October 6, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, September 9th, 2022, 1:12 am

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ (১৯২৬-২০২২): ইতিহাসের সবচেয়ে দীর্ঘ মেয়াদী রাজত্বকারী সম্রাজ্ঞীর বিদায়

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ (১৯২৬-২০২২): ইতিহাসের সবচেয়ে দীর্ঘ মেয়াদী রাজত্বকারী সম্রাজ্ঞীর বিদায়

অনলাইন ডেস্ক :

৭০ বছর রাজত্ব করার পর বিশ্বের ইতিহাসে দ্বিতীয় দীর্ঘ মেয়াদী সম্রাজ্ঞী রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ ৯৬ বছর বয়সে বালমোরাল ক্যাসেলে মারা গেছেন। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার বিকালে তিনি মারা যান বলে বাকিংহাম প্যালেস জানিয়েছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে চিকিৎসকরা তার স্বাস্থ্য নিয়ে উদ্বেগ জানানোর পর তার পরিবারের সদস্যরা স্কটল্যান্ডের এই প্রাসাদে জড়ো হযন।

বর্তমান রাজা চার্লস, বর্তমান রানি ক্যামিলা, প্রিন্সেস অ্যানে আগে থেকেই রানির সঙ্গে বালমোরালে ছিলেন।

চার্লসের ছেলে প্রিন্স উইলিয়াম ও প্রিন্স হ্যারি পরিবার নিয়ে পথে রয়েছেন।

রানি ১৯৫২ সালে ব্রিটেনের সিংহাসন আরোহণ করেন এবং বিশাল সামাজিক পরিবর্তনের সাক্ষী হন।

বিবিসি জানিয়েছে, তাঁর মৃত্যুর পর এখন তার জ্যেষ্ঠ পুত্র ও প্রাক্তন প্রিন্স অব ওয়েলস প্রিন্স চার্লস যুক্তরাজ্যের নতুন রাজা এবং তিনি ১৪টি রাজ্যের কমনওয়েলথের প্রধান হিসেবে নেতৃত্ব দিবেন।

এক বিবৃতিতে বাকিংহাম প্যালেস বলেছে, রানি আজ বৃহস্পতিবার বিকালে বালমোরালে শান্তিপূর্ণভাবে মারা গেছেন। রাজা প্রিন্স চার্লস ও রানি কনসোর্ট সন্ধ্যায় বালমোরালে থাকবেন এবং আগামীকাল লন্ডনে ফিরে আসবেন।

রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের কার্যকাল যুদ্ধ-পরবর্তী কঠোরতা, সাম্রাজ্য থেকে কমনওয়েলথে উত্তরণ, স্নায়ুযুদ্ধের সমাপ্তি এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নে (ইইউ) যুক্তরাজ্যের প্রবেশ এবং ইইউ থেকে প্রত্যাহারের নানা ঘটনা ঘটে।

১৮৭৪ সালে জন্মগ্রহণকারী উইনস্টন চার্চিল এবং ১০১ বছর পরে এই সপ্তাহের শুরুতে রানি কর্তৃক নিযুক্ত হওয়া ১৯৭৫ সালে জন্মগ্রহণকারী লিজ ট্রাসসহ তাঁর শাসনামলে ১৫ জন প্রধানমন্ত্রী ছিলেন।

তিনি তাঁর শাসনামলে তার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাপ্তাহিক আলোচনার আয়োজন করেছিলেন।

লন্ডনের বাকিংহাম প্যালেসে, রানির অবস্থার আপডেটের অপেক্ষায় থাকা মানুষরা তার মৃত্যুর কথা শুনে কাঁদতে শুরু করেন।

রানি ১৯২৬ সালের ২১ এপ্রিল লন্ডনের মেফেয়ারে এলিজাবেথ আলেকজান্দ্রা মেরি উইন্ডসরের জন্মগ্রহণ করেন।

খুব কম লোকই ভাবতে পেরেছিলেন যে তিনি রানি হবেন। কিন্তু ১৯৩৬ সালের ডিসেম্বরে তাঁর চাচা এডওয়ার্ড অষ্টম দুইবার তালাকপ্রাপ্ত আমেরিকান ওয়ালিস সিম্পসনকে বিয়ে করার জন্য সিংহাসন ত্যাগ করেন।

এলিজাবেথের বাবা রাজা ষষ্ঠ জর্জ ১০ বছর বয়সে সিংহাসনে বসেন।

তিন বছরের মধ্যে ব্রিটেন নাৎসি জার্মানির সঙ্গে যুদ্ধে লিপ্ত হয়। এলিজাবেথ এবং তার ছোট বোন, প্রিন্সেস মার্গারেট যুদ্ধকালীন বেশিরভাগ সময় উইন্ডসর ক্যাসেলে কাটিয়েছিলেন যখন তাদের বাবা-মা তাদের কানাডায় সরিয়ে নেয়ার পরামর্শ প্রত্যাখ্যান করেছিলেন।

১৯৪৭ সালের ২০ নভেম্বর ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে প্রিন্স ফিলিপকে বিয়ে করেন এবং ফিলিপ এডিনবার্গের ডিউক উপাধি লাভ করেন।

৭৪ বছরের বিবাহিত জীবনের পর ২০২১ সালে ৯৯ বছর বয়সে মৃত্যুর আগে ফিলিপ রানিকে তার ‘শক্তি এবং অস্তিত্ব’ হিসেবে বর্ণনা করেন।