November 28, 2021

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, September 28th, 2021, 8:11 pm

রিয়াল, বার্সা ও ইউভেন্তুসের বিরুদ্ধে উয়েফার আইনি প্রক্রিয়া বাতিল

অনলাইন ডেস্ক :

বহুল আলোচিত ইউরোপিয়ান সুপার লিগে রয়ে যাওয়া তিন ক্লাবের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার প্রক্রিয়া আগেই স্থগিত করেছিল উয়েফা। এবার আনুষ্ঠানিকভাবে রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা ও ইউভেন্তুসের বিপক্ষে আইনি লড়াই বন্ধের ঘোষণা দিল ইউরোপীয় ফুটবল সংস্থাটি। গত এপ্রিলে ফুটবল বিশ্বকে চমকে দিয়ে ইউরোপের ১২টি ক্লাব সুপার লিগ আয়োজনের ঘোষণা দেয়। পরে প্রবল চাপের মুখে তিন দিনের মধ্যে সরে দাঁড়ায় ইংল্যান্ডের ছয়টি ক্লাবসহ ৯ ক্লাব। শুরুতেই ভেস্তে যেতে বসা ‘বিদ্রোহী’ প্রতিযোগিতাটি আঁকড়ে রয়ে যায় কেবল এই তিন ক্লাব। মূলত উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের বিদ্রোহী টুর্নামেন্ট হিসেবে প্রস্তাবিত এই সুপার লিগের মাঠে গড়ানোর পরিকল্পনা করে ক্লাবগুলো। অবশিষ্ট তিন ক্লাব বার্সেলোনা, রিয়াল ও ইউভেন্তুস অবশ্য এখনও সেই পরিকল্পনায় এগিয়ে যাচ্ছে। তাদের বাধা দিতে গত মে মাসে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরুর ঘোষণা দেয় উয়েফা। অন্যদিকে, সুপার লিগ আবির্ভাবের দুই দিন পরই এর পক্ষে মত দেয় স্পেনের একটি বাণিজ্যিক আদালত। রায়ে বলা হয়, ফিফা ও উয়েফা ইউরোপের শীর্ষস্থানীয় ১২টি ক্লাবের সুপার লিগ গঠন রোধ করতে পারে না। এরপরও ফিফা ও উয়েফা যদি ক্লাবগুলোকে বিচ্ছিন্ন সুপার লিগ তৈরিতে বাধা সৃষ্টি করে ইইউ কম্পিটিশন আইন ভঙ্গ করে, তাহলে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে ইউরোপিয়ান কোর্ট অব জাস্টিসকে অনুরোধ করেছিল মাদ্রিদের আদালত। তারই প্রেক্ষিতে সুইস আদালতের আদেশেই মূলত শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার কার্যক্রম স্থগিত করেছিল উয়েফা। সেই ধারাবাহিকতায় সোমবার বিবৃতি দিয়ে আইনি প্রক্রিয়া বাতিল করার ঘোষণা দেয় উয়েফা। “প্রস্তাবিত সুপার লিগে জড়িত হয়ে বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদ ও ইউভেন্তুস উয়েফার আইন ভেঙেছিল এবং সেজন্য তাদের বিরুদ্ধে যে শাস্তির প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল, উয়েফার আপিল বিভাগ ঘোষণা করছে, সেই প্রক্রিয়া পুরোপুরি খারিজ করা হলো এমনভাবে, যেন এমন কোনো প্রক্রিয়া কখনও শুরুই করা হয়নি। ‘সুপার লিগ’ নিয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আগে থেকেই এটির বিপক্ষে অবস্থান নেয় ফিফা ও উয়েফাসহ এর সকল অঙ্গ-সংগঠন। জড়িত ক্লাবগুলোকে শাস্তি দিতে আইনি প্রক্রিয়া বন্ধ করলেও উয়েফা জানিয়েছে, প্রস্তাবিত এই টুর্নামেন্টের বিষয়ে তাদের আগের বিরোধী অবস্থানের কোনো পরিবর্তন হবে না। টুর্নামেন্টটি থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেওয়া ৯ ক্লাবকে পুরনো অবস্থায় ফেরার অঙ্গীকারনামা ‘ক্লাব কমিটমেন্ট ডিক্লারেশন-এ স্বাক্ষর করিয়েছিল উয়েফা। সেই সঙ্গে ওই দলগুলোকে ‘আর্থিক জরিমানাও’ করে। এবারের বিবৃতিতে উয়েফা এটাও নিশ্চিত করেছে যে, তারা ওই ক্লাবগুলোর কাছ থেকে কোনো অর্থ নেবে না। গত জুনে আর্সেনাল, চেলসি, লিভারপুল, ম্যানচেস্টার সিটি, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, টটেনহ্যাম হটস্পার, এসি মিলান, ইন্টার মিলান ও আতলেতিকো মাদ্রিদ মিলে দুই কোটি ২০ লাখ পাউন্ড দিতে রাজি হয়েছিল।