June 26, 2022

The New Nation | Bangla Version

Bangladesh’s oldest English daily newspaper bangla online version

Friday, June 10th, 2022, 8:17 pm

শুটিংয়ে শৃঙ্খলা ফেরাতে সবাইকে চুক্তি স্বাক্ষর করতে হবে

অনলাইন ডেস্ক :

শুটিংয়ে শৃঙ্খলা ফেরাতে নিয়ম করা হয়েছিল নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে টিভি নাটকের শুটিং শেষ করার। এর কয়েক বছর পর গভীর রাত পর্যন্ত শুটিং করা নিয়ে অভিযোগ করেন শিল্পীরা। তারপর ফেডারেশন অব টেলিভিশন প্রফেশনালস অর্গানাইজেশন (এফটিপিও) সিদ্ধান্ত নেয়, শুটিংয়ের আগে সবাইকে চুক্তি স্বাক্ষর করতে হবে। করোনা সংকট শুরুর পর ফের দেখা দেয় বিশৃঙ্খলা। এ নিয়ে ফের নোটিশ জারি করেছে এফটিপিও। এফটিপিওর নতুন নোটিশে বলা হয়েছে, মিডিয়ার সামগ্রিক নিয়ম, শৃঙ্খলা ও সুষ্ঠু কর্মপরিবেশ বজায় রাখার স্বার্থে ফেডারেশন অব টেলিভিশন প্রফেশনালস অর্গানাইজেশন সকল প্রযোজক, নির্মাতা, শিল্পী কলাকুশলীদের চুক্তিপত্রে স্বাক্ষরের মাধ্যমে যথাযথ নিয়ম অনুসরণ করে নির্মাণ কাজ সচল রাখার আহ্বান জানাচ্ছে। শুটিং সময়সীমা পূর্বের ন্যায় রাত ১১টা পর্যন্ত সীমাবদ্ধ থাকবে। তবে প্রাকৃতিক দুর্যোগ, বিদ্যুৎ বিভ্রাট, শিল্পী কলাকুশলীদের অসুস্থতা, কাহিনির বিশেষ প্রয়োজনে উল্লিখিত সময়সীমা ওই ইউনিটের সকল শিল্পী কলাকুশলীরা আলোচনার মাধ্যমে নিষ্পত্তি করবেন। কিন্তু এ নোটিশ নিয়ে সন্তুষ্ট নন কোনো কোনো নির্মাতা। কারণ শিল্পীরা কয়টার মধ্যে সেটে হাজির থাকবেন সে বিষয়ে কিছু উল্লেখ করেননি। কিছু বিষয় উল্লেখ করে ফেসবুকে নির্মাতা রাহাত কবির লিখেন, ‘যেমনে নোটিশ জারি করছেন মনে হইতেছে পরিচালকরা মনের সুখে ১১টার পর শুটিং করতে চায়। মিডিয়ার সামগ্রিক নিয়ম, শৃঙ্খলা ও সুষ্ঠু কর্মপরিবেশ বজায় রাখার স্বার্থে সেটে আসার টাইম কয়টায় এইটা তো লিখেন নাই। সকল সংকট সমাধানের প্রতিশ্রুতি ক্যামনে হইলো? তাহলে যারা ঠিক টাইমে সেটে না আইসা সহযোগিতা করছেন না তাদের কারণেই আপনারা দুর্বল! তো যাদের জন্য দুর্বল তাদের জন্যও একটা নোটিশ জারি করেন না কেন? কীসের এত ভয়, কিসের এত বাধা, কিসের এত পরাধীনতা?’ পরিচালক সরদার রুকন ফেসবুকে লিখেন, ‘যারা এইটা করে তারাও আর্টিস্ট, আর্টিস্টরা সিদ্ধান্ত দেয়, নিকেতন হইলো একটা নোটিশ বোর্ড। সেই নোটিশ বোর্ড আমাদের মতো নির্মাতাকে দিয়ে নোটিশটা ঝুলায় দেয়, এই হলো নিকেতনের কাজ। কে নিবে তাদের বিরুদ্ধে সিদ্ধান্ত! সেই সাহস কার আছে!’ নির্মাতা এ কে আজাদ সেতু লিখেন, ‘যে লাউ সেই কদু।’ এফটিপিও চেয়ারম্যান অভিনেতা মামুনুর রশীদ নতুন নোটিশের বিষয়ে বলেন ‘এই নিয়ম আগে থেকেই ছিল। শুনেছি, কিছু শিল্পী বিলম্বে আসে। এটা নিয়ে অভিযোগ আছে; তাই সবাইকে সতর্ক হতে বলছি।’