June 23, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Thursday, May 18th, 2023, 9:14 pm

রাজস্ব ঘাটতিতে বাড়ছেই ব্যাংক থেকে সরকারের ঋণের পরিমাণ

ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ব্যাংকিং খাত থেকে সরকারের ঋণের পরিমাণ বেড়েই চলেছে। মূলত রাজস্ব আদায় ঘাটতির কারণেই এমন পরিস্থিতির উদ্ভব হয়েছে। চলতি অর্থবছরের প্রথম ১০ মাসে (জুলাই-এপ্রিল) সরকার ব্যাংক খাত থেকে ৮২ হাজার ৫৬ কোটি টাকা ঋণ নিয়েছে। এর মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংক ৭৪ হাজার ৩৯৩ কোটি টাকা ঋণ দিয়েছে। বাকি ৭ হাজার ৬৬৩ কোটি টাকা ঋণ বেসরকারি ব্যাংক থেকে নেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংক সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, সরকার চলতি ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রথম ১০ মাসে (জুলাই-এপ্রিল) ব্যাংক খাত থেকে ঋণ নিয়েছে ৮২ হাজার ৫৬ কোটি টাকা। এর মধ্যে ৭৪ হাজার ৩৯৩ কোটি টাকা ঋণ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর বাইরে ব্যাংকবহির্ভূত খাত থেকে সরকার ৮ হাজার ৮৪১ কোটি টাকা ঋণ নিয়েছে। সব মিলিয়ে অভ্যন্তরীণ খাত থেকে চলতি অর্থবছরের ১০ মাসে ৯০ হাজার ৮৯৭ কোটি টাকা ঋণ নিয়েছে সরকার। গত মার্চ পর্যন্ত ব্যাংক খাতে সরকারের নিট ঋণের পরিমাণ ছিল ৫২ হাজার ৩৬০ কোটি টাকা। আর এপ্রিলে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮২ হাজার ৫৬ কোটি টাকায়। এর মধ্যে ৭৪ হাজার ৩৯৩ কোটি টাকা ঋণ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এ ছাড়া বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো দিয়েছে ৭ হাজার ৬৬৩ কোটি টাকা।

সব মিলিয়ে ব্যাংক ব্যবস্থায় সরকারের মোট ঋণ স্থিতি দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ৫৬ হাজার ৩৬৯ কোটি টাকা। সূত্র জানায়, এর আগে চলতি অর্থবছরের আগস্ট শেষে ব্যাংক থেকে সরকারের নেওয়া ঋণ স্থিতি দাঁড়িয়েছিল দুই লাখ ৬৭ হাজার ৫২ কোটি টাকা। এর পরের মাসে ঋণ স্থিতি দাঁড়ায় দুই লাখ ৮২ হাজার ৭১২ কোটি টাকায়। নভেম্বর মাসে ঋণের স্থিতি দাঁড়িয়েছিল দুই লাখ ৯৯ হাজার ১১৯ কোটি টাকায়। বছরের শেষ মাস ডিসেম্বর শেষে যার পরিমাণ ছিল তিন লাখ দুই হাজার ৪৩৪ কোটি টাকা। এপ্রিলে এসে যার পরিমাণ দাঁড়ায় তিন লাখ ৫৬ হাজার ৩৬৯ কোটি টাকা। অর্থাৎ চলতি বছরের চার মাসে ব্যাংক খাতে সরকারের ঋণ স্থিতি বেড়েছে ৫৩ হাজার ৯৩৫ কোটি টাকা। হিসাব অনুযায়ী প্রতি মাসেই ব্যাংক খাতে সরকারের ঋণ বাড়ছে।

এপ্রিল মাস শেষে ব্যাংক খাত থেকে সরকার মোট ঋণের মধ্যে এক লাখ ৩৪ হাজার ৩৮৬ কোটি টাকা বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে নিয়েছে। এ ছাড়া দেশের তফসিলি ব্যাংকগুলো থেকে নিয়েছে দুই লাখ ২১ হাজার ৯৮৩ কোটি টাকা। সূত্র আরো জানায়, চলতি ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেট ঘাটতি পূরণে এক লাখ ছয় হাজার ৩৩৪ কোটি টাকার ব্যাংকঋণ নেয়ার লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছে সরকার। আগের অর্থবছরে ব্যাংক ব্যবস্থা থেকে ঋণ নেয়ার লক্ষ্য ছিল ৭৬ হাজার ৪৫২ কোটি টাকা। অর্থাৎ এবার সরকারের লক্ষ্য প্রায় ৩০ হাজার কোটি টাকা বেশি ঋণ নেওয়ার।

তাছাড়া চলতি অর্থবছরে সঞ্চয়পত্র থেকেও ৩৫ হাজার কোটি টাকা ঋণ নেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছে সরকার। এদিকে এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র মেজবাউল হক জানান, বর্তমানে সরকারের লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী রাজস্ব আদায় হচ্ছে না। এর ফলে ব্যাংক থেকে সরকার ঋণ নিচ্ছে। এতে ব্যাংক খাতের কোনো সমস্যা হচ্ছে না। কারণ কোনো ব্যাংকেই তারল্য সংকট নেই। বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে সরকার সবচেয়ে বেশি পরিমাণে ঋণ নিচ্ছে। এ ছাড়া সরকারের নিজস্ব আয় বাড়াতে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে পরামর্শ দেয়া হয়েছে।