November 29, 2021

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Tuesday, September 7th, 2021, 9:14 pm

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললে দিনে দুই বিষয়ের চার ক্লাস

ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক:

করোনা পরিস্থিতিতে তিন ফুট দূরত্ব রেখে শ্রেণিকক্ষে শিক্ষার্থীদের বসানো হবে। ২০২১ সালের এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের সপ্তাহে ছয়দিন, ২০২২ সালের পরীক্ষার্থীদের দুইদিন ও গত সোমবার থেকে বৃহস্পতিবার অন্যান্য স্তরে ক্লাস নেওয়া হবে। মঙ্গলবার(৭ সেপ্টেম্বর)  স্কুল-কলেজের প্রধানদের সঙ্গে বৈঠক করে একটি মৌলিক রুটিন প্রণয়ন করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)। এটি মাউশির ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে বলে জানা গেছে। আগামী ১২ সেপ্টেম্বর থেকে খুলছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। স্বাস্থ্যবিধি মেনে কবে কোনদিন কাদের ক্লাস নেওয়া হবে সে বিষয়ে একটি মৌলিক রুটিন তৈরি করা হয়েছে। এটি অনুসরণ করে সারাদেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শ্রেণিপাঠ পরিচালনা করতে হবে। শিক্ষকরা মৌলিক ক্লাস রুটিনকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। এটি অনুসরণ করে তারা ক্লাস করাতে সম্মতি প্রকাশ করেছেন। নতুন ক্লাস রুটিনে দেখা গেছে, ২০২১ সালের এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের সপ্তাহে শনিবার থেকে বৃহস্পতিবার দুটি বিষয়ের চারটি ক্লাস নেওয়া হবে। ২০২২ সালের এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের শনিবার ও রোববার দুটি বিষয়ের চারটি ক্লাস হবে। এ ছাড়া ষষ্ঠ শ্রেণির ক্লাস গত সোমবার, সপ্তম শ্রেণির মঙ্গল, অষ্টম শ্রেণির বুধব ও নবম শ্রেণির ক্লাস বৃহস্পতিবার নেওয়া হবে। মাধ্যমিকের সকল স্তরে প্রতিদিন দুটি বিষয়ের চারটি করে ক্লাস করানো হবে। ঢাকার ধানমন্ডি গভর্মেন্ট বয়েজ হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানদের মতামত নিয়ে মাউশি একটি গাইডলাইনমূলক ক্লাস রুটিন প্রণয়ন করেছে। এতে শিক্ষকরা সম্মতি দিয়েছেন। সেটি অনুসরণ করে শ্রেণি পাঠদান পরিচালনা করা হবে। এটি একটি সুন্দর ও বাস্তবসম্মত রুটিন। তিনি বলেন, করোনার মধ্যে আমরা কীভাবে, কখন ও কতক্ষণ ক্লাস নেবো তা নিয়ে একধরনের দুশ্চিন্তা তৈরি হয়েছিল। বর্তমানে সেটি কেটে গেছে। আমাদের নতুন চ্যালেঞ্জ নিয়ে শ্রেণিতে পাঠদান শুরু করতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে তা করতে হবে। দেখা গেছে, স্কুল-কলেজে প্রভাতী শিফট সকাল সাড়ে ৭টায় শুরু হয়ে বেলা ১১টা ৪০ মিনিট পর্যন্ত ও দিবা ১২টা ৪০ মিনিটে শুরু হয়ে ৪টা ৪০ মিনিট পর্যন্ত চলবে। একটি শিফট শেষে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কাজের জন্য এক থেকে দেড় ঘণ্টা বিরতি দিতে হবে। শিক্ষার্থীদের প্রতিটি আগের নিয়মে ক্লাস ৪৫ মিনিটের পরিবর্তের ৪০ মিনিট করে নেওয়া হবে। যে সকল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে প্রাথমিকস্তর যুক্ত রয়েছে সেখানে এ সময়ের সঙ্গে সমন্বয় করে ক্লাস রুটিন তৈরি করতে হবে। প্রত্যেক ছাত্রছাত্রীকে ক্লাসে তিন ফুট দূরত্বে বসাতে হবে। মাউশির মহাপরিচালক অধ্যাপক সৈয়দ গোলাম ফারুক বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানদের সঙ্গে বৈঠক করে আমরা একটি গাইডলাইনমূলক মৌলিক ক্লাস রুটিন তৈরি করছি। সেটি অনুসরণ করে দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে রুটিন ও ক্লাস পরিচালনা করতে হবে। তিনি বলেন, মৌলিক এ রুটিন দিয়ে আপাতত ছাত্রছাত্রীদের ক্লাস করাতে হবে। এটি অনুসরণ করে শ্রেণি পাঠদান পরিচালিত হচ্ছে কিনা ও সার্বিক অবস্থা মূল্যায়নে সারাদেশে মনিটরিং করা হবে। পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত এ ক্লাস রুটিন কার্যকর থাকবে।