প্রদর্শক সমিতি জানিয়েছে, চলতি বছরে মুক্তির অপেক্ষায় আছে ‘আশীবার্দ’ (২৬ আগস্ট), ‘লাইভ’ (৯ সেপ্টেম্বর), ‘বীরত্ব’ (১৬ সেপ্টেম্বর), ঈশা খাঁ (৩০ সেপ্টেম্বর), ‘যাও পাখি বলো তারে’ (৭ অক্টোবর), ‘ক্যাসিনো’ (নভেম্বর), ‘জয় বাংলা’ (১৬ ডিসেম্বর)। চলতি বছর মুক্তির কথা শোনা গেলেও বহুল প্রতীক্ষিত বাংলাদেশ ও ভারতের যৌথ প্রযোজনার ‘মুজিব’- কবে মুক্তি পাবে সেই তথ্য খোঁজ করেও জানা যায়নি। সুন্দরবনের জলদস্যু দমন ও জীববৈচিত্র্য নিয়ে র‌্যাবের দুঃসাহসিক অভিযানের গল্পে নির্মিত দীপঙ্কর দীপনের ‘অপারেশন সুন্দরবন’ মুক্তি পাবে ২৩ সেপ্টেম্বর। একইসঙ্গে মুক্তি পেতে পারে ইমপ্রেস টেলিফিল্মের ‘বিউটি সার্কাস’। তপু খান পরিচালিত সামাজিক সচেতনতা ও অ্যাকশনধর্মী ‘লিডার আমিই বাংলাদেশ’ মুক্তি পেতে পারে অক্টোবরে। তবে ওয়াজেদ আলী সুমনের পরিচালনায় রোমান্টিক ও আত্মজীবনীমূলক সিনেমা ‘অন্তরাত্মা’ কবে মুক্তি পাবে সেটি নিশ্চিত জানা যায়নি। একই মাসে মুক্তির কথা রয়েছে সানী সানোয়ার ও ফয়সাল আহমেদের যৌথ পরিচালনায় ‘ব্ল্যাক ওয়ার’। এ ছাড়া ইমপ্রেস টেলিফিল্মের আরেক সিনেমা রায়হান রাফীর পরিচালনায় ‘দামাল’ মুক্তি পেতে যাচ্ছে ২৮ অক্টোবর। চলতি বছরের শেষে মুক্তির সম্ভাবনা আছে এই পরিচালকের আরেক সিনেমা ‘নূর’; যেটির নির্বাহী প্রযোজক নায়ক আরিফিন শুভ। আরও মুক্তি পেতে পারে আলোক হাসানের পরিচালনায় সিনেমা ‘নাকফুল’। রাজধানীর দর্শকের কাছে সিনেমা দেখার ক্ষেত্রে পছন্দের শীর্ষে স্টার সিনেপ্লেক্স। প্রতিষ্ঠানটির প্রধান বিপণন কর্মকর্তা মেজবাহ উদ্দিন সংবাদমাধ্যমকে বলেন, রোজার ঈদে গলুই ও শান-এর মাধ্যমে দেশের সিনেমার দর্শক হলমুখী হয়েছে। সর্বশেষ পরাণ ও হাওয়া খুব ভালো চলছে। দর্শকের সিনেমা হলে আসার অভ্যাসটা ইতোমধ্যে তৈরি হয়েছে। মানসম্মত গল্প ও সিনেমা দিতে পারলে দর্শকদের সিনেমা হলে আসার অভ্যাস বজায় থাকবে। আগামীতে বেশ কিছু ভালো ভালো সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। আমরা আশাবাদী এসব সিনেমাগুলো ভালো চলবে এবং ইন্ডাস্ট্রি চাঙ্গা থাকবে।