June 28, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Wednesday, October 6th, 2021, 8:33 pm

শাবিপ্রবির লেকে পোনামাছ অবমুক্তকরণ

জেলা প্রতিনিধি, সিলেট :
শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) সিলেট সদর উপজেলা মৎস্য অধিদপ্তরের উদ্যোগে ২০২১-২২ অর্থবছরের রাজস্ব বাজেটের অর্থায়নে মাছের পোনা অবমুক্ত করা হয়েছে। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুইটি লেকে ১০০ কেজি কার্প জাতীয় মাছের পোনা অবমুক্ত করা হয়। বুধবার (৬ অক্টোবর) দুপুর সাড়ে ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদ সংলগ্ন লেকে এ পোনামাছ অবমুক্তকরণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ ও বিশেষ অতিথি হিসেবে সিলেট বিভাগীয় মৎস অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ড. মো. মোতালেব হোসেন, জেলা মৎস অফিসার মো. আবুল কালাম আজাদ, সিলেট সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আশফাক আহমদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
পোনা অবমুক্তকালে উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘মৎস্য অধিদপ্তরের সাথে কাজ করতে পেরে আমরা অনেক আনন্দিত। গত বছর তাদের সহযোগিতায় প্রায় ৭০ কেজি পোনামাছ অবমুক্ত করা হয়েছিল। এরই ধারাবাহিকতায় এ বছর এই কর্মসূচি পালিত হচ্ছে। এতে ১০০ কেজি পোনামাছ অবমুক্তকরণ করা হয়েছে। আগামী দিনে বিশ্ববিদ্যালয়ের অবোকাঠামোগত উন্নয়নের মাধ্যমে নতুন ধারা আসবে বলে আশাও ব্যক্ত করেন তিনি।
এছাড়া এই কর্মসূচি বাস্তবায়নে সহযোগিতা করায় মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপসচিব এবং শাবিপ্রবি সমাজকর্ম এলামনাই এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইসলাম শামীমকে ধন্যবাদ জানান উপাচার্য।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সিলেট সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আশফাক আহমদ বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের এ ধরনের কাজে নিজেকে নিযুক্ত করতে পেরে আমি অনেক গর্বিত ও আনন্দিত। আমি মনে করি শিক্ষার্থীরা পড়াশোনার পাশাপাশি এসব কাজ থেকে উদ্বুদ্ধ হবে। এছাড়া শিক্ষার্থীদের উদ্যোক্তা হওয়ার জন্যও আহবান জানান তিনি।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে শাবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. তুলসী কুমার দাস, সিন্ডিকেট সদস্য ও সেন্টার অব এক্সিলেন্সের পরিচালক অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মস্তাবুর রহমান, ছাত্র উপদেশ ও নির্দেশনা পরিচালক অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমদ, প্রক্টর ড. আলমগীর কবীর, শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মহিবুল আলম, ইন্সটিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসিওরেন্স সেল (আইকিউএসি) অতিরিক্ত পরিচালক ইশরাত ইবনে ইসমাইল, রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ইশফাকুল হোসেন, বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক, দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।