June 28, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Thursday, May 5th, 2022, 7:25 pm

শত্রুঘ্নর বিরুদ্ধে পূজার গুরুতর অভিযোগ

অনলাইন ডেস্ক :

বলিউড অভিনেতা ও আসানসোলের সাংসদ শত্রুঘ্ন সিনহার বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ তুলেছেন ‘বিগ বস ৫’-এর প্রতিযোগী পূজা মিশ্রা। সম্প্রতি ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে সিনহা পরিবারকে তার ক্যারিয়ার এবং জীবন ধ্বংস করার জন্য অভিযুক্ত করেছেন অভিনেত্রী। তিনি আরও দাবি করেন, শত্রুঘ্ন সিনহা ও তার পরিবার অভিনেত্রীর সঙ্গে ‘সেক্স স্ক্যাম’ করেছে। হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, শত্রুঘ্ন সিনহা ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে একের পর এক বিস্ফোরক অভিযোগ করেছেন পূজা। অভিনেত্রীর অভিযোগ, ‘মেয়ে সোনাক্ষীকে স্টার বানাতে আমার ভার্জিনিটি বেচে দিয়েছিলেন শত্রুঘ্ন।’ পূজা দাবি করেন, ১৭ বছর ধরে নাকি এসব সহ্য করে আসছেন তিনি। তার জায়গায় অন্য কেউ থাকলে সে এতদিনে আত্মহত্যা করত। সাক্ষাৎকারে পূজা মিশ্রা অভিযোগ করেন, ‘বলিউডের একটি পরিবার শুধু আমার ক্যারিয়ারই নষ্ট করেনি, ব্যক্তিগত জীবন এবং অর্থও ধ্বংস করেছে। বলছি শত্রুঘ্ন সিনহার কথা। তিনি আমার বাবার খুব ভালো বন্ধু ছিলেন। আমার বাবা আয়কর কমিশনার ছিলেন। শত্রুঘ্নকে কোটি কোটি টাকা সাহায্য করে এসেছেন। গত ২০ বছর ধরে এই পরিবার আমার পিছনে পড়ে আছে। আমার বাবা যখন মুম্বাইয়ে কাজ করতেন, তখন পুনম সিনহা আমার বাবার ব্রেনওয়াশ করে বলেন, ‘বলিউডে বেশ্যারা কাজ করে।’ অভিনেত্রী আরও বলেন, ‘এত বড় বেইমান উনি, আজ ওর নিজের মেয়ে সোনাক্ষী সিনহা বলিউডে সিনেমা করছে। অথচ আমার পথ বন্ধ করতে আমার বাবার ব্রেন ওয়াশ করলেন। বাবা ২০০৫-এ রিটায়ারমেন্টের পর পুনে চলে যায়। আমি একাই ভিডিওকন গেস্ট হাউসে থাকতাম। তখন ঘরে বসে পুনম ও শত্রুঘ্ন সিনহা আমার ওপর ব্ল্যাক ম্যাজিক করত। ওদের ভয় ছিল, আমি যদি থেকে বেশি বিখ্যাত হয়ে যাই। আমার ৩৫টা সিনেমা ওরা চুরি করে নিয়েছে। প্রতিবার নিজেদের কথা শাহরুখ খান, সলমান খানের নাম নিয়ে বলে দাবি করেছে এটা নাকি ওরা বলেছে।’ প্রাক্তন বিগ বস প্রতিযোগীর আরও গুরুতর অভিযোগ তোলেন সিনহা পরিবারের বিরুদ্ধে। তিনি বলেন, ‘২০০৯ সালে একবার আমি ওদের বাড়ি গিয়েছিলাম। সামনে শত্রুঘ্ন সিনহার জন্মদিন ছিল। তাই আমি ওর জন্য সেন্টেড ক্যান্ডেলস নিয়ে গিয়েছিলাম। বিনোদন শিল্পে কেউ নিরাপদ নয় তা সবাই জানে, কিন্তু পুনম সিনহা অন্য মাত্রায় নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতেন। সেদিন আমাকে কীসব খাইয়ে কালো জাদু করেছিল ওরা। এরা কত লোভী ও পৈশাচিক।’ পূজারও আরও অভিযোগ, তার অবর্তমানে সোনাক্ষী তার জিনিস চুরি করে পরতেন। তিনি অভিযোগ করেন, ‘আমাকে মাদক খাইয়ে দেহ ব্যবসা করাত ওরা। আমার শরীর বিক্রি করেই বড়লোক হয়েছে। আমি এখনও লড়াই করছি। সালমান খানের ‘দাবাং ৩’ সিনেমা যখন তৈরি হচ্ছিল, তখন আমাকে নেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এরা রাজনীতি শুরু করে। এরা আমাকে জোর করে ৬ মাসের জন্য রিহ্যাবে পাঠিয়েছিল। সোনাক্ষী যাতে তারকা হয়ে উঠতে পারেন সেজন্য এমন ওষুধ ও ইনজেকশন দেওয়া হয়েছিল। এমন পাপী পরিবার, বাবা এবং তার মেয়েকে ইন্ডাস্ট্রির অংশ হতে দেওয়া উচিত নয়। ১৭ বছর ধরে এই অত্যাচার চলেছে। অন্য কেউ আমার জায়গায় থাকলে আত্মহত্যা করে ফেলত এতদিনে।’ তিনি আরও বলেন, ‘সালমান খান আমাকে খুব ভালোবাসেন। ও অনেক আগে থেকেই চাইতেন আমি বিগ বসে অংশ নিই কিন্তু এই সিনহা দম্পত্তির কারণে তা হয়নি। শেষ পর্যন্ত আমি বিগ বসে যাই।’ পূজা মিশ্রার একের পর এক বিস্ফোরক অভিযোগ আলোচনার ঝড় তুলেছে বিনোদন জগতে।