February 5, 2023

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, December 19th, 2022, 10:05 am

রাজনগর আওয়ামী লীগের নতুন ঘোষিত কমিটি একাংশের প্রত্যাখান

জেলা প্রতিনিধি, মৌলভীবাজার:

মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সদ্য প্রকাশিত ৭১ সদস্য বিশিষ্ট কার্যনির্বাহী কমিটি প্রত্যাখ্যান করেছে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান খানের নেতৃত্বাধীন আওয়ামীলীগের একাংশ। অগঠনতান্ত্রিক ভাবে কমিটি গঠন ও এটি জামায়াত-বিএনপি মদদপুষ্ঠ দাবি করে তারা প্রত্যাখান করেন। তাদের দাবী তৃণমূলের নির্যাতিত ও পরীক্ষিত নেতাকর্মীদের বঞ্চিত করে করে তাইব্রিডদের দিয়ে কমিটি গঠন করা হয়। নতুন ঘোষিত কমিটিকে প্রত্যাখ্যান ও বিলুপ্তি এবং গঠনতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় কমিটি গঠনের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন তারা। শনিবার ১৭ ডিসেম্বর শনিবার দুপুরে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের কার্যালয় প্রাঙ্গনে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে জানা যায়, গত ২০১৯ সালের ৭ ডিসেম্বর সম্মেলনে সভাপতি পদে মিছবাহুদ্দোজা ভেলাই মিয়া থাকলেও ২০২১ সালের ২৪ মার্চ তার মৃত্যুতে পদটি শূন্য হয়ে যায়। জেলা আওয়ামী লীগের স্বাক্ষরিত কমিটির প্যাডে ২০২১ সালের ২৭ মে উল্লেখ থাকলেও প্রায় দেড় বছর পর এই কমিটি প্রকাশ করা হয়েছে। ওই তারিখে কমিটি গঠন হয়ে থাকলে বর্তমান সভাপতি উপস্থিত থাকা সত্ত্বেও দলের সাধারণ সম্পাদকের সভাপতিত্বে শোক দিবসসহ একাধিক দলীয় কর্মসূচী পালন করা নিয়ে প্রশ্ন তুলেন তারা। এছাড়াও কিছুদিন আগেও মৌলভীবাজার জেলায় অনুষ্ঠিত প্রতিনিধি সম্মেলনে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক (সিলেট বিভাগ) আহমদ হোসেন তার বক্তব্যে উপজেলা আওয়ামীলীগের কমিটি কাউন্সিলের মাধ্যমে পূর্ণগঠনের জন্য নির্দেশনা দিয়েছিলন। কিন্তু উপজেলা আওয়ামীলীগের তৃণমূল পর্যায়ের নেতৃবৃন্দের মতামত উপেক্ষা করে বিএনপি জামাতর মদদপুষ্ট হয়ে মিথ্যাচার করে এ কমিটি দেয়া হয়েছে। ১৩ ডিসেম্বর কমিটি প্রকাশ করা হলেও অনুমোদন দেখানো হয়েছে ২০২১ সালের ২৭ মে।

 

 

আজাদ মিয়া চৌধুরীকে কোন নিয়মে সভাপতি করা হলো তাও জানতে চাওয়া হয়। এছাড়া লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, ২০১৯ সালের ৭ ডিসেম্বর কমিটি গঠন করা হলে চলতি বছরে ৭ ডিসেম্বর মেয়াদ শেষ হয়। কিন্তু জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সম্পাদক কাল। কাল্পনিক, মনগড়া ও গঠনতন্ত্র উপেক্ষা করে রাজনগর উপজেলা আওয়মীলীগের যে বিতর্কিত ও জামাত-বিœেপির মদতপুষ্ট কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে তা প্রত্যাখ্যান করার ঘোষণা দেন। সদ্য প্রকাশিত কমিটি বিলুপ্ত করে আওয়ামী লীগের নির্যাতিত ও পরীক্ষিত নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করে সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন কমিটি করার দাবি জানানো হয়। এসময় বিভিন্ন বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দেন উপজেলা চেয়ারম্যান ও সদ্য ঘোষিত কমিটির সদস্য মো: শাহজাহান খান, ইউপি চেয়ারম্যান ও সদ্য ঘোষিত কমিটির সদস্য টিপু খান, আওয়ামী লীগের সাবেক প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ও সদ্য ঘোষিত কমিটির সদস্য সাদিকুর রহমান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মুক্তি চক্রবর্তী, নিবারণ ঘোষ ভজন, ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কায়েস আহমদ, ছয়ফুল আলম, আবু মিয়া, শওকতুজ্জামান, ফজর আলী, গোলাম কিবরিয়া মিলন সদ্য ঘোষিত কমিটির সদস্য লুৎফুর রহমান লেবু, এম. সোহেল আলম প্রমুখ।