May 23, 2024

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Monday, February 13th, 2023, 8:13 pm

রিয়ালের সঙ্গে ব্যবধান বাড়াল বার্সা

অনলাইন ডেস্ক :

শুরুতেই জালের দেখা পেলেন পেদ্রি। আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে উত্তেজনা ছড়ানো ম্যাচে সেটাই গড়ে দিল ব্যবধান। ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে কঠিন বাধা পেরিয়ে গেল বার্সেলোনা। লা লিগায় শিরোপার লড়াইয়ে সুসংহত করল শীর্ষস্থান। ভিয়ারিয়ালের মাঠে রোববার রাতে ১-০ গোলে জিতেছে শাভি এর্নান্দেসের দল। এই জয়ে রিয়াল মাদ্রিদের চেয়ে ১১ পয়েন্ট এগিয়ে গেল এক ম্যাচ বেশি খেলা বার্সেলোনা। তৃতীয় মিনিটেই প্রথম সুযোগ পায় বার্সেলোনা। তবে পেদ্রির থ্রু পাস ধরে দারুণ পজিশন থেকে ওয়ান-অন-ওয়ানে গোলরক্ষক বরাবর শট নিয়ে হতাশ করেন রবের্ত লেভানদোভস্কি। গোলের জন্য অবশ্য বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি সফরকারীদের। ষোড়শ মিনিটে জুল কুন্দে প্রতিপক্ষের থেকে বল কেড়ে নেওয়ার পর দুই জন সতীর্থের পা ঘুরে পেয়ে যান লেভানদোভস্কি। তার চমৎকার ফ্লিকে বল পেয়ে দারুণ ফিনিশিংয়ে বাকিটা সারেন পেদ্রি। পরের মিনিটেই সমতা ফেরাতে পারত ভিয়ারিয়াল। প্রতি-আক্রমণে পেনাল্টি স্পটের কাছে বল পান হোসে লুইস মোরালেস। কিন্তু উল্টো দিকে ঘুরে ঠিক মতো শট নিতে পারেননি তিনি, বলও থাকেনি লক্ষ্যে। বেঁচে যায় বার্সেলোনা। ২৬তম মিনিটে ফ্রেংকি ডি ইয়ংয়ের চিপ ডি-বক্সে পেয়ে বল নামিয়ে বুলেট গতির শটে চেষ্টা করেন লেভানদোভস্কি, কিন্তু ঝাঁপিয়ে ঠেকান অভিজ্ঞ গোলরক্ষক পেপে রেইনা। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে সমতা ফেরানোর খুব ভালো একটি সুযোগ হাতছাড়া করেন মোরালেস। মাঝরেখার কাছে বল পেয়ে দ্রুত গতিতে এগিয়ে গিয়ে ঢুকে যান বার্সেলোনার ডি-বক্সে। কিন্তু কাছের পোস্ট দিয়ে জাল খুঁজে নেওয়ার চেষ্টায় সফল হননি তিনি, মারেন পাশের জালে। দারুণ জমে ওঠা ম্যাচে ৫৫তম মিনিটে আবার গোলরক্ষককে একা পেয়ে যান লেভানদোভস্কি। দূরের পোস্টে তার শট যায় ক্রসবারের অনেক উপর দিয়ে। নষ্ট হয় বার্সেলোনার আরেকটি চমৎকার সুযোগ। পাঁচ মিনিট পর গোলমুখে বল প্রায় পেয়েই যাচ্ছিলেন ভিয়ারিয়ালের ইয়েরেমি পিনো। পেছন থেকে ছুটে এসে কর্নারের বিনিময়ে ক্লিয়ার করেন রোনাল্দ আরাউহো। ৬৩তম মিনিটে রাফিনিয়ার শট দূরের পোস্ট ঘেঁষে বেরিয়ে যায়। এরপর দুই দলই সুযোগ তৈরি করে, কিন্তু জমাট রক্ষণ পেরিয়ে কোনো দলই সেভাবে গোলরক্ষকের পরীক্ষা নিতে পারেনি। ৯০তম মিনিটে বল জালে পাঠান ভিয়ারিয়ালের স্যামুয়েল চুকুউইজি, কিন্তু অফসাইডের জন্য মেলেনি গোল। একেবারে অন্তিম সময়ে বার্সেলোনার ডি-বক্সে একটি শট লাগে কুন্দের হাতে। পেনাল্টির জন্য জোর দাবি জানায় ভিয়ারিয়াল। ভিএআরের সঙ্গে কথা বলে সেটি নাকচ করে দিয়ে ম্যাচ শেষের বাঁশি বাজান রেফারি। ২১ ম্যাচে ১৮ জয় ও দুই ড্রয়ে বার্সেলোনার পয়েন্ট হলো ৫৬। এক ম্যাচ কম খেলা রিয়াল ৪৫ পয়েন্ট নিয়ে আছে দুই নম্বরে।