May 27, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Thursday, March 3rd, 2022, 7:54 pm

রুশ প্রতিপক্ষকে হারিয়ে জয় পেল ইউক্রেইনের সভিতোলিনা

অনলাইন ডেস্ক :

মাতৃভূমি রয়েছে ঘোর বিপদে। আক্রমণ করেছে শত্রুপক্ষ। চলছে যুদ্ধ। এলিনা সভিতোলিনাও নেমেছেন যুদ্ধে, তবে অস্ত্র হাতে নয়; টেনিস কোর্টে, র‌্যাকেট হাতে। মন্তেরেই ওপেনের প্রথম রাউন্ডে রাশিয়ার আনাস্তাসিয়া পোতাপোভাকে হারিয়ে ইউক্রেইনের এই খেলোয়াড় বললেন, দেশের জন্য মিশনে আছেন তিনি। এখানে খেলে ইউক্রেইনের পাশে টেনিস সম্প্রদায়কে ঐক্যবদ্ধ করাই তার লক্ষ্য। একই সঙ্গে সভিতোলিনা জানিয়ে দিলেন, এই টুর্নামেন্ট থেকে পাওয়া সব অর্থ ইউক্রেইনের সেনাবাহিনীকে দিয়ে দেবেন তিনি। ইউক্রেইনের বিরুদ্ধে রাশিয়ার যুদ্ধ বুধবার সপ্তম দিনে গড়িয়েছে। মন্তেরেই ওপেনের প্রথম রাউন্ডে মঙ্গলবার সভিতোলিনা খেলতে নামেন দেশের পতাকার রঙে পোশাক পরে- হলুদ গেঞ্জি ও নীল স্কার্ট। তার সামনে পাত্তাই পাননি রাশিয়ার পোতাপোভা। ২৭ বছর বয়সী সভিতোলিনা সরাসরি সেটে জেতেন ৬-২, ৬-১ গেমে। শুরুতে পোতাপোভার বিপক্ষে খেলতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিলেন সভিতোলিনা। পরে ডব্লিউটিএ ও এটিপি রাশিয়া ও বেলারুশের খেলোয়াড়দের তাদের দেশের নাম নিষিদ্ধ করে নিরপেক্ষ ক্রীড়াবিদ হিসেবে খেলতে বলায় সিদ্ধান্ত পাল্টান তিনি। বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ের ১৫ নম্বর এই খেলোয়াড় ম্যাচ শেষে জানান, দেশের এই অবস্থায় মন ভালো নেই তার। “আমার দেশের জন্য একটি মিশনে নেমেছি আমি। মন খুব খারাপ। কিন্তু এখানে টেনিস খেলতে পেরে ভালো লাগছে।” ২০১৯ সালে উইম্বল্ডন ও ইউএস ওপেনের সেমি-ফাইনালিস্ট সভিতোলিনার লক্ষ্য এখানে খেলে ইউক্রেইনকে যতটা পারা যায় সাহায্য করা। “আমার মিশন হচ্ছে ইউক্রেইনের পাশে দাঁড়ানোর জন্য আমাদের টেনিস সম্প্রদায়কে ঐক্যবদ্ধ করা, ইউক্রেইনকে সাহায্য করা। কারণ, সেখানে সব ইউক্রেনিয়ানরা ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে।” “আমি এ কারণেই এখানে এসেছি। এ কারণেই আমি দেশের হয়ে খেলছি। আমার মঞ্চ কাজে লাগিয়ে যত বেশি সম্ভব মানুষকে ইউক্রেনইকে সমর্থন করতে উদ্বুদ্ধ করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি আমি।” মেক্সিকোতে দ্বিতীয় রাউন্ডে বুলগেরিয়ার কোয়ালিফায়ার ভিক্তরিয়া তোমোভার মুখোমুখি হবেন সভিতোলিনা। বিশ্বের সাবেক তিন নম্বর এই খেলোয়াড় এখানে খেলছেন শীর্ষ বাছাই হিসেবে। এই ইভেন্ট থেকে প্রাপ্ত সব অর্থ তিনি দেবেন দেশের সেনাবাহিনীকে। “আমি ইউক্রেইনের সেনাবাহিনী ও সাধারণ মানুষদের সাহায্য করার জন্য খেলছি। এখানে আমি যে কয়টি জয় পাব তার প্রতিটিই খুব বিশেষ কিছু হতে চলেছে।” রাশিয়ান টেনিস ফেডারেশন ও বেলারুশ টেনিস ফেডারেশনকে আন্তর্জাতিক দলীয় প্রতিযোগিতা থেকে নিষিদ্ধ করেছে ইন্টারন্যাশনাল টেনিস ফেডারেশন। গত বৃহস্পতিবার ইউক্রেইনে রাশিয়া সামরিক আগ্রাসন শুরুর পর তাদের সমর্থনে যোগ দেয় বেলারুশ।