February 25, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Sunday, March 12th, 2023, 3:28 pm

রহস্যের বেড়াজালে সিলেটের দিপা হত্যা

জেলা প্রতিনিধি, সিলেট :

সিলেটের ওসমানীনগরে দিপা রানী সিংহ (১৪) নামের অষ্টম শ্রেণীর এক ছাত্রীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধারের তিনদিন অতিবাহিত হলেও এই ঘটনার রহস্য উদঘাটন করতে পারেনি থানা পুলিশ। ঘটনার পর থানা পুলিশ ও আইন শৃঙ্খলা বাহীনীর উর্ধতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এই ঘটনায় দিপার পিতা বাদি হয়ে শনিবার (১১ মার্চ) দুপুরে ওসমানীনগর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
ঘটনার পর দিপার কথিত প্রেমিকসহ কয়েক জনকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।
শনিবার বিকালে মামালা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ওসমানীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম মাইন উদ্দিন। তিনি জানিয়েছেন, নিহতের পিতা পীযুষ সিংহ বাদি হয়ে শনিবার থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। তবে এই মামলায় এখনো কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি।
জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) ভোরে উপজেলার তাজপুর বাজারে স্কুল রোডে তাজপুর ইউপি চেয়ারম্যান অরুনোদয় পাল ঝলকের নির্মাণাধীন একতলা ভবনের ছাদে লাশটি পাওয়া যায়। নিহত দিপা কুমিল্লা জেলার বরুড়া থানার তলা গ্রামের পীযুষ সিংহের মেয়ে ও তাজপুর মঙ্গল চন্ডি নিশি কান্ত সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী। দিপা পরিবারের সাথে দীর্ঘ দুই বছর ধরে ওই বহুতল ভবনের চারতলায় বসবাস করছে।
পুলিশ ও নিহততের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার রাতের খাবের খেয়ে পিতা পীযুষ সিংহের সাথে একই কক্ষে ঘুমিয়ে পরে দিপা সিংহ। ভোর ৫ টার দিকে পিতা পীযুষ ঘুম থেকে জেগে দেখেন মেয়ে পাশে নেই। ঘরের সদরদরজা কলাবসেবল গেইট খুলা মা ও বড় ভাইয়ের মোবাইল এবং ঘরের চাবি নির্দিষ্টস্থানে নেই। বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজির পর একই ভবনের পাশের একতলা নির্মাণাধীন একটি ভবনে দিপার রক্তাক্ত লাশ খুজে পান তার পরিবার।
পরিবারের লোকজন দিপাকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎক দিপাকে মৃত ঘোষণা করেন। ওসমানীনগর থানা পুলিশ খবর পেয়ে সকাল ৯ টার দিকে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। পরে সুরতাল শেষ করে ময়না তদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে লাশ প্রেরণ করা হয়।
ঘটনার খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন, পিবিআইয়ের পুলিশ সুপার খালেদুজ্জামান, ক্রাইমসিনের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ মোহাম্মদ সেলিম মিয়া, অতিরিক্তি পুলিশ সুপার ওসমানীনগর (সার্কেল) আশরাফুজ্জামান, ডিবির ওসি ইকতিয়ার উদ্দিন, ওসমানীনগর থানার ওসি এসএম মাইন উদ্দিন সহ সিআইডের টিম।